Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১০ জুলাই, ২০১৯ ১৭:৩৩
আপডেট : ১০ জুলাই, ২০১৯ ১৯:০৮

প্রশ্নপত্রে সেফুদা, সেই শিক্ষক বরখাস্ত

অনলাইন ডেস্ক

প্রশ্নপত্রে সেফুদা, সেই শিক্ষক বরখাস্ত

প্রশ্নপত্রে বিতর্কিত সিফাত উল্লাহ মজুমদার ওরফে সেফুদা চরিত্র অন্তর্ভুক্ত করে প্রশ্ন তৈরি করা রাজউক উত্তরা মডেল কলেজের (স্কুল শাখা) ইসলাম ধর্ম শিক্ষক জাহিনুল হাসানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। 

বিষয়টি নিশ্চিত করে রাজউক উত্তরা মডেল কলেজের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক বলেন, ঐ শিক্ষক যে প্রশ্নপত্র তৈরি করেছেন তা সমালোচনা সৃষ্টি করেছে। বিতর্কিত বিষয় প্রশ্নপত্রে রাখা যাবে না বলে শিক্ষাবোর্ডের একটি পরিপত্র আছে। শিক্ষক জাহিনুল তা লঙ্ঘন করেছেন। ফলে তার বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার পক্রিয়া চলছে।

তিনি আরও বলেন, যেহেতু তার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে তা প্রমাণের জন্য একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। সে হিসেবেই ধর্ম শিক্ষক জাহিনুল হাসানকে বরখাস্ত করা হয়েছে। 

গত মঙ্গলবার কলেজের উপাধ্যক্ষকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানা গেছে। আগামী ১৮ তারিখ স্কুলের পরিচালনা পর্ষদ চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে।

উল্লেখ্য, প্রতিষ্ঠানটির দশম শ্রেণির প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষার ইসলাম শিক্ষা প্রশ্নপত্রে সিফাত উল্লাহ মজুমদারকে (সেফুদা) উল্লেখ করে একটি সৃজনশীল প্রশ্ন তৈরি করা হয়। প্রশ্নে বলা হয়, অদ্ভুত এক ধরণের মানুষ সেফাতুল্লাহ সেফুদা। সোশ্যাল মিডিয়ায় সে বিভিন্ন ধরণের কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করে।  এ উদ্দীপক থেকে প্রশ্ন করা হয়েছে, ‘আকাইদ কী?, ‘ইসলামের নাম ইসলাম রাখা হয়েছে কেন?’, ‘বিজ্ঞ আলেমের বক্তব্যে যে বিষয়টি ফুটে উঠেছে, তা আমাদের জীবনে কী প্রভাব ফেলতে পারে তা ব্যাখ্যা করো’।  ‘ঘ’ নম্বর প্রশ্নে বলা হয়েছে, তরুণদের উদ্দেশে দেয়া সেফুদার বক্তব্য কিসের শামিল? এর ফলাফল বিশ্লেষণ করো। এই প্রশ্নপত্র ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে ওই প্রশ্নপত্র নিয়ে নিয়ে সমালোচনার ঝড় বইতে শুরু করে

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য