শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২৭ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৬ জুন, ২০২১ ২৩:৪৮

অর্ধ লাখ মানুষের মুখে হাসি ফুটল বসুন্ধরার ত্রাণ পেয়ে

রেজাউল করিম মানিক, লালমনিরহাট

অর্ধ লাখ মানুষের মুখে হাসি ফুটল বসুন্ধরার ত্রাণ পেয়ে
Google News

উত্তরের দারিদ্র্য-পীড়িত জেলা লালমনিরহাট। তিস্তা-ধরলা সানিয়াজান নদীবেষ্টিত এ জেলার মানুষ দারিদ্র্যের সঙ্গে লড়াই করেই বেঁচে থাকে। তার ওপর দীর্ঘ দেড় বছর করোনার থাবা এই দরিদ্র মানুষগুলোর জীবনকে দুর্বিষহ করে তুলেছে। খেয়ে না খেয়ে চলছে তাদের জীবন।

পরিবার-পরিজন নিয়ে অভাব-অনটনে এসব মানুষ চোখেমুখে দেখছে অন্ধকার। এ অবস্থায় গতকাল খাদ্য সহায়তা কর্মসূচির চতুর্থ দিনে বসুন্ধরার ত্রাণ হাসি ফুটিয়েছে অর্ধ লক্ষাধিক মানুষকে।

কালের কণ্ঠ শুভসংঘের আয়োজনে খাদ্য সহায়তা কর্মসূচির এই দিনে লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা ও পাটগ্রামে ১২০০ অসহায় মানুষের হাতে তুলে দেওয়া হয় খাদ্যসামগ্রী। এ নিয়ে জেলার ৫টি উপজেলার ৬ হাজার পরিবার পেয়েছে বসুন্ধরার খাদ্য সহায়তা। চার দিনব্যাপী এ কর্মসূচির কারণে হাসি ফুটেছে অর্ধ লক্ষাধিক হতদরিদ্র মানুষের মুখে। এ দিন পাটিকাপাড়া, এস এস সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, পাটগ্রামের বাউরা ও দহগ্রামে ত্রাণ বিতরণ করা হয়। 

এ বিষয়ে সিনিয়র সাংবাদিক এ কে এম মঈনুল হক বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপের এই মানবিক কাজে জেলার লাখো হতদরিদ্র মানুষকে বাঁচার স্বপ্ন দেখিয়েছে। একই কথা বলছেন খাদ্য সহায়তায় অংশ নেওয়া লালমনিরহাটের পৌর মেয়র রেজাউল করিম স্বপন, কালীগঞ্জের উপজেলা চেয়ারম্যান মাহাবুবুজ্জামান আহমেদ ও হাতীবান্ধার উপজেলা চেয়ারম্যান মশিউর রহমান মামুনসহ প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিরা।

বসুন্ধরার ত্রাণ পেয়ে গতকালও খুশি ধরে রাখতে পারেননি হাতীবান্ধার পারুলিয়ার বৃদ্ধ ওমর আলী, রাবেয়া বেওয়া, জেলহাকসহ হতদরিদ্ররা। তাদের মূলকথা, বড় অভাবের দিনে হাত বাড়িয়েছে বসুন্ধরা। এই ত্রাণ এখন অনেক উপকারে আসবে।

খাদ্যসামগ্রীর মধ্যে ছিল ১০ কেজি চাল, দুই কেজি আটা, দুই কেজি ডাল ও এক লিটার সয়াবিন তেল। ত্রাণ বিতরণ পর্বে উপস্থিত ছিলেন হাতীবান্ধা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মশিউর রহমান মামুন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সামিউল আমিন, সহকারী কমিশনার ভূমি (এসিল্যান্ড) সামিমা সুলতানা, ওসি (তদন্ত) রফিকুল ইসলাম, শুভসংঘের পরিচালক জাকারিয়া জামান, পাটিকাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মুজিবুল আলম সাদাত, আমরা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ কমান্ডের হাতীবান্ধা শাখার আহ্বায়ক রোকোনুজ্জামান সোহেল, সিনিয়র সাংবাদিক আলতাফ হোসেন, কালের কণ্ঠ শুভসংঘের হাতীবান্ধা সভাপতি ফয়জুন নেসা মনা, সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল হাসান রাকিব, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ও পাটগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যান রুহুল আমিন বাবুল প্রমুখ। তারা সবাই ভয়াবহ এই দুঃসময়ের কথা উল্লেখ করে বলেন, মানুষ যেখানে কর্মহীন, অভাব-অনটনে যেখানে দিন কাটছে অসহায় মানুষের- সে সময় বসুন্ধরা গ্রুপের এ উদ্যোগ শুধু মহৎই নয়, নজিরবিহীন। তারা এ উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেন। একই সঙ্গে তারা বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যানের কাছে বিনীত আবেদন করেন, হতদরিদ্রদের মাঝে যেন এই খাদ্য সহায়তা কার্যক্রম অব্যাহত রাখা হয়।

এই বিভাগের আরও খবর