শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ৪ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৪ জুন, ২০২১ ০১:২৭

সৌদিগামীদের কোয়ারেন্টাইন

হোটেল বুকিং করতে পারবে তিন শতাধিক ট্রাভেল এজেন্ট

কূটনৈতিক প্রতিবেদক

Google News

সৌদি এয়ারলাইনসের আর্থিক ও সফটওয়্যার চ্যানেলের মাধ্যমে সৌদি এয়ারের তালিকাভুক্ত তিন শর বেশি স্থানীয় ট্রাভেল এজেন্ট গতকাল থেকে সৌদি আরবের হোটেল বুকিং করতে পারছে। এতে সৌদি আরব প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিকদের বাংলাদেশ থেকে সৌদি আরবে যাওয়ার জন্য প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনের সমস্যার সমাধান হলো বলে মনে করছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়। গতকাল মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, গত ২০ মে থেকে যেসব প্রবাসী হোটেল বুকিংয়ের কারণে ফ্লাইট মিস করেছেন তাদের বিনা ফিতে পুনরায় টিকিট ইস্যু করতে সম্মত হয়েছে সৌদি এয়ারলাইনস কর্তৃপক্ষ।

 টিকিটের তারিখ পরিবর্তন তথা রি-ইস্যুর জন্য কারওয়ান বাজারস্থ সোনারগাঁও হোটেলের সৌদি এয়ারলাইন্স অফিসের পাশাপাশি ট্রাভেল এজেন্ট থেকেও করা যাবে। এ ছাড়াও এখন থেকে যারা সৌদি আরব থেকে সৌদি এয়ারলাইনস আপ-ডাউন টিকিট ক্রয় করে দেশে আসবেন তারা টিকিট রি-কনফার্ম বা তারিখ পরিবর্তনের জন্য ঢাকা, সিলেট, চট্টগ্রামসহ অন্যান্য শহরে অবস্থিত তালিকাভুক্ত ট্রাভেল এজেন্ট থেকে করতে পারবেন। এতে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে ঢাকার কারওয়ান বাজারে সৌদি এয়ারলাইনস অফিসে আসার প্রয়োজন কমে গেল। হোটেল বুকিংয়ের জন্য ট্রাভেল এজেন্টগুলো সর্বোচ্চ ২ হাজার এবং টিকিট রি-ইস্যুর জন্য সর্বোচ্চ পাঁচশত টাকা ফি নির্ধারণ করা হয়েছে।

মন্ত্রণালয় জানায়, মহামারী করোনার বিস্তার রোধকল্পে সৌদি সরকার কর্তৃক গত ১৭ মে ভ্রমণ-সংক্রান্ত বিভিন্ন নির্দেশনা জারি করে; যা ২০ মে থেকে কার্যকর হয়। সে অনুযায়ী যেসব বিদেশি কর্মী নিজ দেশে দুই ডোজ করোনার টিকা গ্রহণ করেননি বা সৌদি আরবে থাকাকালীন এক ডোজ টিকা গ্রহণ করেননি তাদের সৌদি আরবে গমন করতে হলে বাধ্যতামূলকভাবে নির্দিষ্ট হোটেলগুলোতে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন পালন করতে হবে। এতে দেশে ছুটিতে আসা সৌদি আরব প্রবাসীরা মারাত্মক আর্থিক সংকটের পাশাপাশি প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনের জন্য নানাবিধ কারণে হোটেল বুকিং করতে পারছিলেন না। বিশেষ করে যেহেতু হোটেল বুকিংয়ের সময় পুরো টাকা পরিশোধ করতে হয়। প্রবাসী কর্মীদের বেশিরভাগেরই ইন্টারন্যাশনাল ক্রেডিট কার্ড না থাকায় কোনোভাবেই হোটেল বুকিং করতে পারছিলেন না। প্রবাসীদের এ সমস্যা সমাধানকল্পে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় প্রবাসীদের ২৫ হাজার টাকা করে অর্থ সহায়তা দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করলেও হোটেল বুকিং করতে পারছিলেন না প্রবাসীরা। এরই প্রেক্ষিতে প্রবাসীদের যাবতীয় সমস্যা দ্রুত সমাধানের লক্ষ্যে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় একটি কুইক রেসপন্স টিম গঠন করে। ওই টিম সৌদি এয়ারলাইনস এবং আটাব (অ্যাসোসিয়েশন অব ট্রাভেল এজেন্সিস বাংলাদেশ) এর সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক শেষে এ সমস্যার সমাধান করতে সম্মত হয়েছে।