শিরোনাম
প্রকাশ : ২৪ এপ্রিল, ২০১৯ ০১:৪২
প্রিন্ট করুন printer

জীবনে আসছে বিশেষ কিছু, ইঙ্গিত স্বস্তিকার

অনলাইন ডেস্ক

জীবনে আসছে বিশেষ কিছু, ইঙ্গিত স্বস্তিকার
ফাইল ছবি

হাতে শাঁখা-পলা, সিঁথি থেকে গড়িয়ে পরা সিঁদুরে ভর্তি কপাল, গায়ে গরদের শাড়ি, নাকে নথ। গত সোমবার সোশ্যাল মিডিয়ায় এমনই বিশেষ একটি ছবি পোস্ট করেছেন টালিউড অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখার্জি। সেই ছবির ক্যাপশানে লিখেছেন, 'বিশেষ কিছু আসছে'। তবে এই বিশেষ কিছু কী তা অবশ্য সময়ই বলবে...!

তবে সেই ছবি দেখে মনে হচ্ছে কোনো কিছুর শ্যুটিংয়ের সময়ই এই ছবি তুলেছেন অভিনেত্রী। তবে ঠিক কীসের শ্যুটিংয়ের জন্য স্বস্তিকা এইরকম সেজেছেন তা অবশ্য স্পষ্ট নয়। তবে মাঝে মধ্যেই বিভিন্ন ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন অভিনেত্রী। 

প্রসঙ্গত, স্বস্তিকাকে শেষবার দেখা গেছে সুদীপ্ত রায়ের 'কিয়া অ্যান্ড কসমস' ছবিতে অভিনয় করতে দেখা গেছে। তার আগে সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের 'শাহজাহান রিজেন্সি'তে অভিনয় করতেও দেখা গেছে এই অভিনেত্রীকে। 


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ তাফসীর


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ১১:১৯
প্রিন্ট করুন printer

প্রজাতন্ত্র দিবসে ভুল টুইটে সমালোচনার মুখে শিল্পা শেঠি

অনলাইন ডেস্ক

প্রজাতন্ত্র দিবসে ভুল টুইটে সমালোচনার মুখে শিল্পা শেঠি

ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসে সোশ্যাল মিডিয়ায় শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে ভুল করে বসলেন বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেঠি। মঙ্গলবার শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে ভুল করে স্বাধীনতা দিবসের বার্তা দিয়ে বসেন এই অভিনেত্রী।

তিনি হিন্দিতে টুইট করতে গিয়ে প্রথম লাইনেই লেখেন, ‘স্বাধীনতা দিবসের অনেক অনেক শুভেচ্ছা’। এর পরের লাইনে আবার ইংরেজিতে ‘রিপালবিক ডে’ই লিখেছিলেন শিল্পা।

ভুল বুঝতেও দেরি হয়নি, দ্রুতই পোস্টটি শুধরে ফেলেন। কিন্তু ততক্ষণে স্ক্রিনশট ভাইরাল হয়ে যায়। নতুন টুইটেই পুরোনো পোস্টের স্ক্রিনশট শেয়ার করে কেউ কেউ তার শিক্ষা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। 

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:২০
আপডেট : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:৫১
প্রিন্ট করুন printer

সমালোচনার মুখে ক্ষমা চাইলেন প্রসেনজিৎ

অনলাইন ডেস্ক

সমালোচনার মুখে ক্ষমা চাইলেন প্রসেনজিৎ
ফাইল ছবি

সোমবার (২৫ জানুয়ারি) ছিল মাইকেল মধুসুদন দত্তের জন্মদিন। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই নিয়ে কোনও উচ্ছ্বাস না থাকলেও মনে রেখেছিলেন প্রসেনজিৎ। মাইকেলের জন্মদিনে তাকে শ্রদ্ধা জানিয়ে পোস্ট করেছিলেন টলিউড সুপারস্টার। আর তাতেই ভুল হয়ে যায়। 

মাইকেল মধুসুদন দত্তের বদলে ভুল করে উপেন্দ্রকিশোর রায় চৌধুরীর ছবি পোস্ট করে ফেলেন অভিনেতা। তিনি লিখেছিলেন, বাংলা সাহিত্যের বিশেষ করে রেনেসাঁস সময়ের অন্যতম কবি নাট্যকার, প্রহসন রচয়িতা মাইকেল মধুসুদন দত্ত। যার শ্রেষ্ঠ কাজগুলির মধ্যে সনেট এবং অমিত্রাক্ষর ছন্দের প্রবর্তন আমাদের মাতৃভাষাকে করে তুলেছে আরও সমৃদ্ধ। সেই মহামানবের জন্মবার্ষিকীতে আমি আমার সশ্রদ্ধ সম্মান জানাই।

