শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২১ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ জানুয়ারি, ২০২০ ০১:৪১

বিদেশি বিনিয়োগে ১৬ বাধা

সংসদে তথ্য

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিদেশি বিনিয়োগে ১৬ বাধা

দেশে বিদেশি বিনিয়োগ বাড়ানোর পথে বাধা হিসেবে আগ্রহী উদ্যোক্তাসহ ১৬টি কারণ সংসদে তুলে ধরেছেন শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে একাদশ সংসদের ষষ্ঠ অধিবেশনে গতকালের বৈঠকে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য তুলে ধরে জানান, বিদেশি বিনিয়োগের ১৬টি অন্তরায়ের মধ্যে রয়েছে, কারখানা স্থাপনের পর্যাপ্ত জমির অভাব, বিদ্যুৎ ও গ্যাস প্রাপ্তিতে সমস্যা, অনুন্নত অবকাঠামো, চাহিদা ও সময়মতো ঋণ না পাওয়া, কাঁচামালের সমস্যা, দক্ষ জনশক্তির অভাব, পণ্য বিপণনে সমস্যা, যথেষ্ট জ্ঞান ও অভিজ্ঞতাসম্পন্ন আগ্রহী উদ্যোক্তার অভাব, মুক্তবাজার অর্থনীতি, বাজারে অসম প্রতিযোগিতা, বিভিন্ন সংস্থা থেকে ছাড়পত্র গ্রহণ, বিভিন্ন ধরনের ট্যাক্সেশন সমস্যা, পলিসিগত সমস্যা, ব্যাংকঋণের উচ্চ সুদের হার এবং গ্যাসের চাপের সমস্যা। তবে এসব সমস্যা সমাধানে সরকার উদ্যোগ নিয়েছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত ৯২ জনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা : গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম সংসদে বলেছেন, অনিয়ম-দুর্নীতির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত জিরো টলারেন্স বাস্তবায়নে তার মন্ত্রণালয় কাজ করছে। দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে এক বছরে ৯২ জনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছি। রাজউকসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের আওতাধীন এলাকায় ভবন নির্মাণ অনুমোদনের জন্য আগে ১৬টি সংস্থার অনাপত্তি গ্রহণ অর্থাৎ ১৬টি ধাপ অতিক্রম করতে হতো। তবে এখন সেবা সহজীকরণের জন্য ১২টি ধাপ বাদ দিয়ে মাত্র চারটি ধাপে নামিয়ে আনা হয়েছে। এতে  সেবাগ্রহীতাদের ভোগান্তি, ব্যয় ও সময় সাশ্রয় হচ্ছে।

ভোটারদের কেন্দ্রে আনা যাচ্ছে না: সরকার ও বিগত নির্বাচনে নির্বাচন কমিশনের সমালোচনা করে বিএনপির সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা বলেছেন, এখন আজান দিয়েও ভোটারদের কেন্দ্রে আনা যাচ্ছে না।  অথচ ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচন সম্পর্কে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আমি ধারণা করছি এই নির্বাচন সুষ্ঠু হবে। ভোট সুষ্ঠু করার দায়িত্ব যখন তিনি নিচ্ছেন তার অর্থ কি এতদিন দলীয় ক্যাডার ও প্রশাসন সুষ্ঠু নির্বাচনের অন্তরায় ছিল? সংসদে ৭১ বিধিতে আনা জরুরি জনগুরুত্বসম্পন্ন বিষয়ে মনোযোগ আকর্ষণ? নোটিসের ওপর বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

ভোটার তালিকা হালনাগাদ করার সময়সীমা বাড়িয়ে সংসদে বিল : ভোটার তালিকা হালনাগাদ করার সময়সীমা ৩০ দিন থেকে বাড়িয়ে ৬০ দিন করার বিধান রেখে ‘ভোটার তালিকা সংশোধন আইন ২০২০’ বিল ও ‘বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশন আইন ২০২০’ বিল সংসদে উত্থাপিত হয়েছে। সংসদের অধিবেশনে গতকাল ভোটার তালিকা সংশোধন আইন ২০২০ বিলটি উত্থাপন করেন আইন বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক।

এর আগে রোড ট্রান্সপোর্ট করপোরেশন অর্ডিন্যান্স ১৯৬১ রহিত করে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশন আইন ২০২০ বিলটি উপস্থাপন করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। পরে বিল দুটি অধিকতর পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে সংসদে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট স্থায়ী কমিটিতে প্রেরণ করা হয়।

‘ভোটার তালিকা সংশোধন আইন ২০২০’ বিলে ২০০৯ সালে প্রণীত ভোটার তালিকা আইনের ১১ ধারার ১ উপধারা সংশোধনের প্রস্তাব করা হয়েছে। এতে ‘জাতীয় ভোটার দিবসে’র সঙ্গে মিল রেখে কম্পিউটার ডাটাবেজে সংরক্ষিত বিদ্যমান ভোটার তালিকা হালনাগাদ করার সময়সীমা প্রতি বছর ২ জানুয়ারি হতে ৩১ জানুয়ারির পরিবর্তে ‘২ জানুয়ারি হতে ২ মার্চ’ প্রতিস্থাপন করার প্রস্তাব করা হয়েছে। বিলটি আইনে পরিণত হলে ভোটার তালিকা হালনাগাদ করার সময়সীমা ৩০ দিন থেকে বৃদ্ধি পেয়ে ৬০ দিন হবে।

‘বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশন আইন ২০২০’ : ১৯৬১ সালে প্রণীত ৩৫টি ধারা সংবলিত ‘রোড ট্রান্সপোর্ট করপোরেশন অর্ডিন্যান্স’ স্থলে আইনটি যুগোপযোগী করতে ২৯ ধারা সমন্বয়ে ‘বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশন আইন ২০১৯’ প্রণয়ন করা হয়। গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে আইনটি মন্ত্রিসভায় পাস হয়। বিলে ‘বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশন’-এর জন্য এক হাজার কোটি টাকা মূলধনের প্রস্তাব করা হয়েছে। এই মূলধন একশ কোটি সাধারণ শেয়ারে বিভক্ত হবে। ৫১ শতাংশ শেয়ার সরকারের মালিকানায় থাকবে। অবশিষ্ট ৪৯ শতাংশ শেয়ার জনগণের কাছে বিক্রির বিধান রাখা হয়েছে। এ ছাড়া বিলে ২৩ সদস্যবিশিষ্ট ‘বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশন পরিচালনা পরিষদ গঠনের বিধান রাখা হয়েছে। এতে স্থানীয় সরকার, মন্ত্রিপরিষদ, অর্থ, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক এবং জননিরাপত্তা বিভাগ, নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়, ডিটিসিএ, সড়ক ও জনপথ অধিদফতর, শেয়ার হোল্ডারদের প্রতিনিধি এবং প্রশাসনিক বিভাগের প্রতিনিধি থাকবেন।


আপনার মন্তব্য