শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৮ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ জুন, ২০২১ ২৩:০২

গণতন্ত্র ও প্রাকৃতিক পরিবেশ ধ্বংস করেছে সরকার : ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক

Google News

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে গণতন্ত্র ধ্বংস করেছে। রাজনৈতিক পরিবেশ ধ্বংস করেছে। প্রকৃতি ও পরিবেশ ধ্বংস করেছে। সত্যিকার অর্থে বাংলাদেশের মানুষকে তারা চরম বিপদের মধ্যে ঠেলে দিয়েছে। গতকাল বেরাইদে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

ঢাকা উত্তর বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি মুনসী বজলুল বাসিত আনজুর সভাপতিত্বে ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আবদুল আলীম নকীর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় বন ও পরিবেশবিষয়ক সম্পাদক মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, কাজী রওনকুল ইসলাম টিপু, যুবদল নেতা এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন, জি এম শামসুল হক, তুহিরুল ইসলাম তুহিন, এ বি এম এ রাজ্জাক প্রমুখ। মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগের মন্ত্রী-এমপি ও নেতারা হাজার হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার করেছেন। গত ছয় বছরে ৬ লাখ কোটি টাকা পাচার হয়ে গেছে দেশ থেকে। আওয়ামী লীগ বাংলাদেশে দুর্নীতির মহোৎসব শুরু করেছে। মানুষের ন্যায়সঙ্গত সব অধিকার ধ্বংস করে দিয়েছে তারা। এমনকি কভিড নিয়েও তারা ব্যবসা করছে। খোঁজ নিয়ে দেখেন- সবকিছু আওয়ামী লীগের নেতারা দখল করছে। আওয়ামী লীগের এমপির পাওয়ার প্লান্ট তৈরিসহ বিভিন্ন রকমের ক্লাব তৈরি হচ্ছে তাদের আশ্রয়ে। বিএনপি মহাসচিব বলেন, বেগম খালেদা জিয়া এখন খুবই অসুস্থ। বর্তমানে তাঁর হার্ট, কিডনি, লিভারে সমস্যা তৈরি হয়েছে। রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে তাঁকে বিদেশে উন্নত চিকিৎসার সুযোগ থেকেও বঞ্চিত করা হয়েছে। প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়ে যে মামলায় খালেদা জিয়াকে সাজা দেওয়া হয়েছে- সেখানে তাঁর কোনো রকম সংশ্লিষ্টতা নেই। তারা বলছে ২ কোটি টাকা তছরুপ হয়েছে। অথচ ২ কোটি ৩৪ লাখ টাকা অ্যাকাউন্টে থেকে সেটি এখন ৮ কোটি টাকার ওপরে হয়ে ব্যাংকে জমা হয়ে পড়ে আছে।

বক্তা আবু ত্ব-হার ‘সন্ধান’ চায় বিএনপি : নিখোঁজ ধর্মীয় বক্তা আবু ত্ব-হা মোহাম্মদ আদনান এবং তার তিন সঙ্গীর ‘সন্ধান’ দাবি করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল। গতকাল গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এই চারজনের ‘নিখোঁজ’ হওয়ার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে তিনি বলেন, নিখোঁজ হওয়ার ছয় দিন অতিক্রান্ত হলেও এখন পর্যন্ত তাদের খোঁজ বা অবস্থান জানাতে পারেনি সরকার। আদনানের স্ত্রী-পরিবারসহ অন্যরা প্রধানমন্ত্রীর দফতর, থানা-পুলিশ, র‌্যাবসহ বিভিন্ন দফতরে ঘুরলেও তাদের জিডি পর্যন্ত গ্রহণ করা হয়নি। এটি খুবই দুঃখজনক, উদ্বেগ ও রহস্যজনক।

এই বিভাগের আরও খবর