শিরোনাম
প্রকাশ : ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২২:৩৫
আপডেট : ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২২:৩৮

ভাইদের হারের মধুর বদলা দিদিদের: ভারতীয় গণমাধ্যম

অনলাইন ডেস্ক

ভাইদের হারের মধুর বদলা দিদিদের: ভারতীয় গণমাধ্যম

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের চলতি আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভারতের কাছে ১৮ রানে হেরে গেছে সালমা খাতুনের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। ভারতের ১৪৩ রানের টার্গেটের জবাবে বাংলাদেশ নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে সংগ্রহ করে ১২৪ রান। এর কয়েক সপ্তাহ আগে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ফাইনালে বাংলাদেশের কাছে হেরে ট্রফি হাতছাড়া হয়েছিল ভারতের। সেই হারের ক্ষত এখনও তাজা। এবার এই দুইটি ম্যাচ এক সঙ্গে নিয়ে এসে ভারতীয় গণমাধ্যম এই সময় শিরোনাম করেছে, ভাইদের হারের মধুর বদলা নিল দিদিরা।

প্রতিবেদনে বলা হয়, মহিলাদের টি-২০ বিশ্বকাপে ১৮ রানে বাংলাদেশকে হারাল ভারত। ভারতের হয়ে দুর্দান্ত বোলিং করেন শিখা পাণ্ডে এবং পুনম যাদব। মাত্র ১৪ রান দিয়ে ২ উইকেট তুলে নেন শিখা। অন্যদিকে ১৮ রান দিয়ে ৩ উইকেট তুলে নেন পুনম। আর দলের হয়ে সর্বোচ্চ রান করেন শেফালি বর্মা। ১৭ বলে ৩৯ রান করেন তিনি। বাংলাদেশের হয়ে নিজার সুলতানা ২৬ বলে ৩৫ রান করেন। এ দিন উইমেন অফ দ্য ম্যাচ হন শেফালি বর্মা।

অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ফাইনালে বাংলাদেশের কাছে লজ্জার হার হারতে হয়েছে ভারতকে। সেই মধুর বদলা নিতেই এ দিন মাঠে নেমেছিল দিদিরা। দিদিরা অর্থাৎ ভারতের মহিলা ক্রিকেট দল। পার্থে টি-২০ বিশ্বকাপে ভারতের দ্বিতীয় ম্যাচে এ দিন তারা মুখোমুখি বাংলাদেশের।

সোমবার টসে হেরে যায় বাংলাদেশ। আর তারপরই ব্যাট হাতে নামে ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দল। ধাক্কা ছিলই। কারণ, স্মৃতি মান্ধানা জ্বরের জন্য এ দিন দলের বাইরে। তাই এই ম্যাচে ওপেন করতে নামেন শেফালি বার্মা এবং তানিয়া ভাটিয়া। ব্যাট ধরেই মারমুখী মেজাজে খেলা শুরু করেন শেফালি। তবে এরই মাঝে মাত্র ২ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান তানিয়া। আর অন্যদিকে ঝড়ের গতিতে খেলে যাচ্ছিলেন শেফালি।

তানিয়া আউট হতেই মাঠে ব্যাট করতে নামেন জেমিমাহ। শেফালির সঙ্গে বড় রানের পার্টনারশিপের দিকেই এগিয়ে যাচ্ছিল টিম ইন্ডিয়া। তবে কিছুক্ষণের মধ্যেই আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান শেফালি। ১৭ বলে ৩৯ রানের একটি ঝরঝরে ইনিংস উপহার দেন তিনি।

শেফালি আউট হতেই বাংলাদেশ ক্রিকেটারদের মধ্যে ব্যাপক উচ্ছ্বাস দেখা যায়। মাঠে নামেন ক্যাপ্টেন হরমনপ্রীত কউর। যদিও মাত্র ৮ রান করার পরই প্যাভিলিয়নে ফেরত চলে যান হরমনপ্রীত। ১০ ওভারের শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ৭৮ রান করে ভারত।

তবে তার কিছুক্ষণের মধ্যেই প্যাভিলিয়নে ফিরে যান জেমিমা। ৩৪ রান করে রান আউট হন তিনি। ১৩ ওভার ২ বলে ভারতের স্কোর দাঁড়ায় ৯২ রানে। মাঠে তখন খেলা চালিয়ে যাচ্ছিলেন রিচা ঘোষ এবং দীপ্তি শর্মা। আর তাঁদের দুজনের সুবাদেই ১০০ রানের গণ্ডি পার করে ভারত।

১৪ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান রিচা ঘোষ। ১১ রানের মাথায় রান আউট হয়ে যান দীপ্তি শর্মাও। ১৮ ওভারের শেষে ভারতের স্কোর ৬ উইকেট হারিয়ে ১২৯ রানে দাঁড়ায়। ভেদা কৃষ্ণমূর্তি এবং শিখা পাণ্ডের জুটিই তখন ভারতকে বড় রানের দিকে নিয়ে যাচ্ছিল। আর এই দুজনের সুবাদেই শেষ পর্যন্ত ভারত ২০ ওভারে ১৪২ রান করে।

তবে বাংলাদেশ ব্যাট করতে নেমে প্রথম থেকেই নড়বড়ে দেখাতে থাকে। ওপেন করতে নামেন শামিনা সুলতানা এবং মুর্শিদা খাতুন। প্রথম ওভারটা কোনওরকম ভাবে উতরানোর পর দ্বিতীয় ওভারেই প্রথম উইকেট খুইয়ে ফেলে বাংলাদেশ। মাত্র ৩ রান করে শিখা পাণ্ডের বলে আউট হয়ে যান শামিমা সুলতানা।

পুনম যাদব এবং শিখা পাণ্ডের দুর্ধর্ষ বোলিংয়ে ৫০ রানের গণ্ডি টপকাতেই ৮ ওভার অবধি অপেক্ষা করতে হয় বাংলাদেশকে। এরই মাঝে দ্বিতীয় উইকেটটিও খুইয়ে ফেলে টাইগাররা। অরুন্ধতী রে়ড্ডির বলে মাত্র ১০ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরে গেলেন নিগার সুলতানা। ৯ ওভার ২ বলে ২ উিকেট হারিয়ে ৫৫ রান করে বাংলাদেশ।

১০ ওভার পার করে ঠিক তিন নম্বর বলে পুনম যাদব ফিরিয়ে দেন সানজিদা ইসলামকে। এরপর ফের উইকেট তুলে নেন অরুন্ধতী রেড্ডি। শূন্য রানে তিনি ফিরিয়ে দেন ফারজানা হককে। ১২ ওভারের শেষে ৪ উইকেট হারিয়ে ৬৭ রান করে বাংলাদেশ। ফের চমক দেখান পুনম যাদব। মাত্র ১৭ রানের মাথায় প্যাভিলিয়নে ফিরিয়ে দেন ফাহিমা খাতুনকে। ১৫ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৯৪ রান। কোনও রকমে এই ওভারেই ১০০ রানের গণ্ডি টপকায় বাংলাদেশ।

আর এর ঠিক পরেই তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে বাংলাদেশ। রানও তুলতে ব্যর্থ হয় তাঁরা। ২০ ওভার অবধি ব্যাট করে ১২৪ রান করে টাইগ্রেসরা। হারায় ৮টি উইকেট। ভারতের কাছে ১৮ রানে হারতে হয় বাংলাদেশকে।

বিডি-প্রতিদিন/মাহবুব


আপনার মন্তব্য