শিরোনাম
প্রকাশ : ২১ অক্টোবর, ২০২০ ১৩:০১

সিএএ নিয়ে পিছু হঠার কোন প্রশ্নই নেই: নাকভি

কলকাতা প্রতিনিধি:

সিএএ নিয়ে পিছু হঠার কোন প্রশ্নই নেই: নাকভি

‘সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন’ (সিএএ) নিয়ে পিছু হটার কোন ভাবনাই যে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের নেই তা আরও একবার স্পষ্ট করে দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি মন্ত্রিসভারই এক গুরুত্বপূর্ণ সদস্য। দেশটির কেন্দ্রীয় সংখ্যালঘু উন্নয়ন মন্ত্রী মুক্তার আব্বাস নাকভি বলেছেন ‘সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন’ (সিএএ) কার্যকর করা থেকে পিছিয়ে আসার কোন সম্ভাবনাই নেই। বিরোধীরা যতই এ নিয়ে আন্দোলন করুক না কেন তাও নয়।  

এই সম্পর্কিত প্রশ্নের উত্তরে মঙ্গলবার সর্বভারতীয় হিন্দি টিভি চ্যানেল ‘রিপাবলিক টিভি’কে নাকভি বলেন ‘সিএএ আইনে পরিণত হয়ে গেছে। সংসদের উভয় কক্ষেই (রাজ্যসভা ও লোকসভা) তা পাশ হয়ে গেছে। এ নিয়ে কোনও বিভ্রান্তি বা দ্বন্দ্ব নেই। কংগ্রেস, তৃণমূল কংগ্রেস বা অন্য বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি যদি পা ওপর এবং মাথা নিচু করেও আন্দোলন করে তবুও এই আইন ফিরিয়ে নেওয়ার কোন প্রশ্ন নেই।’ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর অভিমত ‘সিএএ ভারতীয় নাগরিকদের জন্য নয়। বরং বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তান থেকে নির্যাতনের শিকার হওয়া সংখ্যালঘুদের ভারতীয় নাগরিকত্ব দিতেই এই নতুন আইন আনা হয়েছে। এতে অন্যদের আপত্তি কোথায়? কেন তারা বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন?’ 

সোমবারই সংক্ষিপ্ত সফরে এসে পশ্চিমবঙ্গের শিলিগুড়িতে এক দলীয় সভায় যোগ দিয়ে বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি জয় প্রকাশ নাড্ডা পরিস্কার জানিয়ে দেন ‘করোনা সংকটের কারণে সিএএ কার্যকর করার প্রক্রিয়া থেমে আছে। এই পরিস্থিতি কেটে গেলেই আইন অনুযায়ী নাগরিকত্ব তালিকা তৈরির প্রক্রিয়া চালু করে দেওয়া হবে। এনিয়ে চিন্তার কোন কারণ নেই।’ 

নাড্ডার ওই মন্তব্যের পরই রাজ্যটির ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে তার বিরোধিতা করা হয়। ট্যুইটে নাড্ডাকে নিশানা করে তৃণমূলের লোকসভার নারী সাংসদ মহুয়া মৈত্র লেখেন ‘পশ্চিমবঙ্গে এসে জে.পি.নাড্ডা বলেছেন শিগগির সিএএ কার্যকর করা হবে। বিজেপি শুনে রাখো, নথি দেখানোর আগে আমরাই তোমাদের বাইরের দরজা দেখিয়ে দেবো।’ 

কৃষ্ণনগরের সাংসদ মহুয়া মৈত্র’এর ’এর প্রশ্নের জবাবে কেন্দ্রীয় সংখ্যালঘু মন্ত্রী নাকভি আরও বলেন ‘ওঁর (মহুয়া) কাছে কে নথি চাইছে? আমার মনে ওরা বিভ্রান্তি তৈরি করতে করতে তারা নিজেরাই বিভ্রান্ত হয়ে গেছে।’ 


বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর