শিরোনাম
প্রকাশ : ২৮ জানুয়ারি, ২০২১ ১৬:৪৫
প্রিন্ট করুন printer

ঘন কুয়াশা ও কনকনে শীতে বিপর্যস্ত দিনাজপুরের মানুষ

দিনাজপুর প্রতিনিধি

ঘন কুয়াশা ও কনকনে শীতে বিপর্যস্ত দিনাজপুরের মানুষ

দিনাজপুরে ঘন কুয়াশা ও কনকনে শীতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে দুস্থ খেটে খাওয়া ও ছিন্নমূল মানুষ। কয়েকদিন ধরে কুয়াশার সাথে হিমেল বাতাসে স্থবির হয়েছে জনজীবন।

গত কয়েকদিন ঘন কুয়াশা আর হিমেল বাতাসে সূর্যের আলো নিস্তেজ হওয়ায় প্রচণ্ড শীত অনুভূত হচ্ছে। বুধবার দিনভর সূর্যের মুখ দেখা যায়নি। সকালেও হেড লাইট জ্বালিয়ে যানবাহন চলাচল করতে দেখা গেছে। খেটে খাওয়া ও ছিন্নমূল মানুষের কনকনে ঠান্ডায় জবুথবু অবস্থা।

এদিকে, শীত ও শিশির কারণে বীজতলা নষ্টের হাত থেকে রক্ষা করতে বীজতলার উপরে পলিথিন দিয়ে বাঁচানোর চেষ্ঠা করছে কৃষকরা। ঘন কুয়াশা অব্যাহত থাকলে আলুসহ শীতকালীন সবজি ও বীজতলা মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। অনেকে খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা করছেন। এছাড়া অনেক এলাকায় শীতে শিশু ও বৃদ্ধরা ঠান্ডাজনিত নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন।

দিনাজপুর আবহাওয়া অফিসের কর্মকর্তা তোফাজ্জুর রহমান জানান, বৃহস্পতিবার দিনাজপুরে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৮ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল। আরও কয়েকদিন তাপমাত্রা ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে অবস্থান করবে।

তবে আগামী ৩-৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ঘন কুয়াশা আর হিমেল হাওয়া বিরাজ করবে। তাই শীতের তীব্রতা থাকবে। এরপরে তাপমাত্রা বাড়বে বলে জানান তিনি।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর