শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ৯ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৮ মার্চ, ২০১৯ ২৩:১৭

লঞ্চের ধাক্কায় নিখোঁজ ছয়, নারীর লাশ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক

Google News

ঢাকার সদরঘাটে নৌকাডুবিতে নিখোঁজ একই পরিবারের ছয়জনের মধ্যে একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তার নাম জামশেদা বেগম (২১)। বাকি পাঁচজনের খোঁজে গতকাল দ্বিতীয় দিনের মতো নদীতে তল্লাশি চালানো হয়। উদ্ধার অভিযানে অংশ নিয়েছে ফায়ার সার্ভিস, বিআইডব্লিউটিএ ও নৌ-পুলিশ।

নৌ-পুলিশের সদরঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুর রাজ্জাক জানান, দুপুরের দিকে কেরানীগঞ্জের হাসনাবাদ এলাকায় নদী থেকে এক নারীর ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে স্বজনরা ওই নারীর লাশ শনাক্ত করেন। ওই নৌকার আরোহী দেলোয়ার হোসেনের স্ত্রী ছিলেন জামশেদা। এ ঘটনায় গার্মেন্ট শ্রমিক প্রপেলারের আঘাতে দুই পা হারিয়ে পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তার পরিবারের পাঁচজন এখনো নিখোঁজ। তারা হলেন- শাহজালালের স্ত্রী সাহিদা বেগম (৩০), তাদের দুই সন্তান মাহি (৬) ও মিম (৮), শাহজালালের ভাগ্নি জামাই দেলোয়ার হোসেন (৩০) এবং দেলোয়ারের তিন মাসের মেয়ে ¯ন্ডেœহা। উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার রাতে কেরানীগঞ্জের কালীগঞ্জ থেকে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে নৌকায় সদরঘাট যাচ্ছিলেন শাহজালাল মিয়া। রাত ১০টার দিকে সদরঘাটের ১৩ নম্বর পন্টুনের কাছে সুরভি-৭ লঞ্চের ধাক্কায় তাদের নৌকাটি ডুবে যায়। ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা এরশাদ সিকদার বলেন, তাদের ডুবুরিদের পাশাপাশি বিআইডব্লিউটিএ এবং নৌ-পুলিশের সদস্যরা বৃহস্পতিবার রাত থেকে বুড়িগঙ্গায় তল্লাশি চালাচ্ছেন। কিন্তু নদীতে প্রচুর নৌযান চলাচল করায় কাজে বেগ পেতে হচ্ছে। ওই নৌকার আট আরোহীর মধ্যে কেবল মাঝি সাঁতরে তীরে উঠতে সক্ষম হন। বিআইডব্লিউটিএর যুগ্ম-পরিচালক এ কে এম আরিফ উদ্দিন জানান, ওই নৌকার যাত্রীরা লঞ্চে ওঠার চেষ্টা করছিলেন। তাদের পন্টুন দিয়ে ওঠার কথা থাকলেও লঞ্চ ছেড়ে দেওয়ায় ঝুঁকি নিয়েই লঞ্চের পেছন দিক দিয়ে ওঠার চেষ্টা করেন।

কিন্তু লঞ্চ তখন পেছন দিকে যাওয়ায় প্রপেলারের ঢেউয়ে নৌকাটি ডুবে যায়। বিআইডব্লিউটিএ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাতে নৌকাডুবির ঘটনার কারণ খতিয়ে দেখতে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। বিআইডব্লিউটিএর পরিচালক মো. শাহজাহানকে প্রধান করে গঠিত এই কমিটিকে আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।