২৪ জানুয়ারি, ২০২২ ২১:০৭

সবারই কি ওমিক্রন হবে, যা বললেন বিশেষজ্ঞরা

অনলাইন ডেস্ক

সবারই কি ওমিক্রন হবে, যা বললেন বিশেষজ্ঞরা

প্রতীকী ছবি

একদিন-দুদিন হাল্কা জ্ব, কিংবা পেটের গোলমাল, কিংবা একটু সর্দি-কাশি। এই মৌসুমে অনেকেরই এমন হয়েছে। সেগুলোকে তেমন পাত্তা দেননি কেউই। কারণ, দু-তিন দিনের মাথাতেই সেগুরো কমে গেছে। কিন্তু সাধারণ এসব ছোটখাটো শরীর খারাপ আর ওমিক্রনের উপসর্গ প্রায় এক। তাই অনেকেরই মত, এই মৌসুমে অনেকেরই ওমিক্রন সংক্রমণ হয়ে গেছে। তারা সেটি বুঝতেও পারেননি। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে কি সবারই ওমিক্রন সংক্রমণ হবে? কিংবা ইতোমধ্যেই হয়ে গেছে? বর্তমানে এই প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বিশেষজ্ঞ মারিয়া ভান কেরখোভে।

ওমিক্রন সবার হবে কি না— এই প্রশ্নের জবাবে মারিয়া বলেন, ‘ওমিক্রনের ছড়িয়ে পড়ার হার করোনার অন্য রূপগুলোর তুলনায় অনেক বেশি। সেই কারণেই এটি বাকি রূপদের পেছনে ফেলে দিয়ে দ্রুত হারে ছড়াচ্ছে। কিন্তু তার মানে এই নয় যে, সবারই ওমিক্রন হবে।’

সবার ওমিক্রন নাও হতে পারে। এমনই মনে করছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। কাদের ওমিক্রন হওয়ার আশঙ্কা বেশি, তা নিয়েও কিছু দিন আগেই আলোকপাত করেছে বেশ কয়েকটি সমীক্ষা। বলা হয়েছে, বিশেষ বিশেষ জিনের মানুষের ওমিক্রন বা কোভিড হওয়ার আশঙ্কা বেশি। সবার এই সংক্রমণ নাও হতে পারে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও মনে করছে না, এই সংক্রমণ সবার মধ্যে ছড়াবে। কিন্তু একথা মারিয়াও বলেন, সবার মধ্যে এই সংক্রমণটি মারাত্মক আকার নেয়নি। ‘টিকা নেওয়ার ফলে অনেকের শরীরেই ওমিক্রন মারাত্মক আকার ধারণ করতে পারেনি। তবে এ কথা মনে রাখবে হবে, কোনো উপসর্গ ছাড়াও যাদের এই সমস্যা হয়েছে, তাদের শরীরেও জীবাণুটির সব রকমের বৈশিষ্ট্য রয়েছে। তাদের সমস্যা না হলেও, তাদের থেকে অন্যদের মধ্যে এই জীবাণু ছড়াতে পারে। তাতে বহু মানুষের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে ভবিষ্যতেও।’

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ

 

 

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর