শিরোনাম
প্রকাশ : ৭ আগস্ট, ২০২০ ১৬:০৬

টাওয়ার হ্যামলেটসে বর্ণবৈষম্য দূর করতে কমিশন গঠন

যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি:

টাওয়ার হ্যামলেটসে বর্ণবৈষম্য দূর করতে কমিশন গঠন

টাওয়ার হ্যামলেটসে বর্ণবৈষম্য দূর করতে কমিশন গঠন করা হয়েছে। আর এই কমিশনের নেতৃত্ব দেবেন ডেপুটি মেয়র কাউন্সিলর আসমা বেগম।

টাওয়ার হ্যামলেটসে কীভাবে বর্ণ বৈষম্য দূর করা যায়, তা নিয়ে এক ভার্চুয়াল আলোচনা অনুষ্ঠানে মেয়র জন বিগস বলেছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে জর্জ ফ্লয়েডের ক্ষেত্রে ঘটে যাওয়া নৃশংস ঘটনা প্রাতিষ্ঠানিক বর্ণবাদ ও নিগ্রহের বিরুদ্ধে বিশ্বের কোটি কোটি মানুষকে সোচ্চার করেছে। কৃষ্ণাঙ্গ, এশীয় ও সংখ্যালঘু জাতিগত পটভূমির লোকেরা যে বিদ্যমান অবিচারগুলো সহ্য করে চলেছে, তা থেকে উত্তরণে কী কী করা যায়, সে বিষয়ে আমাদের আরো নজর দেয়ার ও ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার ক্ষেত্রে মানুষের বর্ণবাদ বিরোধী বর্তমান মনোভাবের সুযোগটি নেয়া উচিত। 

আলোচনা সভার প্রেক্ষিত তুলে ধরে মেয়র বলেন, এই ইতিবাচক বৈঠকের পর বারার সকল বাসিন্দার জন্য বৃহত্তর সাম্যতা ও সুযোগ অর্জন নিশ্চিত করতে আমরা কী কী ধরনের বাস্তব ও তাৎপর্যপূর্ণ পরিবর্তন করতে পারি, সেগুলো অনুসন্ধান করার জন্য একটি কমিশন গঠন করা হয়েছে, যার নেতৃত্ব দেবেন ডেপুটি মেয়র কাউন্সিলর আসমা বেগম।

বর্ণ বৈষম্য দূরিকরণে সকল পর্যায়ের মানুষের অভিমত জানার লক্ষ্যে আয়োজিত এই সভায় মেয়র জন বিগস এবং ডেপুটি মেয়র ও কেবিনেট মেম্বার ফর কমিউনিটি সেফটি, ইয়ূথ এন্ড ইক্যূয়েলিটিজ, কাউন্সিলর আসমা বেগম ছাড়া স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের প্রতিনিধি, ব্যবসায়ীবৃন্দ, ইয়াং মেয়র, স্বাস্থ্য, পুলিশ, শিক্ষা ও কর্মসংস্থান সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন পর্যায়ের প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

এই ভার্চ্যূয়াল আলোচনায় বক্তব্য রাখেন সরকারের উপদেষ্টা এবং অপারেশন ব্ল্যাক ভোট এর প্রতিষ্ঠাতা লর্ড সায়মন উলি। তিনি জর্জ ফ্লয়েডের হত্যা এবং কোভিড-১৯ এর প্রভাব সম্পর্কে কথা বলেন, যা কালো, এশিয়ান ও জাতিগত সংখ্যালঘুদের ওপর অসামঞ্জস্যপূর্ণ প্রভাব ফেলেছে। ভবিষ্যতের জন্য ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে সব পর্যায়ের নেতৃত্ব বিশেষ করে তরুণ নেতৃত্বের গুরুত্ব তুলে ধরেন তিনি।

ডেপুটি মেয়র কাউন্সিলর আসমা বেগম বলেন, আমরা সবাই এটা জানতাম যে জাতিগত বৈষম্য বিদ্যমান, কিন্তু জর্জ ফ্লয়েডের নৃশংস হত্যাকাণ্ড এই ইস্যুটিকে মানুষের মনের মধ্যে গেঁথে দিয়েছে এবং আমি আশা করি এটি পরিবর্তনের অনুঘটক হিসেবে প্রমাণিত হবে। টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল রেস কমিশন গঠন করায় আমি খুবই সন্তুষ্ট। এই কমিশনের লক্ষ্য হবে সত্যিকারের সাম্য প্রতিষ্ঠার জন্য কী ধরনের ইতিবাচক পদক্ষেপ নেয়া যায়, তা চিহ্নিত করতে সকল অংশিদারদের একত্রিত করা।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর