শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ২ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২৩:২৯

বেছে বেছে মনোনয়নপত্র বাতিল

নিজস্ব প্রতিবেদক

বেছে বেছে মনোনয়নপত্র বাতিল

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াসহ দলের অন্য নেতাদের মনোনয়নপত্র বাতিলের ঘটনাকে সরকারের নিখুঁত ‘মাস্টারপ্ল্যান’র অংশ হিসেবে আখ্যা দিয়েছে বিএনপি। দলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, নির্বাচন বানচালের জন্য সরকার দেশব্যাপী ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে। নির্বাচন কমিশন শুধু প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় আর গণভবনের সহযোগী হিসেবে কাজ করছে। দেশে বিরোধী দল শূন্য নির্বাচনী মাঠ তৈরি করতেই এসব ঘৃণ্য অপকর্ম সাধন করা হচ্ছে। গতকাল দুপুর ১২টায় নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ এসব কথা বলেন। এ সময় দলের যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম, সহ-দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু, বেলাল আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। রিজভী আহমেদ বলেন, প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ কতিপয় কমিশনার সরকারের পক্ষে নিজেদের নিয়োজিত রেখেছেন। তফসিল ঘোষণার শুরু থেকেই নির্বাচনের পরিবেশ আরও অবনতিশীল হয়েছে। নৌকার পক্ষে হালে পানি না পাওয়ায় বিএনপিসহ বিরোধী দলের মনোনয়নপ্রত্যাশী ও নেতা-কর্মীদের শুধু মিথ্যা মামলা দায়ের ও গ্রেফতার করেই সরকারের সাধ মিটছে না, সারা দেশে প্রার্থীসহ বেছে বেছে বিএনপির সক্রিয় নেতা-কর্মী ও সমর্থকদের গ্রেফতার করা হচ্ছে, গুম করা হচ্ছে। বিএনপির প্রার্থী বেছে বেছে মনোনয়নপত্র বাতিল করা হচ্ছে। প্রার্থীসহ নেতা-কর্মী ও সমর্থকদের বাড়িতে বাড়িতে হামলা চালাচ্ছে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা। আর এসব কিছুর নেপথ্যে থেকে নিয়ন্ত্রণ করছে দুটি শক্তিশালী কেন্দ্র-একটি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ও অন্যটি গণভবন। নির্বাচন কমিশন হুকুম-তামিলদার মাত্র। জনগণকে ভোট থেকে দূরে রাখার জন্য তারা পরিকল্পিতভাবে ভোটের পরিবেশ বিনষ্ট করার পাঁয়তারা করছে। পুলিশসহ আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলোকে সরকারি দলের অনাচারের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলার ঘটনা থেকেই মনে হয়- তারা ভোটারদের ভীতিগ্রস্ত করতে চায়।


আপনার মন্তব্য