Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
প্রকাশ : ১৮ মার্চ, ২০১৯ ২২:২৫

টাকা গুণতে না পারায় বিয়ে ভেঙে দিল কনে!

অনলাইন ডেস্ক

টাকা গুণতে না পারায় বিয়ে ভেঙে দিল কনে!
প্রতীকী ছবি

বিয়ের ধরন হয়তো এখন অনেক পাল্টেছে। তবে বিয়ের আসরে বর-কনেকে আগেও পরীক্ষার মুখে পড়তে হতো, এখন ধরন পাল্টালেও পরীক্ষা একেবারে বাদ হয়ে যায়নি। এবার তাতেই ধরা খেয়ে গেলেন ভারতের বিহারের বিবাহ ইচ্ছুক এক যুবক।

গত বুধবার ভারতের বিহারের মধুবনী জেলার পন্ডোল গ্রামে বসেছিল একটি বিয়ের আসর। সেখানে ব্রহ্মতোড়া গ্রামের এক যুবকের সাথে বিয়ে হচ্ছিল মোমিনপুর গ্রামের এক যুবতীর।

কিন্তু বর বেচারা গণ্ডমূর্খ। ন্যূনতম পড়াশোনাও নেই। এমনকি গুণতে জানেন না টাকা পয়সাও। আরেকটু হলেই পার পেয়ে যাচ্ছিলেন। কারণ মালাবদলও ততক্ষণে হয়ে গেছে। হয়ে গেছে ধর্মীয় আচার পালনও। এ পর্যায়ে বরের সাথে গল্পে মেতে ওঠেন কনের বান্ধবীরা। তখনই পাত্রের শিক্ষাদীক্ষা নিয়ে তাদের মধ্যে সন্দেহ হতে থাকে। তারা বরকে বেশ কয়েকটি প্রশ্ন করলেও কোনোটিরই সঠিক জবাব দিতে পারেননি ওই পাত্র।

এর পরেই কনের বান্ধবীরা পাত্রকে একশো টাকার দশটি নোট দিয়ে গুণতে বলেন। কিন্তু তিন বার চেষ্টা করলেও তা সঠিকভাবে গুণতে ব্যর্থ হন ওই পাত্র। এমনকি নিজে কোন জেলার বাসিন্দা, তা-ও ঠিকমতো পারেননি ওই পাত্র। বিষয়টি জানাজানি হতেই পাত্রী নিজে ওই বিয়ে ভেঙে দেন। তার এই সাহসী সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানান গ্রামবাসীও।

এ অবস্থায় অবশ্য ঘটনা শেষ হয়ে যায়নি। কনের ওই মানসিকতা দেখে বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত এক ব্যক্তি তার শিক্ষিত ছেলের সাথে বিয়ের জন্য প্রস্তাব দেন কনেকে। সে প্রস্তাবে রাজি হয়ে যান পাত্রী। পরে ওই পাত্রের সাথেই বিয়ে হয় ওই যুবতীর।

বিডি প্রতিদিন/১৮ মার্চ ২০১৯/আরাফাত


আপনার মন্তব্য