রবিবার, ২ জুন, ২০২৪ ০০:০০ টা

হঠাৎ ঝড়ে লন্ডভন্ড

ঠাকুরগাঁওয়ে শিশুসহ তিনজনের মৃত্যু, ভেঙে পড়েছে গাছপালা

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

হঠাৎ ঝড়ে লন্ডভন্ড

ভারী বৃষ্টি ও তুমুল ঝড়ে ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের ২০টি গ্রাম লন্ডভন্ড হয়ে গেছে। এ সময় টিনের চাপা, খালের পানিতে পড়ে ও স্ট্রোক করে এক শিশুসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আফছানা কাওছার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়রা জানান, গতকাল সকালে হঠাৎ করেই ঝড় শুরু হয়। এ সময় পাড়িয়া ইউনিয়নের শালডাঙ্গা গ্রামের পইনুল ইসলামের স্ত্রী ফরিদা বেগম (৪০) টিনের নিচে পড়ে মারা যান। এ ছাড়া ঝড়ের সময় বারান্দায় বসে ছিলেন দবিরুল ইসলামের স্ত্রী জাহেদা বেগম (৫০)। মেঘের গর্জন আর ঝড়ে গাছপালা উড়তে দেখে বারান্দাতেই স্ট্রোক করেন তিনি। পরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তিনি মারা যান। অন্যদিকে লালাপুর নয়াপাড়া গ্রামে বাড়ির পাশে গর্তে পড়ে গিয়ে মারা যায় নাজমুল ইসলামের আড়াই বছরের ছেলে নাঈয়ুম। সরেজমিন গিয়ে দেখা গেছে, ঝড়ে পাড়িয়া ইউনিয়নের তিলকড়া, শালডাঙ্গা, বঙ্গভিটা, লোহাড়া, বামুনিয়াসহ ১২টি গ্রাম, বড়বাড়ী ইউনিয়নের বেলহাড়া, বেলবাড়ী, বটের হাট, হরিপুরসহ ৮টি গ্রাম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বেশির ভাগ কাঁচা বাড়ির টিনের চালা উড়ে গেছে। গাছ ভেঙে পড়েছে ঘরের ওপর। বড়বাড়ী ইউনিয়নের আধারদীঘি বাজারে পাঁচটি দোকান এবং দুটি হোটেলের ওপর গাছ ভেঙে পড়েছে। বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আফছানা কাওছার বলেন, ঝড়ে একজন টিনচাপা পড়ে মারা গেছেন। ঝড়ে পড়ে স্ট্রোক করে একজন ও পানিতে ডুবে এক শিশু  মারা গেছে।

সর্বশেষ খবর