বুধবার, ২৫ মে, ২০২২ ০০:০০ টা

প্লাস্টিকের ড্রামে পা কাটা ঝলসানো লাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীতে এক ব্যক্তিকে হত্যার পর দেহ থেকে এক পা বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। পরে অ্যাসিডে ঝলসে দেওয়া হয়েছে পুরো দেহ। গতকাল সকালে যাত্রাবাড়ীর মৃধাবাড়ী এলাকায় প্লাস্টিক ড্রামের ভিতর থেকে অজ্ঞাত ওই ব্যক্তির (৩৫) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঘাতক শনাক্ত করতে ও নিহতের পরিচয় জানতে ঘটনাস্থলের আশপাশের সিসি ক্যামেরা ফুটেজ পর্যালোচনা করছে পুলিশ। এ ছাড়া থানায় নিখোঁজ-সংক্রান্ত জিডির সূত্রেও নিহতের পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। এ বিষয়ে ডিএমপির ডেমরা জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) মো. রবিউল ইসলাম বলেন, জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এর মাধ্যমে খবর পেয়ে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

অ্যাসিডে পুরো শরীর ঝলসে দেওয়ায় ফিঙ্গার নেওয়া সম্ভব হয়নি। চেহারাও বিকৃত হয়ে গেছে। ফলে পরিচয় শনাক্ত করতে বেগ পেতে হচ্ছে। তবে গত কয়েক দিনে কোনো থানায় নিখোঁজ জিডি হয়েছে কি না সেটি বের করার চেষ্টা করা হচ্ছে। একই সঙ্গে মৃধাবাড়ী এলাকার সিসি ক্যামেরা ফুটেজ সংগ্রহ করে পর্যালোচনা করে দেখা হচ্ছে, কে বা কারা ড্রামটি ফেলে গেছে।

পুলিশ জানায়, কেমিক্যাল কিংবা দাহ্য পদার্থ ঢেলে ড্রামের মুখ আটকিয়ে রাখায় লাশটি পচে গেছে। তিন/চার দিন আগে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। যাত্রাবাড়ী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আয়ান মাহমুদ দীপ জানান, নিহতের মাথা নিচের দিকে ও পা ওপরের দিকে ড্রামে ভরা ছিল। হাঁটু থেকে মাথা পর্যন্ত কেমিক্যাল দিয়ে ঝলসানো ছিল। তার পা শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন ছিল। এক পা অর্ধেক কাটা, আরেক পায়ের পাতা কাটা অবস্থায় পাওয়া গেছে। ড্রাম থেকে একটি চাদর ও এক টুকরা কাঁথা উদ্ধার করা হয়েছে।

এদিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে সিআইডির ফরেনসিক টিম আলামত সংগ্রহ করেছেন। সিআইডির ফরেনসিক টিম সূত্র জানায়, ঘটনাস্থল থেকে তারা বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করেছেন। কেমিক্যাল দিয়ে পুরো শরীর ঝলসে দেওয়ায় পরিচয় শনাক্ত করা কষ্টকর হয়ে দাঁড়িয়েছে। ড্রামে থাকা কেমিক্যালের অংশ সংগ্রহ করা হয়েছে। এটি কী ধরনের কেমিক্যাল, তাও জানার চেষ্টা চলছে।

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর