শিরোনাম
প্রকাশ : ৩০ অক্টোবর, ২০২০ ০১:৪৪

বরিশাল শেবাচিমের জরুরি বিভাগে তালা দিয়ে চিকিৎসকদের বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল

বরিশাল শেবাচিমের জরুরি বিভাগে তালা দিয়ে চিকিৎসকদের বিক্ষোভ

বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (শেবাচিম) জরুরী বিভাগসহ সব গেট আটকে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট শুরু করেছে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা। 

হাসপাতালের ইন্টার্ন ডক্টরস এসোসিয়েশনের সভাপতি সজল পান্ডে এবং সাধারণ সম্পাদক তারিকুল ইসলামের নেতৃত্বে কোনও পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) দিবাগত রাত ১২টা থেকে জরুরি বিভাগের গেটে তালা ঝুলিয়ে ধর্মঘট শুরু করেন তারা। 

এ সময় ডায়াগনস্টিক কমিশনে অভিযুক্ত ডা. মাসুদের বিচারের দাবিতে নানা শ্লোগান দিয়ে বিক্ষোভ করেন ইন্টার্ন চিকিৎসকরা। হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মতো অতিগুরুত্বপূর্ণ গেট আটকে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের আন্দোলনের কারণে চরম ভোগান্তিতে পরেন সাধারণ রোগী ও তাদের স্বজনরা।

ডাগায়নস্টিক সেন্টারের কমিশন ভাগাভাগি নিয়ে গত ২০ অক্টোবর মেডিকেলের মেডিসিন বিভাগের ইউনিট-৩ এর সহকারী রেজিস্ট্রার ডা. মাসুদ খানকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ ওঠে ইন্টার্নদের চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে। 

এ ঘটনায় ২১ অক্টোবর কয়েকজন ইন্টার্ন চিকিৎসকের নামোল্লেখ করে হাসপাতালের পরিচালকের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন ডা. মাসুদ। পরদিন ২২ অক্টোবর ইন্টার্ন চিকিৎসকরা ডা. মাসুদের বিরুদ্ধে ডায়াগনস্টিকের কমিশন আদায়, নারী সহকর্মীদের সাথে অশালীন আচরন, সিনিয়দের সাথে ঔদ্ধত্য প্রদর্শন এবং ইন্টার্নদের ভাতা আটকে রাখার অভিযোগে পরিচালকের কাছে স্মারকলিপি দেয়। 

উভয় পক্ষের অভিযোগ তদন্তের জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ওইদিনই ৩ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করেন। কমিটিকে পরবর্তী ৫ কার্যদিবসের মধ্যে রিপোর্ট দিতে বলা হলেও এখন পর্যন্ত রিপোর্ট আলোরমুখ দেখেনি। 

অভিযোগের বিচার না পাওয়াসহ অভিযুক্তের বিচার দাবিতে বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) দিবাগত রাত ১২টা থেকে জরুরি বিভাগের গেটসহ হাসপাতালের সকল গেটে তালা ঝুলিয়ে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট শুরু করেন ইন্টার্নরা। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন হাসপাতালের নবগঠিত ইন্টার্ন ডক্টরস এসোসিয়েশনের সাধারন সম্পাদক ডা. তারিকুল ইসলাম। 

এদিকে, হাসপাতালের জরুরি বিভাগসহ সব গেট আটকে ইন্টার্ন ধর্মঘট শুরু হওয়ায় বেকায়দায় পড়েছেন জরুরিসহ সব ধরনের রোগী ও তাদের স্বজন এবং হাসপাতালের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।


বিডি প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর