শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২০:০০
আপডেট : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২০:০৪

পাকিস্তানের জবাবে দাউদ ইব্রাহিমের বিষয়ে নিরব থাকল এফএটিএফ

অনলাইন ডেস্ক

পাকিস্তানের জবাবে দাউদ ইব্রাহিমের বিষয়ে নিরব থাকল এফএটিএফ

ভারতের কাছে সবচেয়ে বড় অপরাধী দাউদ ইব্রাহিম। সন্ত্রাসবিরোধী আর্থিক সংস্থা এফএটিএফে ভারতের তোলা অভিযোগের বিষয়টি অস্বীকার করেছে ইসলামাবাদ। আর এতে কালো তালিকা এড়িয়ে ‘ধূসর তালিকা’তেই থাকল পাকিস্তান। 

সূত্রের খবর, সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়ে কালো তালিকাভুক্ত হওয়া এড়িয়েছে ইসলামাবাদ। তবে ভারত ও আমেরিকা এশিয়া-প্যাসিফিকের যৌথ বৈঠকে দাউদ ইস্যু উত্থাপন করার সময়, ইসলামাবাদের ধারাবাহিকভাবে তার মাটিতে সন্ত্রাসবাদী এবং মাফিয়া ডনের উপস্থিতি অস্বীকার করেছে, এবং দাবি করেছে যে তিনি পাকিস্তানি নাগরিক নন। 

মঙ্গলবার পাকিস্তান বিরোধী অর্থায়ন ও অর্থ পাচারের জন্য যে সংস্থাটি গঠন করা হয়েছিল, তার জবাব দাখিল করেছে দেশটি। এছাড়া দাবি করেছে যে তারা এখন এফএটিএফ দ্বারা নির্ধারিত ২টি পদক্ষেপের মধ্যে ১৪টি সফলভাবে বাস্তবায়ন করেছে এবং আরও আংশিকভাবে ১১টি বাস্তবায়ন করেছে, তবে দেশটির দাখিলের সঙ্গে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বলেছেন যে এর প্রতিবেদনে ইব্রাহিমের কথা উল্লেখ করা হয়নি, জাতিসংঘের মতে, আল কায়েদার সঙ্গে তার যোগসূত্র রয়েছে।

পাকিস্তানকে কালো তালিকাভুক্ত করার চেষ্টা চালিয়েছিল নয়াদিল্লি। এমনকী, ধূসর তালিকাও এড়ানোরও চেষ্টা করেছিল ইসলামাবাদ। তবে সেই চেষ্টা বেশি সময় টিকেনি। 

এফএটিএফ জানায়, প্যারিসের আর্থিক টাস্ক ফোর্সের দ্বারা নিষিদ্ধ হওয়ার ফলে, পাকিস্তানের অর্থনৈতিক সংস্কার ধাক্কা খাবে। এই পদক্ষেপ বিনিয়োগ এবং অন্যান্য পুঁজি আসার ক্ষেত্রে প্রভাব পড়বে। ফলে তার সঙ্গে প্রভাব পড়বে আইএমএফ-এর আর্থিক জোগানেও।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য