শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ নভেম্বর, ২০১৯ ১৮:১৩

ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুলে’র প্রভাবে বরিশাল নগরীর রাস্তাঘাটের বেহাল দশা

রাহাত খান, বরিশাল:

ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুলে’র প্রভাবে বরিশাল নগরীর রাস্তাঘাটের বেহাল দশা

ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ এর প্রভাবে টানা ৩ দিনের ভারী বর্ষণ এবং জলাবদ্ধতার কারণে বরিশাল নগরীর রাস্তাঘাট শেষ। নগরীর অধিকাংশ সড়কের বিটুমিন উঠে গিয়ে বড় বড় খানা-খন্দের সৃষ্টি হয়েছে। সড়কগুলো এখন মরনফাঁদে পরিণত হয়েছে। সড়ক সংস্কার না হওয়ায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন নগরীর বাসিন্দারা। 

নগরবাসী জানান, বর্তমান মেয়র দায়িত্ব নেওয়ার পর এক বছরের বেশী সময় অতিক্রম হয়েছে। এই সময়ের মধ্যে প্রধান ৩টি সড়ক পুননির্মান করেছেন। বাকী সড়কগুলোতে আগে থেকেই কিছু খানাখন্দের সৃস্টি হয়েছিলো। কিন্তু ‘বুলবুলের’ প্রভাবে টানা ৩দিনের ভারী বর্ষন এবং জলাবদ্ধতায় ওইসব সড়কের বেশীরভাগের বিটুমিন উঠে গিয়ে বড় বড় খানা-খন্দের সৃষ্টি হয়েছে। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন নগরবাসী। 

সড়ক সংস্কারের দাবীতে গত শুক্রবার নগরীর কাশীপুর বাজারে স্থানীয় এলাকাবাসী এবং কিছুদিন আগে নগরীর সাগরদী বাজারে মানববন্ধন করে গনসংহতি আন্দোলনের নেতাকর্মীরা। একই দাবীতে গত শুক্রবার সংবাদ সম্মেলন করেছেন জেলা বাসদ নেতৃবৃন্দ। সংবাদ সম্মেলনে জেলা বাসদ সদস্য সচিব ডা. মনিষা চক্রবর্তী বলেন, নগরীর ৮০ ভাগ সড়ক এখন চলাচলের অনুপোযোগী। এতে প্রতিনিয়ত বরিশালবাসীকে চরম দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে। সংবাদ সম্মেলনে দ্রুত নগরীর সকল সড়ক সংস্কারের দাবী জানানে হয়। 

গত এক বছরে নগরীর আমতলা মোড় থেকে সদর রোড, জেলখানা মোড় থেকে নথুল্লাবাদ এবং জেলখানার মোড় থেকে পলাশপুর ব্রিজ পর্যন্ত ৩টি সড়ক অটোমেটিক মেশিন দিয়ে টেকসইভাবে নির্মান করা হয়েছে। এই সড়ক দিয়ে মানুষ স্বাচ্ছন্দে চলাফেরা করতে পারছেন। 

এর বাইরে নগরীর বগুড়া রোড, বান্দ রোড, রাজা বাহাদুর সড়ক, শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সম্মুখ সড়ক, আলেকান্দা-বটতলা সড়ক, শ্রীনাথ চ্যাটার্জী লেন, নবগ্রাম রোড, মল্লিক রোড, কালিবাড়ি রোড, স্ব-রোড, ভাটিখানা সড়ক, ধানগবেষণা রোড, অক্সফোর্ড মিশন রোড, গোরস্থান রোড, কলেজ রো, বৈদ্যপাড়া সড়ক, কাজীপাড়া সড়ক, কাউনিয়া প্রধান সড়ক, কাশীপুর বাজার থেকে গণপাড়া সড়ক,  ব্রাঞ্চ রোড, বিআইপি সড়ক এবং পলাশপুর-রসুলপুর সড়কের বেশীরভাগ বিটুমিন উঠে গেছে। সড়কের পাথর ছড়িয়ে পড়েছে আশপাশে। অনেক স্থানে সৃস্টি হয়েছে বড় বড় গর্তের। এসব সড়কে চলতে গিয়ে ভোগান্তিতে পড়ছে সাধারন মানুষ। 

যদিও এর মধ্যে নগরীর বটতলা-বাংলাবাজার সড়কের সংষ্কার কাজ শুরু করেছে সিটি করপোরেশন। 

বরিশাল সিটি করপোরেশনের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আনিচুজ্জামান বলেন, নগরীর কিছু রাস্তাঘাট কিছুটা খারাপ ছিলো। কিন্তু সাম্প্রতিক ভারী বর্ষন এবং জলাবদ্ধতার কারনে নগরীর বেশীরভাগ সড়ক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। নগরীর ক্ষতিগ্রস্থ ১৭টি সড়ক চিহ্নিত করে দ্রুত সংস্কারের নির্দেশ দিয়েছেন সিটি মেয়র। মেয়রের নির্দেশে ইতিমধ্যে বটতলা-বাংলাবাজার সড়কের সংস্কার কাজ শুরু হয়েছে। আগামী ১৫-২০ দিনের মধ্যে সকল সড়কের সংষ্কার কাজ সম্পন্ন হবে বলে আশা করেন তারা। 

সিটি মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ বলেন, তিনি দায়িত্ব গ্রহণের এক বছরের মধ্যে দুটি বড় ধরণের ঘূর্ণিঝড় ফনি এবং বুলবুলে নগরীর রাস্তাঘাটের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থ রাস্তা সংস্কারের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। নগরবাসীর এই সমস্যা সমাধানে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য সংশ্লিস্ট বিভাগকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অচিরেই সড়ক সংস্কার কাজ শেষ হবে বলে তিনি আশাবাদী। 

বিডি প্রতিদিন/মজুমদার


আপনার মন্তব্য