শিরোনাম
১৮ মে, ২০২৩ ০৫:০৯

এআই নিয়ে উদ্বেগ : মার্কিন কংগ্রেসের শুনানিতে চ্যাটজিপিটি প্রধানের সাক্ষ্য

অনলাইন ডেস্ক

এআই নিয়ে উদ্বেগ : মার্কিন কংগ্রেসের শুনানিতে চ্যাটজিপিটি প্রধানের সাক্ষ্য

ওপেনএআই-এর সিইও স্যাম অল্টম্যান ওয়াশিংটনের ক্যাপিটল হিলে সিনেট জুডিশিয়ারি প্রাইভেসি, টেকনোলজি অ্যান্ড ল সাবকমিটির শুনানিতে সাক্ষ্য দেন

চ্যাটজিপিটি প্রস্তুতকারক কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) সংস্থার প্রধান মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসকে বলেছেন, সরকারী হস্তক্ষেপ "ক্রমবর্ধমান শক্তিশালী" এআই সিস্টেমের ঝুঁকি হ্রাস করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

ওপেনএআই-এর সিইও স্যাম অল্টম্যান মঙ্গলবার সিনেটের শুনানিতে বলেন,

"এই প্রযুক্তির অগ্রগতির সাথে সাথে আমরা বুঝতে পারছি, এটি কীভাবে আমাদের জীবনযাত্রাকে পরিবর্তন করতে পারে তা নিয়ে লোকেরা উদ্বিগ্ন আমরাও”।

সান ফ্রান্সিসকো ভিত্তিক তার স্টার্টআপ গত বছরের শেষের দিকে চ্যাটজিপিটি প্রকাশের পরে জনসাধারণের দৃষ্টি আকর্ষণ করে। চ্যাট জিপিটি বিনামূল্যে দেয়া চ্যাটবট সরঞ্জাম যা বিশ্বাসযোগ্যভাবে মানুষের মতো প্রতিক্রিয়া সহ প্রশ্নের উত্তর দিতে সক্ষম।

হোমওয়ার্ক অ্যাসাইনমেন্টে প্রতারণা করার জন্য চ্যাটজিপিটির ব্যবহার সম্পর্কে শিক্ষাবিদদের প্রথমে আতঙ্ক শুরু হয। এরপর তা মানুষকে বিভ্রান্ত করা, মিথ্যা প্রচার, কপিরাইট সুরক্ষা লঙ্ঘন করার মতো উদ্বেগে রুপ নেয়। পরবর্তীতে কিছু চাকরি কেড়ে নেয়ার ক্ষেত্রে "জেনারেটরি এআই" সরঞ্জামগুলির সর্বসাম্প্রতিক ক্ষমতা নিয়ে বড় ধরনের আশংকায় রুপ নিয়েছে।

ইউরোপীয় আইনপ্রণেতাদের মতো কংগ্রেস নতুন কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) নীতিমালা প্রণয়ন করবে এমন কোনো তাৎক্ষণিক লক্ষণ না থাকলেও সামাজিক উদ্বেগের কারণে চলতি মাসের শুরুতে অল্টম্যান ও অন্যান্য প্রযুক্তি প্রধান নির্বাহীরা হোয়াইট হাউজে আসেন। যুক্তরাষ্ট্রের এজেন্সিগুলো বিদ্যমান নাগরিক অধিকার ও ভোক্তা সুরক্ষা আইন ভঙ্গকারী ক্ষতিকর কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) পণ্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়।

নীতিনির্ধারক এবং জনসাধারণের সাথে প্রযুক্তি সম্পর্কে কথা বলার জন্য অল্টম্যান এই মাসে ছয়টি মহাদেশের জাতীয় রাজধানী এবং প্রধান শহরগুলিতে বিশ্বব্যাপী সফর শুরু করার পরিকল্পনা করছেন। সেনেটে তার সাক্ষ্য প্রদানের প্রাক্কালে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকজন আইন-প্রণেতার সঙ্গে নৈশভোজে মিলিত হন। আইন প্রণেতাদের অনেকেই বার্তা সংস্থা সিএনবিসিকে বলেন তাঁরা তা২র মন্তব্যে মুগ্ধ হয়েছেন।

প্যানেলের রিপাবলিকান সিনেটর মিসৌরি অঙ্গরাজ্যের জোশ হাউলি বলেন, “কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা এমনভাবে রূপান্তরিত হবে যা আমরা কল্পনাও করতে পারি না। আমেরিকানদের নির্বাচন, চাকরি এবং নিরাপত্তার উপর তা প্রভাব ফেলবে। কংগ্রেসের কী করা উচিত তা বোঝার জন্য এই শুনানি একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রথম পদক্ষেপ”।

অল্টম্যান এবং অন্যান্য প্রযুক্তি শিল্পের নেতারা বলেছেন, তারা এআই’এর উপর কিছু তদারকিকে স্বাগত জানিয়েছেন। তবে তারা অতিরিক্ত কড়া নিয়মের বিরুদ্ধে সতর্ক করেছেন। আইবিএম-এর মন্টগোমেরি তার মন্তব্যের একটি অনুলিপিতে কংগ্রেসকে একটি "নির্ভুল নিয়ন্ত্রণ" পদ্ধতি গ্রহণ করতে বলেছেন।

সূত্র : ভয়েস অব আমেরিকা

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর