শিরোনাম
বুধবার, ১০ জানুয়ারি, ২০২৪ ০০:০০ টা

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদে গোলাম দস্তগীর গাজী

গত ২৮ ও ২৯ ডিসেম্বর বাংলাদেশ প্রতিদিনে যথাক্রমে ‘গাজীর বাসায় গোপন বৈঠক প্রিসাইডিং অফিসারদের’ এবং ‘ইসিতে গাজীর বিরুদ্ধে শাহজাহান ভূঁইয়ার অভিযোগ’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজী। তার পক্ষে আইনজীবী মুহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন এ প্রতিবাদ পাঠান।

প্রতিবাদলিপিতে বলা হয়, প্রতিবেদনদ্বয়ে নারায়ণগঞ্জ-১ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহজাহান ভূঁইয়া কর্তৃক নির্বাচন কমিশনে দাখিলকৃত অভিযোগের সম্পূর্ণ বর্ণনা ছাপা হয়েছে। কিন্তু প্রতিবেদন প্রকাশের আগে গোলাম দস্তগীর গাজীর কোনো ধরনের ব্যাখ্যা বা বক্তব্য চাওয়া হয়নি। প্রতিবাদলিপিতে ‘প্রকৃত ঘটনা’ হিসেবে জানানো হয়, রূপগঞ্জ উপজেলা কিন্ডারগার্টেন ও শিক্ষা উন্নয়ন সমিতি ‘গোলাম দস্তগীর গাজী (বীরপ্রতীক) মেধাবৃত্তি’ নামে তিন বছর ধরে বেসরকারিভাবে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের মধ্যে মেধাবৃত্তি প্রদান করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় চলতি শিক্ষাবর্ষের মেধাবৃত্তির লিখিত পরীক্ষা গ্রহণ ও প্রকাশিত ফলাফলের ভিত্তিতে আনুষ্ঠানিকভাবে ক্রেস্ট ও সনদ বিতরণের লক্ষ্যে তারিখ নির্ধারণের জন্য ওই সমিতির নেতৃবৃন্দ ২২ ডিসেম্বর ওই মেধাবৃত্তির প্রধান পৃষ্ঠপোষক গোলাম দস্তগীর গাজীর সঙ্গে তার বাড়ির উঠানে আলোচনায় বসেন। ওই আলোচনার একটি ছবি গোপন বৈঠক হিসেবে প্রকাশ করা হয়েছে।

প্রতিবাদ-২ : গত ২ জানুয়ারি বাংলাদেশ প্রতিদিনের প্রথম পৃষ্ঠায় ‘রূপগঞ্জ এখন গাজীগঞ্জ!’ এবং শেষ পৃষ্ঠায় ‘গাজীর বিরুদ্ধে ইসিতে জাপা প্রার্থীর অভিযোগ’ শিরোনামে প্রকাশিত দুটি প্রতিবেদনের প্রতিবাদ জানিয়েছেন সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজী। তার পক্ষে আইনজীবী মুহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন এ প্রতিবাদ পাঠান। প্রতিবাদলিপিতে বলা হয়, প্রতিবেদন দুটির প্রথমটিতে গোলাম দস্তগীর গাজীর বিরুদ্ধে মনগড়া ও ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে এবং দ্বিতীয়টিতে নারায়ণগঞ্জ-১ আসনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম কর্তৃক নির্বাচন কমিশনে দাখিল করা অভিযোগের সম্পূর্ণ বর্ণনা ছাপা হয়েছে। কিন্তু উভয় প্রতিবেদনের ক্ষেত্রে এ ধরনের সংবাদ প্রকাশের আগে গোলাম দস্তগীর গাজীর কোনো ব্যাখ্যা চাওয়া হয়নি। প্রতিবাদলিপিতে দাবি করা হয়, প্রতিবেদনগুলো প্রকাশের মাধ্যমে গোলাম দস্তগীর গাজীকে জনসমক্ষে সামাজিক ও রাজনৈতিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার অপচেষ্টা করা হয়েছে।

প্রতিবেদকের বক্তব্য : প্রতিবেদনগুলোয় বাংলাদেশ প্রতিদিনের নিজস্ব কোনো বক্তব্য বা মন্তব্য ছাপা হয়নি। নির্বাচন কমিশনে গোলাম দস্তগীর গাজীর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের দেওয়া অভিযোগ প্রতিবেদনে তুলে ধরা হয়েছে। একাধিক প্রার্থী নির্বাচন কমিশনে যে অভিযোগ দাখিল করেছেন, প্রতিবেদনে শুধু ওই অভিযোগের বর্ণনাই তুলে ধরা হয়েছে। এ ছাড়া স্থানীয় এলাকার বিভিন্ন মানুষের অভিযোগের ভিত্তিতে প্রতিবেদনগুলো প্রকাশ করা হয়েছে।

 

সর্বশেষ খবর