শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:৩১

মানিকগঞ্জে ধর্ষণের অভিযোগ

দুই পুলিশ প্রত্যাহার তদন্ত কমিটি

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি

মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় তরুণী ধর্ষণের অভিযোগে দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। এ বিষয়ে দুই সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটিও করা হয়েছে। জানা গেছে, এক তরুণী মানিকগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) রিফাত রহমান শামিমের কাছে লিখিত অভিযোগ করার পর তাৎক্ষণিকভাবে অভিযুক্ত দুই কর্মকর্তাকে থানা থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়। অভিযুক্তরা হলেন সাটুরিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সেকেন্দার হোসেন ও সহকারী উপ-পরিদর্শক এ এস আই মাজহারুল ইসলাম। অভিযোগে তরুণী জানান, তার এক খালা সাটুরিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সেকেন্দার হোসেনের কাছে প্রায় তিন লাখ টাকা পান। ওই টাকা আনতে ৬ ফেব্রুয়ারি বিকাল ৫টার দিকে খালার সঙ্গে তিনি সাটুরিয়া থানায় যান। সেখান থেকে সেকেন্দার দুজনকে নিয়ে সাটুরিয়া ডাক-বাংলোতে যান। ওই দুই পুলিশ কর্মকর্তা বাংলোতে তাকে এবং তার খালাকে আলাদা ঘরে আটকে রাখেন। এরপর অস্ত্রের মুখে ইয়াবা সেবনে বাধ্য করে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করা হয়। গত ৮ ফেব্রুয়ারি সকালে তাদের ডাকবাংলো থেকে বের করে দেওয়া হয়। পুলিশ সুপার রিফাত রহমান শামিম সাংবাকিদের জানান, ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়ায় অভিযুক্ত দুজনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। দুই সদস্য বিশিষ্ট  একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কর্মকর্তারা হলেন সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাফিজুর রহমান ও জেলা বিশেষ শাখার  সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার হামিদুর রহমান সিদ্দিকী। তদন্তে দোষী প্রমাণ হলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আপনার মন্তব্য