শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১ মার্চ, ২০২১ ২৩:৪৮

এমপির কেন্দ্রে ডুবল নৌকা

নিজস্ব প্রতিবেদক

চলমান স্থানীয় সরকার নির্বাচনে নৌকার জয়-জয়কার হলেও কুমিল্লা-৪ আসনে এমপির নিজ কেন্দ্রে নৌকাডুবি হয়েছে। কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলা পরিষদের উপনির্বাচন ছিল গত রবিবার। উপজেলার ১১৪টি কেন্দ্রের ফলাফল বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, নৌকা সবচেয়ে কম ভোট পেয়েছে আওয়ামী লীগের এমপি রাজী মোহাম্মদ ফখরুলের নিজ গ্রাম বনকোট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে। এখানে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবুল কালাম আজাদের প্রাপ্ত ভোট মাত্র ১৬। আর ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে এ এফ এম তারেক পেয়েছেন ৯৮১ ভোট। উপজেলার গুনাইঘর উত্তর ইউনিয়নের ৭৯ নম্বর বনকোট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে মোট ভোটার ছিলেন ১৩১৯ জন। ১০০৭ জন ভোটার ভোট প্রদান করেছেন। এরমধ্যে ৬টি ভোট বাতিল করা হয়েছে। এখানে আবদুল হক খোকন আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ২ ভোট। আবদুল আউয়াল সরকার লাঙল প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২ ভোট।    

জানা গেছে, কুমিল্লা-৪ আসনে আওয়ামী লীগের রাজী মোহাম্মদ ফখরুলের বাড়ি গুনাইঘর উত্তর ইউনিয়নের বনকোট গ্রামে। এই গ্রামেই নৌকার প্রার্থী পেয়েছেন মাত্র ১৬ ভোট। মোট ১১৪টি কেন্দ্রের সবচেয়ে নিম্ন ভোট। নিজ কেন্দ্রে নৌকাডুবিতে এমপির হাত রয়েছে বলে অভিযোগ উপজেলা উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আবুল কালাম আজাদের। তিনি অভিযোগ করেন, এমপি সাহেব প্রভাব খাটিয়ে নৌকা ডোবাতে সবধরনের চেষ্টা করেছেন। কিন্তু জনগণ সব ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে নৌকাকে বিজয়ী করেছেন। কিন্তু দুঃখ উপজেলার ১১৪টি কেন্দ্রের মধ্যে সবচেয়ে কম ভোট নৌকার এমপির কেন্দ্রে, যা দুঃখজনক। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, কুমিল্লা-৪ আসনের আওয়ামী লীগের এমপি রাজী মোহাম্মদ ফখরুলের চাচা ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এ এফ এম ফখরুল ইসলাম মুন্সীর ছোট ভাই এ এফ এম তারেক এবার ধানের শীষ নিয়ে ভোট করেন। ২০১৪ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত দেবিদ্বার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে এ এফ এম তারেক দোয়াত-কলম প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে পরাজিত হন।


আপনার মন্তব্য