শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:৩০

পাকিস্তানে ১৪ লাখ আফগান শরণার্থীর উপাত্ত যাচাই শুরু

প্রতিদিন ডেস্ক

পাকিস্তানের বিভিন্ন স্থানে প্রায় ১৪ লাখ  আফগান শরণার্থী বাস করে। এদের সম্পর্কে যেসব তথ্য-উপাত্ত পাওয়া গেছে তার সত্যাসত্য যাচাইকরণ শুরু হয়েছে। পাকিস্তান সরকার এবং জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক হাইকমিশন যৌথভাবে ১৫ এপ্রিল  এই অভিযান চালানো শুরু করে। অভিযান শুরু করার আগে সরকার ঘোষণা করে, যেসব আফগান শরণার্থীর রেজিস্ট্রেশন কার্ডের মেয়াদ ২০১৫ সালে শেষ হয়ে গেছে, যাচাই-বাছাই শেষ তাদের নতুন স্মার্ট আইডেন্টিটি কার্ড দেওয়া হবে। পাকিস্তানের আফগান শরণার্থী বিষয়ক কমিশনারেটের মুখপাত্র মুহাম্মদ উসমান বলেন, যাচাইকরণ চালানো হবে ছয় মাস। এরপর উপাত্তগুলো সুবিন্যস্ত করা হবে। তারপর ইস্যু করা হবে স্মার্ট আইডি কার্ড। তিনি জানান, রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়ায় যুক্ত হবে পাকিস্তান ও জাতিসংঘের ৬০০ কর্মকর্তা। তারা গাড়িতে করে ৩৫টি এলাকায় পর্যবেক্ষকের দায়িত্ব পালন করবেন। বার্তা সংস্থা এএনআই জানায়, মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ‘১১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে সব বিদেশি সেনা প্রত্যাহার করা হবে’- ঘোষণার পর শরণার্থী যাচাইকে অর্থবহ ব্যাপার বলে মনে করা যায়। দীর্ঘস্থায়ী যুদ্ধের অবসান ঘটলে শরণার্থীরা দ্রুত স্বদেশে ফিরে যেতে শুরু করবে। জানুয়ারি মাসে পাকিস্তান সরকার আফগান শরণার্থীদের ২ লাখ আইডি কার্ড বাতিল ঘোষণা করে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রশিদ আহমেদ বলেন, ‘আমাদের উপাত্ত বলছে, বৈধভাবে বাস করছে ১৫ লাখ আফগান শরণার্থী। অবৈধভাবে বাস করছে ৮ লাখ আফগান।’

এই বিভাগের আরও খবর