আর এরপরেই নেটিজেনদের একাংশ তীব্র সমালোচনা শুরু করে দেন। ভুল বুঝতে পেরেই ক্ষমা চেয়ে নেন প্রসেনজিৎ। তিনি লেখেন, আগের পোস্টে ভুলের জন্য ক্ষমাপ্রার্থী। সেই সঙ্গে ছবিটিও বদলে মধুসুদন দত্তের ছবি পোস্ট করেন অভিনেতা।  

যদি ক্ষমা চাওয়ার পরেও নিন্দুকেরা থামেননি। নানান কথা টেনে কটাক্ষ করতে থাকেন। কেউ লেখেন, যদি নাই চিনতেন, তাহলে লোক দেখানো শুভেচ্ছা জানানোর মানে হয় না। কেউ আবার 'বাংলার আলিয়া ভাট' বলে কটাক্ষ করেন। তবে অনেকেই আবার প্রসেনজিৎয়ের হয়ে সরব হয়েছেন। কেউ লিখেছেন, ভদ্রলোক বলেই ক্ষমা চেয়েছেন।  কারোর কথায়, 'ভুল মানুষ মাত্রই হয়'। 
‌ 

বিডী-প্রতিদিন/সিফাত আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ জানুয়ারি, ২০২১ ১৭:২০
প্রিন্ট করুন printer

ভালোবাসা দিবসে সিএনজি চালকের গল্প

অপূর্ব-সাবিলা যেভাবে ‘টিপু সুলতানা’!

অনলাইন ডেস্ক

অপূর্ব-সাবিলা যেভাবে ‘টিপু সুলতানা’!

বিশ্ব ভালোবাসা দিবসকে ঘিরে অপূর্ব-সাবিলা নূরকে জুটি করে সম্প্রতি শেষ হলো একটি বিশেষ নাটকের শুটিং। নাম ‘টিপু সুলতানা’!

লক্ষ্য করবেন, টিপু সুলতান নয়- টিপু সুলতানা। যার সঙ্গে ব্রিটিশ ভারতের বীর যোদ্ধা কিংবা শাসক টিপু সুলতানের কোনও যোগসূত্র নেই। এটি একেবারেই আলাদা গল্পের একটি বিশেষ নির্মাণ।

সিএমভি’র ব্যানারে এটির চিত্রনাট্য ও পরিচালনা করেছেন মহিদুল মহিম। যিনি সম্প্রতি বেশ আলোচনায় এসেছেন আফরান নিশো ও মেহজাবীন চৌধুরীকে নিয়ে ‘শিল্পী’ নির্মাণ করে।

‘টিপু সুলতানা’র গল্প প্রসঙ্গে মহিদুল মহিম জানান, নাটকের কেন্দ্রীয় চরিত্র টিপু একজন সিএনজি ড্রাইভার। গল্পের নায়িকা সুলতানা গ্যারেজের মহাজনের মেয়ে হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। নাম রিনা হলেও নিজেকে অতি সুন্দরী হিসেবে ভেবে নিজেকে নায়িকা কারিনা দাবি করেন!

অন্যদিকে ড্রাইভার টিপু একজন রাগী প্রকৃতির। যাত্রীদের সাথে তিনি সবসময় রেগে কথা বলেন। যার কারণে সবসময় ঝগড়াঝাঁটি লেগেই থাকে। অপরদিকে সিএনজি গ্যারেজে টাকা জমা দেওয়া নিয়ে দায়িত্বরত সুলতানার সাথে টিপুর ঝগড়া চলতেই থাকে।

নির্মাতা মহিম বলেন, ‘গল্পের একপর্যায়ে একদিন ড্রাইভার টিপু গভীর রাতে একটি প্রেগন্যান্ট নারীকে সিএনজিতে তুলতে অস্বীকার করেন। এখান থেকেই মজার গল্পটি বাঁক নেয় সিরিয়াস দিকে। আমি আসলে বরাবরই নাটকের শেষে দর্শকদের একটি সিরিয়াস বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করি। এখানেই তাই আছে।’

এতে টিপু চরিত্রে অপূর্ব আর সুলতানা চরিত্রে অভিনয় করেছেন সাবিলা নূর। 

প্রযোজক এসকে সাহেদ আলী পাপ্পু জানান, বড় বাজেটের এই ভ্যালেন্টাইন স্পেশাল নাটকটি ফেব্রুয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহে উন্মুক্ত হবে সিএমভি’র ইউটিউব চ্যানেলে।

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ জানুয়ারি, ২০২১ ১৭:০৫
আপডেট : ২৬ জানুয়ারি, ২০২১ ২০:২১
প্রিন্ট করুন printer

যে কারণে ত্বক ফর্সা করার বিজ্ঞাপন থেকে সরে দাঁড়ান প্রিয়াঙ্কা

অনলাইন ডেস্ক

যে কারণে ত্বক ফর্সা করার বিজ্ঞাপন থেকে সরে দাঁড়ান প্রিয়াঙ্কা
প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। ফাইল ছবি

