শিরোনাম
প্রকাশ : ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৬:১২

বইমেলার জন্য প্রকাশকদের আগ্রহপত্র আহ্বান

অনলাইন ডেস্ক

বইমেলার জন্য প্রকাশকদের আগ্রহপত্র আহ্বান

২০২১ সালের অমর একুশে গ্রন্থমেলায় অংশগ্রহণের জন্য প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছ থেকে প্রাথমিক আগ্রহপত্র আহ্বান করেছে বাংলা একাডেমি। 

শুক্রবার বইমেলা পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব এবং বাংলা একাডেমির পরিচালক ড. জালাল আহমেদ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই আহ্বান জানানো হয়েছে।

প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছ থেকে প্রাথমিক আগ্রহপত্র আহ্বান করা হলেও এ বছর প্রাথমিকভাবে নতুন কোনো প্রতিষ্ঠানকে স্টল দেওয়া হচ্ছে না। ২০২০ সালের বই মেলাতে যেসব প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে, তাদের মধ্য থেকেই প্রাথমিক বাছাই করা হবে এবারের বইমেলার অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলো। 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বাংলা একাডেমি অমর একুশে স্মরণের অংশ হিসেবে প্রতি বছর অমর একুশে বইমেলার আয়োজন করে থাকে। এবার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তিতে বইমেলার বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। 

কিন্তু করোনা-পরিস্থিতিতে বহু দিক বিবেচনা করে বাংলা একাডেমিকে বইমেলা আয়োজনের দিকে অগ্রসর হতে হচ্ছে। ইতোমধ্যে একাডেমি প্রকাশকদের দুটি সমিতি ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে এ-বিষয়ে আলোচনা করেছে। প্রকাশকদের সমিতির পক্ষ থেকে প্রতি বছরের মতো এবারও বইমেলা আয়োজনের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। তবে তারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন।

এবার কোনো প্রতিষ্ঠান বর্ধিত আকারের স্টলের জন্য আবেদন করতে পারবে না। তবে চাইলে স্টলের আকার কমাতে পারবে। আর অনিবার্য কারণে বইমেলা যেকোনো পর্যায়ে স্থগিত বা বাতিল হলে বাংলা একাডেমিকে দায়ী করা যাবে না বলেও উল্লেখ করা হয় বিজ্ঞপ্তিতে।

এতে বলা হয়, গতবার বইমেলায় স্টল পাওয়া (প্রকাশনা, শিশু, সরকারি, বেসরকারি, মিডিয়া, গবেষণা) প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে যারা ২০২১ সালের বইমেলায় অংশগ্রহণ করতে চান তাদের প্রাথমিক আগ্রহপত্র জমা দেওয়ার জন্য অনুরোধ করা হলো। এবার কোনো প্রতিষ্ঠান বর্ধিত আকারের স্টলের আবেদন করতে পারবে না, তবে চাইলে স্টলের আকার কমাতে পারবে। অনিবার্য কারণে সরকারের বৃহত্তর স্বাস্থ্যনীতির স্বার্থে বইমেলা যেকোনো পর্যায়ে স্থগিত বা বাতিল হলে বাংলা একাডেমিকে দায়ী করা যাবে না।

আগামী ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে বাংলা একাডেমির বইমেলা বিষয়ক ওয়েবসাইট (www.ba21bookfair.com) থেকে প্রাথমিক আগ্রহপত্র জমা দিতে হবে। এই আগ্রহপত্র পূরণ করে জমাদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোই কেবল বইমেলায় অংশগ্রহণের সুযোগ পাবে।

এবারের বইমেলায় নতুন  প্রকাশকরা কেন অংশগ্রহণের সুযোগ পাচ্ছেন না, সে বিষয়ে ড. জালাল আহমেদ বলেন, বইমেলার একটি পরিসর এবং বিস্তৃতির বিষয় রয়েছে। একইসঙ্গে এবার গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে স্বাস্থ্যবিধির ওপর। তাই আমরা প্রাথমিক পর্যায়ে ২০২০ সালের বই মেলায় অংশ নেওয়া প্রকাশনীগুলোর আগ্রহ দেখতে চাইছি। তাদের আগ্রহপত্র জমা প্রদান শেষ হলে সেই সংখ্যার ওপর নির্ভর করবে নতুন প্রতিষ্ঠানের বিষয়টি।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর