Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১১ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১০ এপ্রিল, ২০১৯ ২৩:৪৮

এসপি হারুনের লাঙ্গলবন্দ স্নান ঘাট পরিদর্শন

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

এসপি হারুনের লাঙ্গলবন্দ স্নান ঘাট পরিদর্শন

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মহাতীর্থ লাঙ্গলবন্দ অষ্টমী স্নান আগামীকাল। এ উপলক্ষে জেলা পুলিশ প্রশাসন ব্যাপক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। পুণ্যার্থীরা যাতে অনায়াসে স্নান উৎসব পালন করতে পারেন সে জন্য জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে নিরাপত্তাবলয় তৈরি করা করা হয়েছে। আগামীকাল থেকে শুরু হওয়া স্নান ঘিরে প্রস্তুত ব্রহ্মপুত্রের তীর লাঙ্গলবন্দ। পুণ্যার্থীদের বিশ্বাস, তিথির নির্দিষ্ট সময়ে ব্রহ্মপুত্র নদে পুণ্য স্নান করলে সব পাপ মোচন হয়ে যায়। আগামীকাল বেলা ১১টা ৫ মিনিট থেকে পরদিন শনিবার সকাল ৮টা ৫৫ মিনিট ২২ সেকেন্ড পর্যন্ত তিথি। গতকাল বিকালে নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ লাঙ্গলবন্দের বিভিন্ন ঘাট পরিদর্শন করেন। পরে তিনি লাঙ্গলবন্দের নিরাপত্তা নিয়ে প্রেস ব্রিফিং করেন। প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, ‘লাঙ্গলবন্দে পুণ্যার্থীদের উৎসব যাতে নিরাপদ হয় সে জন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ১ হাজার ৬০০ সদস্য নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করবেন। তিন শিফটে তারা তাদের দায়িত্ব পালন করবেন। লাঙ্গলবন্দে সারা দেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে পুণ্যার্থীরা পুণ্য স্নান করতে আসেন। তাদের নিরাপত্তায় জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে কোনো কমতি নেই। আমরা সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছি। মোবাইল টিম, ওয়াচ টাওয়ার, মহিলা পুলিশ ও আনসার বাহিনী নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত থাকবে।’ তিনি বলেন, ‘১৮টি স্নান ঘাটসহ পুরো লাঙ্গলবন্দ সিসি ক্যামেরার আওতাভুক্ত থাকবে। ২০১৫ সালে যে অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা ঘটেছিল সে ঘটনার আর যেন পুনরাবৃত্তি না ঘটে সে জন্য সবাইকে সতর্ক থাকতে  হবে।’ প্রসঙ্গত, এসপি হারুন নারায়ণগঞ্জে যোগ দেওয়ার পরই জেলায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অভাবনীয় উন্নতি হয়েছে। তিনি অপরাধীদের আতঙ্ক হয়ে উঠেছেন। অন্যায় প্রশ্নে কাউকে ছাড় দিচ্ছেন না। এসপি হারুনের যোগদানের পর থেকে জেলার সাধারণ মানুষ স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে শুরু করেছেন। পরে এসপি হারুন পুলিশের অন্য কর্মকর্তাদের নিয়ে রাজঘাট, গান্ধীঘাট, ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে স্থাপিত কন্ট্রোল রুম পরিদর্শন করে দেখেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর