শিরোনাম
প্রকাশ : ১২ মে, ২০২১ ২২:০৬
প্রিন্ট করুন printer

ট্রাকে ওঠে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে তিন যুবক, খোয়ালেন সর্বস্ব

অনলাইন ডেস্ক

ট্রাকে ওঠে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে তিন যুবক, খোয়ালেন সর্বস্ব
সংগৃহীত ছবি
Google News

মিনি ট্রাকে করে ঈদের ছুটিতে বাড়ি ফেরার পথে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়লেন তিন যুবক। গাজীপুরের চন্দ্রা থেকে রওয়ানা দেয়া ওই তিন যুবককে বগুড়ার শেরপুরে মহাসড়কে ফেলে চলে যান ট্রাকচালক ও তার সহকারী।

বুধবার ভোরে ৪টার দিকে উপজেলার সনকা এলাকা থেকে তাদের উদ্ধার করে পুলিশ। পরে তাদের চিকিৎসার জন্য শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। দুর্বৃত্তরা নেশাজাতীয় দ্রব্য তাদের নাকে ধরে অচেতন করেছিল। তারা তিনজনই এখন আশঙ্কামুক্ত।

অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়া দু'জন হলেন, নওগাঁ জেলার মান্দা থানার ভদ্রসেনা গ্রামের আবদুল জলিল (২৮) ও জয়পুরহাট জেলার ক্ষেতলাল থানার কল্যাণ সরকার (২৬)। অপরজনের (৪২) পরিচয় জানা যায়নি।

জ্ঞান ফিরে পাওয়ার পর আবদুল জলিল বলেন, তিনি ঢাকার একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করেন। তার কাছে ছিল ৫৭ হাজার টাকা এবং ২০ হাজার টাকা মূল্যের একটি মুঠোফোন। মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে চন্দ্রা থেকে একটি ট্রাকে ওঠেন। ট্রাকের ভেতরে যে অজ্ঞান পার্টির লোকজন ছিল, তা তিনি বুঝতে পারেননি।

পোশাক কারখানায় চাকরি করা কল্যাণ সরকার জানান, ট্রাকে করে বাড়ি ফিরছিলেন। তার কাছে ছিল সাড়ে ১৭ হাজার টাকা। তিনি যে ট্রাকে এসেছেন, তাতে ছিল ১২ জন যাত্রী। জ্ঞান ফিরে দেখেন, তার সবকিছুই হারিয়েছেন।

এ বিষয়ে শেরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ বলেন, বুধবার ভোরে মহাসড়কের রাজাপুর এলাকা থেকে তাদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। এই অজ্ঞান পার্টির সঙ্গে কারা জড়িত, তাদের অনুসন্ধানে নেমেছে পুলিশ।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন

এই বিভাগের আরও খবর