শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২৩:৪৭

খুলনায় আসর ঘিরে অপরাধ জগৎ

খুলনার সার্কিট হাউস মাঠসংলগ্ন এলাকায় বিভিন্ন ক্লাবে রাতভর চলে জুয়ার আসর। এসব ক্লাবে সন্ত্রাসী-মাদকসেবীর আনাগোনা থাকায় জুয়ার আসর ঘিরে গড়ে উঠেছে অপরাধজগৎ। জুয়াড়িদের টানতে ‘টার্গেট   শুটিং’-এ ওয়ান টেন জুয়া, তাসের কাটিং, কাচ্চু, হাইড্রো গেম ও হাউজি জুয়া চালু করেছে ক্লাবগুলো। নগরীর বিভিন্ন অলিগলিতে জুয়ার আখড়া উৎখাত ও মাদক বিক্রেতাদের ধরতে প্রশাসনের অভিযান চললেও এই ক্লাবগুলোয় নিরাপদে প্রতি রাতেই বসে জুয়ার আসর। খুলনার বাইরে সাতক্ষীরা, যশোর, বাগেরহাট, কুষ্টিয়া থেকেও জুয়াড়িরা গাড়ি নিয়ে এসব ক্লাবে জুয়া খেলতে আসে। এদিকে হাউজি জুয়া পরিচালনায় খুলনার বিভিন্ন ক্লাব ও সামাজিক প্রতিষ্ঠানের নামের একটি তালিকা তৈরি করা হয়েছে। প্রায় ৪০টি ক্লাব ও প্রতিষ্ঠান ওই তালিকা অনুসারে জুয়ার ভাগাভাগির অর্থ পায়। হাউজি নিয়ন্ত্রণের জন্য সরকারি দলের সাবেক জনপ্রতিনিধির একজন মনোনীত ব্যক্তিকে পরিচালক করা হয়েছে। তার মাধ্যমে জুয়ার টাকা ভাগাভাগি হয়। তাদের সহযোগিতায় রয়েছে কিছু পেশাদার জুয়ার বোর্ড পরিচালনাকারী ও মাদকসংশ্লিষ্টরা। অভিযোগ রয়েছে, প্রশাসনের চোখের সামনে এসব অপকর্ম চললেও নেওয়া হয় না কোনো ব্যবস্থা। তবে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ-কেএমপি কমিশনার খন্দকার লুৎফুল কবির জানান, ‘এরই মধ্যে খুলনায় ক্যাসিনো ধরনের জুয়া আছে কিনা বা ক্লাবগুলোয় জুয়ার আসর বসে কিনা খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে। যেখানেই এ ধরনের খবর মিলবে সেখানেই অভিযান চলবে।’


আপনার মন্তব্য