Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:৪৯

ত্বকের রোগ সোরিয়াসিস

ত্বকের রোগ সোরিয়াসিস

সোরিয়াসিস একটি দীর্ঘস্থায়ী দুরারোগ্য চর্মরোগ। এ রোগ নারী-পুরুষ উভয়ক্ষেত্রেই হতে দেখা যায়। এখন পর্যন্ত এ রোগের সুনির্দিষ্ট কারণ নির্ণয় করা সম্ভব হয়নি। এক্ষেত্রে ত্বকে প্রথমে প্রদাহের সৃষ্টি হয় এবং সে স্থানে লালচে ভাব দেখা যায়। একই সঙ্গে ছোট ছোট গুঁটি যা চামড়া থেকে সামান্য উঁচুতে থাকে। ধীরে ধীরে এগুলো বড় হতে পারে। মাছের আঁইশের মতো উজ্জ্বল সাদা শুকনো চলটা দ্বারা গুঁটিগুলো আচ্ছাদিত থাকে। এ আঁইশগুলো ঘষে ঘষে তুললে আঁইশের নিচের চামড়ায় লালচে ভাব দেখা যায় এবং তা থেকে রস-কষ ঝরতে পারে। সাধারণভাবে একজন সোরিয়াসিস রোগীকে দেখলে অন্যরা ভয় পেয়ে যান এবং অনেকেরই ধারণা এটা ছোঁয়াচে। আসলে এটা কোনো ছোঁয়াচে রোগ নয়। এমনকি জীবাণুজনিত রোগও নয়। তাই তার থেকে অন্য কারও হওয়ার কোনো ঝুঁকি নেই। এটা বড় কোনো শারীরিক সমস্যার সৃষ্টিও করে না। সোরিয়াসিসের উপসর্গ ত্বকের যে কোনো স্থানেই দেখা দিতে পারে। ত্বক ছাড়া নখেও দেখা দিতে পারে। ত্বকের যেসব এলাকা সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়, তাহলো কনুই, হাঁটু, মাথার চামড়া, কোমরের নিচের মধ্যখানের স্থানে ইত্যাদি। তবে এটা শরীরের যে কোনো স্থানের যে কোনো ত্বকে হতে পারে। সাধারণত এ রোগে তেমন কোনো উল্লেখযোগ্য উপসর্গই থাকে না। তবে কোনো কোনো ক্ষেত্রে সামান্য চুলকানি ভাবও থাকতে পারে। তবে যাদের এ রোগ হয় তারা লোক সমাজে যেতে ইতস্ত করেন, যাদের কাছে যান তারাও দেখলে ছোঁয়াচে ভেবে ভয়ে দূরে থাকতে চান। কারণ চামড়া উঠতে উঠতে এমন এক ভয়ঙ্কর অবস্থার সৃষ্টি হয় যা রোগীর জন্য এক বিব্রত অবস্থার সৃষ্টি করে। আসলে কিন্তু এ রোগটি কোনো অবস্থাতেই ছোঁয়াচে নয়। প্রথমে ত্বকে প্রদাহের সৃষ্টি হয়, তারপর লালচে ভাব ধারণ করে, সেখানে ছোট ছোট গুঁটি দেখা দেয়, উপরের ত্বকে চলটার আকারে মাছের আঁইশের মতো শুকনো চামড়া দেখা দেয় যা টানলে চলটা ধরে উঠে আসে। সোরিয়াসিসের ক্ষেত্রে ত্বকের উপসর্গের বাইরে সাধারণত কোনো শারীরিক উপসর্গ থাকে না। কোনো ক্ষেত্রে বিভিন্ন ধরনের জটিলতা সৃষ্টি করতে পারে।

তাই এসব বিষয়ে আরও যত্নবান হতে হবে।

ডা. দিদারুল আহসান, চর্ম ও যৌনরোগ বিশেষজ্ঞ, আল-রাজি হাসপাতাল, ফার্মগেট, ঢাকা।


আপনার মন্তব্য