ত্বক ফর্সা করার ক্রিমের বিজ্ঞাপন করাকে নিজের অন্যতম ভুল সিদ্ধান্ত বলে মনে করেন অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। ফেয়ারনেস ক্রিমের বিজ্ঞাপনে কাজ করার জন্য আফসোস করেন অভিনেত্রী। হলিউডে পা রাখার পর থেকেই মূলত অভিনেত্রী এই ধরনের বিজ্ঞাপনে কাজ করা বন্ধ করে দেন। 

প্রিয়াঙ্কা বলেন, ভারতীয় অভিনেতা-অভিনেত্রীদের কাছে এটা খুবই সাধারণ বিষয় ফেয়ারনেস ক্রিমের বিজ্ঞাপন করা। সেই সম্পর্কে তিনি তার বই ‘আনফিনিসড’এ লিখেছেন। 

অভিনেত্রী বলেন, দক্ষিণ এশিয়ায় ফর্সা হতে চাওয়াটা খুব স্বাভাবিক বিষয়; যেখানে একটি বড় অঙ্কের মানুষ ফর্সা হতে চান। পাশাপাশি অভিনেত্রীদের ক্ষেত্রে মুখে দাগ থাকলেও তা অস্বস্তিকর। 

তিনি জানান, গায়ের রং কালো হওয়ার দরুন ফর্সা হওয়ার জন্য মুখে ট্যালকম পাউডার মাখতেন তিনি। 

২০১৫ সালে সাংবাদিক বরখা দত্তকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী জানান, নিজে থেকে বুঝতে পেরেই খারাপ অনুভূতির জেরে ফেয়ারনেস ক্রিমের বিজ্ঞাপন থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নেন তিনি। আরও যোগ করেন, তার অন্য তুতো ভাইবোনরা প্রত্যেকে ফর্সা ছিলেন। তবে তার গায়ের রঙ বাবার মতো শ্যামলা। তাই পাঞ্জাবি পরিবারের সকলে মজা করেই তাকে ‘কালী’ নামে ডাকত। সেই কারণে ১৩ বছর বয়স থেকে গায়ের রঙ বদলের জন্য মুখে ফেয়ারনেস ক্রিম মাখতে শুরু করেন তিনি। কিশোরী বয়সে মার্কিন মুলুকে পড়াশোনা করতে গিয়েও বর্ণবিদ্বেষের শিকার হন প্রিয়াঙ্কা। এর জেরে পালিয়ে এসেছিলেন সেই দেশ থেকে। 

৯ ফেব্রুয়ারি, মুক্তি পাচ্ছে প্রিয়াঙ্কার আত্মজীবনী ‘আনফিনিসড’। বইতে অভিনেত্রীর ছোটবেলা থেকে শুরু করে, পাঠকদের কাছে তার জীবনীর নানা মুহূর্ত তুলে ধরবেন অভিনেত্রী।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৬ জানুয়ারি, ২০২১ ১৬:১৯
প্রিন্ট করুন printer

সিনেমা ‌‘পাঞ্চ’র আরেকটি গান রেকর্ড

অনলাইন ডেস্ক

সিনেমা ‌‘পাঞ্চ’র আরেকটি গান রেকর্ড

কৌশিক শংকর দাশের পরিচালনায় নির্মাণাধীন সিনেমা ‌‘পাঞ্চ’ এর আরেকটি গান রেকর্ড হলো কিছুদিন আগে। নকীব খানের সুরে ও শহীদ মাহমুদ জংগীর কথায় রোমান্টিক এই গানে কণ্ঠ দিয়েছেন তরুণ প্রজন্মের দুই শিল্পী নন্দিতা ও রিতুরাজ। 

গানের প্রথম দুইটি লাইন - ‘তুমি কাছে এলে একমুঠো রোদ্দুর খেলে, তুমি ভালোবাসি বললে চারিদিক হয় ঝলমলে’। সিনেমায় এই গানে ঠোঁট মেলাবেন নিলয় আলমগীর ও মেঘলা মুক্তা। 

কিছুদিন আগে নকীব খানের সুরে এই সিনেমার আরেকটি গান রেকর্ড হয়েছিল সামিনা চৌধুরীর কণ্ঠে। পরিচালক আশা প্রকাশ করলেন যে, আগামী মার্চের মাঝামাঝি থেকে আবার শুটিং শুরু করতে পারবেন। 

গত বছর মার্চ মাসে ৮ দিন শুটিং করার পর করোনা মহামারির কারণে বন্ধ হয়ে যায়। জিরো আওয়ার ফিল্মসের ব্যানারে পাঞ্চ এর সংলাপ ও চিত্রনাট্য লিখেছেন কৌশিক শংকর দাশ ও মোমিনুল হক।

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর