Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২৩:২৬

যুবকের দুই হাতের কব্জি কেটে নিল চেয়ারম্যানের লোকেরা

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

যুবকের দুই হাতের কব্জি কেটে নিল চেয়ারম্যানের লোকেরা

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে রাতের আঁধারে রুবেল হোসেন (২৮) নামের এক যুবককে তুলে নিয়ে দুই হাতের কব্জি কেটে নিয়েছে সন্ত্রাসীরা। বুধবার দিবাগত গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে। আহত রুবেলকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ৩১ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। রুবেল শিবগঞ্জ উপজেলার রানীহাটি বাজার এলাকার মৃত খোদাবক্সের ছেলে। এদিকে গতকাল সকাল থেকে অভিযান চালিয়ে পুলিশ এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে দুজনকে আটক করেছে। তারা হলেন জাহাঙ্গীর ও আলাউদ্দিন। তারা শিবগঞ্জের উজিরপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ফয়েজের লোক। চাঁপাইনবাবগঞ্জের পুলিশ সুপার টি এম মুজাহিদুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। রুবেলের চাচাতো ভাই আবদুস সালাম জানান, পদ্মা নদীর একটি ঘাটকে কেন্দ্র করে শিবগঞ্জের উজিরপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ফয়েজ ও তার লোকজনের সঙ্গে রুবেল ও তার পরিবারের বিরোধ আছে। বুধবার রাতে রুবেল দুই বন্ধুকে নিয়ে মোটরসাইকেলে করে বাড়ি আসছিলেন। এ সময় শিবগঞ্জের উজিরপুর বেড়িবাঁধের কাছে কয়েকজন তাদের পথ রোধ করেন এবং পাশেই চেয়ারম্যান ফয়েজের চেম্বারে গিয়ে দেখা করতে বলেন। রুবেল বন্ধুদের নিয়ে চেয়ারম্যানের চেম্বারে গেলে তার দুই বন্ধুকে সেখানে আটকে রাখা হয়। এ সময় রুবেলের মুখ ও চোখ গামছা দিয়ে বেঁধে পদ্মা নদীর বাঁধের নিচে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাকে নির্যাতন করে তার দুই হাতের কবজি কেটে নেন চেয়ারম্যানের লোকজন। রাত ১টার দিকে খবর পেয়ে স্বজনরা গিয়ে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে অবস্থার অবনতি হলে তাকে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আবদুস সালাম জানান, নিউ পদ্মা ফেরিঘাট নিয়ে চেয়ারম্যান ফয়েজের সঙ্গে রুবেলের বিরোধ আছে। এমপি ও তার ভাইয়ের মধ্যস্থতায় উভয় পক্ষ মিলেমিশে ঘাটটি চালাচ্ছিল। কিন্তু কিছু দিন ধরে ফয়েজ ফেরিঘাটটি পুরো নিজের নিয়ন্ত্রণে নিতে চাইছিলেন। এর জের ধরেই তার লোকজন রুবেলের দুই হাতের কবজি কেটে নিয়েছেন। রুবেলের চিকিৎসা শেষে শিবগঞ্জ থানায় এ বিষয়ে মামলা করা হবে। চাঁপাইনবাবগঞ্জের পুলিশ সুপার টি এম মুজাহিদুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশের একটি টিম মাঠে কাজ করছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত দুজনকে ইতিমধ্যে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। পুরো অভিযান শেষ হওয়ার পর এ নিয়ে গণমাধ্যমে কথা বলবেন তিনি।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৩১ নম্বর ওয়ার্ডের চিকিৎসক ডা. বাহার উল্লাহ জানান,  রুবেলের হাতের অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। তিনি এখন শঙ্কামুক্ত। তবে তার দুই হাতই কবজি পর্যন্ত কেটে ফেলা হয়েছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর