শিরোনাম
প্রকাশ : ১৬ জানুয়ারি, ২০২১ ১১:৩২
প্রিন্ট করুন printer

শ্রীপুর পৌরসভা নির্বাচনে ভোটারদের উপস্থিতি সন্তোষজনক

গাজীপুর প্রতিনিধি

শ্রীপুর পৌরসভা নির্বাচনে ভোটারদের উপস্থিতি সন্তোষজনক

শনিবার দ্বিতীয় ধাপে গাজীপুরের শ্রীপুর পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রথম বারের মত ইভিএম-এর মাধ্যমে পৌরসভার বিভিন্ন কেন্দ্রে সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। সকাল থেকেই কেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের উপস্থিতি দেখা যাচ্ছে। বিরতিহীনভাবে চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। এই পৌরসভা নির্বাচন সবগুলোই ভোট কেন্দ্রে ইভিএমের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। 

নির্বাচনে মেয়র পদে ৪ জন, ৯টি ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর ৪৭ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১১ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। নির্বাচনে ভোটার সংখ্যা ৬৭ হাজার ৯৩৫ জন। পুরুষ ৩৩ হাজার ৮৩২ ও মহিলা ৩৪ হাজার ১০৩ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। 

মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনিত মো: আনিছুর রহমান, বিএনপি অ্যাডভোকেট কাজী খান, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত ফরহাদ আহমেদ মমতাজী, স্বতন্ত্র প্রার্থী প্রয়াত বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী মো: শহিদুল্লাহ শহিদের বড় ভাই শাহ আলম।

সকাল নয়টায় পৌরসভার পাঁচ নং ওয়ার্ডের তুলা গবেষণা কেন্দ্রে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। ২নং ওয়ার্ডের শ্রীপুর পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে বিএনপি প্রার্থী, ৮নং ওয়ার্ডের কেওয়া তমির উদ্দিন আলিম মাদ্রাসা কেন্দ্রে স্বতন্ত্র প্রার্থী ভোট প্রদান করেছেন।

জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা কাজী মো: ইস্তাফিজুল হক আকন্দ জানান, নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে পৌরসভার ২৬টি কেন্দ্রে ৯ জন ম্যাজিস্ট্রেট, ১ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটসহ ২৬ জন প্রিজাইডিং অফিসার, ১৯০টি ভোট কক্ষে ১৯০ জন সহকারি প্রিজাইডিং অফিসার, ৩৮০ জন পুলিং অফিসার নিয়োজিত রয়েছে। এছাড়া ৪২১ জন আনসার, ৪৮৬ জন পুলিশ, ৬০ জন বিজিবি, ৫০ জন র‌্যাব সহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন রয়েছে। সাধারণ কেন্দ্রে ১৬ জন আনসার ও ৬ জন পুলিশ এবং গুরুত্বপূর্ণ প্রতিটি কেন্দ্রে ১৭ জন আনসার ও ৭ জন পুলিশ সদস্য নিয়োজিত রয়েছে।

প্রসঙ্গত, এ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল গত বছরের ২৮ ডিসেম্বর। কিন্তু বিএনপির মনোনীত দলীয় মেয়র প্রার্থী শ্রীপুর পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো: শহিদুল্লাহ শহিদ ৯ ডিসেম্বর মারা যান। ওই পদে নির্বাচন স্থগিত করে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেন নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তা। ১৪ ডিসেম্বর নির্বাচনের নতুন তারিখ ঘোষণা করা হয়।

বিডি-প্রতিদিন/ সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর