শিরোনাম
প্রকাশ : ২৪ জুন, ২০২১ ২০:৫৭
প্রিন্ট করুন printer

গাজীপুরে ঋণের প্রলোভনে অর্থ আত্মসাৎ; গ্রেফতার ২

গাজীপুর প্রতিনিধি

গাজীপুরে ঋণের প্রলোভনে অর্থ আত্মসাৎ; গ্রেফতার ২
Google News

গাজীপুরে ঋণ দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে সাধারণ মানুষের কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে গা ঢাকা দিয়েছে একটি ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সমিতির কর্মকর্তারা। এ ঘটনায় দুই প্রতারককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। বৃহষ্পতিবার বিকেলে গাজীপুর পিবিআইর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাকছুদের রহমান এ তথ্য জানিয়েছেন। 

গ্রেফতারকৃতরা হলো পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া থানার নথমুলা এলাকার মৃত ইউনুস হাওলাদারের ছেলে মিজানুর রহমান (৩৭) এবং একই জেলার ভান্ডারিয়া থানার ধাওয়া এলাকার মো. কাঞ্চন হাওলাদারের ছেলে হাফিজুর রহমান (৩২)। তারা গাজীপুরের গাছা থানা এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকে। 

পিবিআইর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাকছুদের রহমান জানান, গত ২০১৯ সালে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের গাছা থানাধীন কলমেশ্বরের আইইউটি গেইট এলাকার হাসেম মার্কেটের ২য় তলায় “বোর্ড বাজার প্রতিভা ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সমবায় সমিতি লিঃ” নামের একটি অফিস ভাড়া নেয় শাহীন আলম, মিজানুর রহমান ও হাফিজুর রহমানসহ কয়েক ব্যক্তি। তারা এ সমিতির মাধ্যমে ঋণ প্রদানের লোভ দেখিয়ে ৬শ থেকে সাড়ে ৬শ জনকে সদস্য ভুক্তি করেন। এসব সদস্যদের কাছ থেকে সঞ্চয়ের নামে প্রায় কোটি টাকা হাতিয়ে নেয় তারা।

একপর্যায়ে তারা সদস্যদের টাকা আত্মসাৎ করে অফিসে তালা ঝুলিয়ে গা ঢাকা দেয়। গত ১৭ অক্টোবর এক সদস্য সমিতির অফিসে গিয়ে তালাবদ্ধ দেখতে পান। পরবর্তীতে বিভিন্নস্থানে খোঁজাখুঁজি করে জমা দেওয়া টাকা ও কর্মকর্তাদের না পেয়ে জিএমপির গাছা থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগী এক সদস্য। গাছা থানা পুলিশ মামলাটির তদন্ত শুরু করে। পরবর্তীতে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স এর নির্দেশে এ মামলার তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয় গাজীপুরের পিবিআইকে। বুধবার রাতে মামলার আসামী মিজান ও হাফিজুরকে গ্রেফতার করেন তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআই এর উপ-পুলিশ পরিদর্শক মো. আরিফুল ইসলাম। তারা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেয় গ্রেফতারকৃত প্রতারকরা। 

তিনি আরো জানান, গ্রেফতারকৃত মিজানুর রহমান ও হাফিজুর রহমান প্রথমে গার্মেন্টসে চাকুরি করত। তাদের সঙ্গে পরিচয় হয় মামলার অপর আসামী শাহিন আলমের (৩৫) সঙ্গে। শাহীন প্রথমে নিউ লাইফ মাল্টি প্রোডাক্টস্ লি. এর ব্যবসা করত। পরিচয়ের সূত্রধরে এ ব্যবসায় যুক্ত হয় আসামী মিজান ও হাফিজুর।

এ তিনজনসহ অপর ৫/৬ জন মিলে প্রতিষ্ঠা করে “বোর্ড বাজার প্রতিভা ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সমবায় সমিতি লিঃ”। তারা ঋণ ও সুদ দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে সমিতিতে ভর্তি করিয়ে সাধারণ মানুষের নিকট থেকে সঞ্চয় সংগ্রহ করে। সুদসহ আসল পরিশোধ করার অঙ্গীকার করলেও পরবর্তীতে তারা কোনটি পরিশোধ না করে সম্পূর্ণ টাকা আত্মসাৎ করে পালিয়ে যাওয়ার কথা স্বীকার করেছে গ্রেফতারকৃতরা। 

বিডি প্রতিদিন/আল আমীন

এই বিভাগের আরও খবর