২০ জুন, ২০২৪ ১৬:০১

বন্ধু ও নিজের গোপনাঙ্গ কেটে ফেলা সেই যুবকের মৃত্যু

গাইবান্ধা প্রতিনিধি

বন্ধু ও নিজের গোপনাঙ্গ কেটে ফেলা সেই যুবকের মৃত্যু

গাইবান্ধার সাঘাটায় খালাতো বোনের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কের কারণে বন্ধুর গোপনাঙ্গ কেটে নিজেরটাও কেটে ফেলেছেন বেলাল হোসেন (২১) নামে এক যুবক। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা গেছেন।

বুধবার সন্ধ্যায় বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি মারা যান। তার বন্ধু একই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

নিহত বেলাল হোসেন সাঘাটা উপজেলার কামালেরপাড়া ইউনিয়নের সুজালপুর গ্রামের মফিজুল হক মফির ছেলে। তার চিকিৎসাধীন বন্ধু সিরাজুল ইসলামের (২০) বাড়ি একই উপজেলার পশ্চিম পবনতাইড় গ্রামে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বেলাল হোসেনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন সাঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মমতাজুল হক।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, বেলালের খালাতো বোনের সঙ্গে সিরাজুলের সম্পর্ক ছিল। বিষয়টি বেলাল জানতে পেরে ক্ষুব্ধ হন। গত মঙ্গলবার দুপুরে সিরাজুলকে ঈদ উপলক্ষে দাওয়াত দিয়ে বাড়িতে ডেকে আনেন বেলাল। এরপর ঘরে নিয়ে সিরাজুলের গোপনাঙ্গ ব্লেড দিয়ে কেটে দেন। একপর্যায়ে বেলাল বাড়ি থেকে পালিয়ে যান। পরে ওইদিন বিকেলে কামালেরপাড়া ইউনিয়নের মাটেলের বিলে গিয়ে নিজের গলা, পেট ও গোপনাঙ্গ কাটেন বেলাল।

পরে রক্তাক্ত অবস্থায় বেলাল ও সিরাজুলকে উদ্ধার করে প্রথমে সাঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান স্বজনরা। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল রাতে বেলাল মারা গেছেন।

এ ব্যাপারে সাঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মমতাজুল হক বলেন, নিহত বেলালের মরহেদ বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রয়েছে। সেখানে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করে মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। এ ঘটনায় আহত সিরাজুলের বাবা তোতা মিয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন। ঘটনাটি পুলিশ গুরুত্ব সহকারে খতিয়ে দেখছে।

বিডি প্রতিদিন/এমআই

সর্বশেষ খবর