শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ৩০ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৯ মার্চ, ২০২০ ২৩:৩০

নগরে কড়াকড়ি গ্রামে উৎসব

রেজা মুজাম্মেল, চট্টগ্রাম

নগরে কড়াকড়ি গ্রামে উৎসব

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সরকার কঠোর নিয়ন্ত্রণ করছে জীবনাচার। চট্টগ্রাম মহানগরে জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, সেনাবাহিনী ও পুলিশের টহল টিম কঠোর নজরদারিতে রাখছে। কিন্তু উপজেলা পর্যায়ের তৃণমূলের মানুষেরা সরকারি এ নির্দেশনা গুরুত্ব দিচ্ছে না। অনেকেই ঈদের ছুটির আমেজে দিন কাটাচ্ছেন। উপজেলা প্রশাসন অভিযান পরিচালনা করলেও সাধারণ মানুষের অবাধ চলাফেরা থামছে না। কাঁচাবাজার বন্ধ রাখতে বললেও তা মানা হচ্ছে না।  জানা যায়, চট্টগ্রাম নগরে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন সরেজমিন গিয়ে হোম কোয়ারেন্টাইন মানছে কিনা, সরকারি খাবার ঠিকমতো পৌঁছাচ্ছে কিনা তদারকি করছেন। মাঠে আছেন অন্তত ১০ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সেনা টহল। ফলে কঠোর নজরদারিতে আছে নগরবাসী। উপজেলায় একজন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও সহকারী কমিশনার (ভূমি), সেনা টহল এবং থানার পুলিশ আছেন। কিন্তু উপজেলার অনেক গ্রাম প্রশাসনের নজরদারির বাইরে থেকে যায়। প্রশাসনের অভিযান দল গেলে কিছু সময় ঠিক থাকলেও পরে সবকিছু আগের মতো হয়ে যায়। ফলে ক্রেতা-বিক্রেতায় সরব হয়ে উঠেছে উপজেলার গ্রামীণ হাটবাজারগুলো। হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ রুহুল আমীন বলেন, ‘কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত ও বাজার মনিটরিং করতে নিয়মিতই অভিযান চলছে। গতকালও প্রতিকেজি ৮০ টাকার ব্লিচিং পাউডার ১৬০ টাকায় বিক্রি করার বিষয়টি হাতেনাতে ধরা হয়। এভাবে হোম কোয়ারেন্টাইনের জন্য একটি ফরম করেছি। প্রবাসীদের বাধ্যতামূলক ফরমটি পূরণ করানো হচ্ছে। পটিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফারহানা জাহান উপমা বলেন, ‘গতকাল দুপুরে শান্তিরহাট বাজারে গিয়ে সাপ্তাহিক বাজারসহ সব ধরনের বাজার বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত একাধিক বাজার ও এলাকায় অভিযান করা হয়েছে। সবাইকে সতর্ক ও সচেতন থাকতে বলা হচ্ছে।’

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, পটিয়া উপজেলার শান্তিরহাট, বাদামতল, কালারপুল, পাঁচুরিয়া, সফর আলী মুন্সিরহাট, কাশিয়াইশ নয়াহাট, মুরালীঘাট, বুধপুরা বাজার, ফকিরা মসজিদ, ধলঘাট, কেলিশহর, হাইদগাঁও, কচুয়াই, শোভনদন্ডি, কামদর আলী ফকিরহাট, সুচক্রদন্ডি, মোজাফফরাবাদে চলছে কেনাকাটা। বোয়ালখালীর গোমদন্ডি, ম্যালেটরির পুল, শাকপুরা, চৌমুহনী, ফুলতল, আনোয়ারার সদর এলাকা, চৌমুহনী বাজার, সেন্টার মোড়, বাঁশখালীর গন্ডামারা, বৈলছড়ি, পুঁইছড়ি, কালিপুর, হাটহাজারীর কাটিরহাট, এনায়েত বাজার, মনিয়াপুকুর পাড়, ফটিকছড়ির বিবিরহাট, নাজিরহাট, ঝংকার মোড়সহ বিভিন্ন উপজেলার বাজারগুলোতে চলছে বিকিকিনি। এসব বাজারে সরব উপস্থিতি দেখে বোঝার উপায় নেই যে, দেশে অঘোষিত লকডাউন চলছে। এ ছাড়া বাজারগুলোতে তিন ফুট দূরত্বে থাকার বিষয়টিও মানা হচ্ছে না।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর