Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ জানুয়ারি, ২০১৯ ২৩:১০

পেশাদার লিগের পর্দা উঠছে আজ

শুরুতেই মাঠে নামছে তিন ফেবারিট

ক্রীড়া প্রতিবেদক

শুরুতেই মাঠে নামছে তিন ফেবারিট

ঘরোয়া ফুটবলে এক সময় বড় আকর্ষণ ছিল ঢাকা প্রথম বিভাগ বা পরবর্তীতে প্রিমিয়ার লিগ। অন্য জেলাতেও লিগ হতো কিন্তু ঢাকার জনপ্রিয় ক্লাবগুলোর তারকা খেলোয়াড়রা খেলতেন বলে ঢাকার লিগই ছিল ফুটবলে দেশের সেরা আসর। ১৯৪৮ সালে ঢাকা প্রথম বিভাগ লিগের যাত্রা। ১৯৯৩ সাল থেকে নামকরণ করা হয় প্রিমিয়ার লিগের। ২০০৬ সাল পর্যন্ত এভাবেই চলে। ৫৮ বছর ইতিহাসে অনেক ক্লাবেরই চ্যাম্পিয়ন হওয়ার কৃতিত্ব রয়েছে। কিন্তু মোহামেডান ও আবাহনী সাফল্যের ধারে কাছেও কোনো ক্লাব নেই।

ঘুরে ফিরে শিরোপা ভাগাভাগি করায় মোহামেডান-আবাহনী দেশের শ্রেষ্ঠ ও জনপ্রিয় দলে পরিণত হয়েছে। ২০০৭ সাল থেকে দেশে শুরু হয় পেশাদার লিগ। যা বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ নামেই পরিচিত।

ফিফার নির্দেশনায় বাফুফে পেশাদার লিগের যাত্রা হয়। দেখতে দেখতে ১০টি আসর পার হয়ে গেছে। আজ থেকে মাঠে গড়াচ্ছে একাদশ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে লিগের উদ্বোধনী ম্যাচে বিকাল সাড়ে ৩টায় মুখোমুখি হবে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ঢাকা আবাহনী ও চ্যাম্পিয়নশিপ  থেকে আসা নবাগত নফেল স্পোর্টিং। সন্ধ্যা সাড়ে ৫ টায় খেলবে রানার্সআপ শেখ জামাল ধানমন্ডি ও চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে চ্যাম্পিয়ন হয়ে উঠে আসা বসুন্ধরা কিংস। শুরুতেই তিন ফেবারিট দলের দেখা মিলবে। পেশাদার লিগে চ্যাম্পিয়ন হওয়া মানে ফুটবলে দেশসেরা খেতাব পেয়ে যাওয়া। এক সময় শিরোপা লড়াইয়ে ঢাকা আবাহনী-মোহামেডানের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেও বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের যাত্রার পর দৃশ্য পাল্টে গেছে। আবাহনী সর্বোচ্চ বার চ্যাম্পিয়ন হলেও মোহামেডানের বড় প্রাপ্তি রানার্সআপই। ঐতিহ্যবাহী দলটির কাছে শিরোপা জেতাটা স্বপ্নে পরিণত হলেও শেখ জামাল ৩ ও শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্র ১ বার করে লিগ জিতেছে।

এবারের লিগটা হবে বড় চ্যালেঞ্জের। কমপক্ষে চারটি দলের লিগ জয়ে সামর্থ্য রয়েছে। ঢাকা আবাহনী, বসুন্ধরা কিংস, শেখ রাসেল, শেখ জামাল, সাইফ স্পোর্টিং দেশি ও বিদেশিদের মিলিয়ে শক্তিশালী দল গড়েছে। চট্টগ্রাম আবাহনীকেও ফেবারিটের বাইরে রাখা যাবে না। ফুটবল শুধু গোল নয়, কৌশলের খেলা। পাঁচ দলের চ্যালেঞ্জের লিগ। তারপর আবার ছয় ভেন্যুয় খেলা। নতুন লিগে নতুনত্ব থাকছে।

এমন চ্যালেঞ্জের লিগে দেশসেরার মুকুট উঠবে কার হাতে? ঢাকা আবাহনীর লক্ষ্য পেশাদার লিগে দ্বিতীয় হ্যাটট্রিক শিরোপার স্বাদ পাওয়া। গত দুই মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন তারা। ফেডারেশন কাপ জিতে প্রমাণও দিয়েছে তারা লিগ জয়ের সামর্থ্য রাখে। যদি এবারও চ্যাম্পিয়ন হয় তাহলে আবাহনীর হবে তৃতীয় হ্যাটট্রিক শিরোপা। পেশাদার লিগের শুরুতেই তারা টানা তিনবার শিরোপা জিতেছে। এর আগে ১৯৮৩, ১৯৮৪ ও ১৯৮৫ সালেও প্রথম বিভাগ লিগে টানা তিনবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।

এবার লিগে সবচেয়ে আলোচিত দল বসুন্ধরা কিংস। ১৯৭৫ সালে লিগের উদ্বোধনী ম্যাচে চ্যাম্পিয়ন আবাহনীকে হারিয়ে আলোড়ন তুলেছিল নবাগত ব্রাদার্স ইউনিয়ন। কিন্তু বসুন্ধরা কিংসের মতো কোনো দলই সাড়া ফেলতে পারেনি। মাঠে নামার আগেই বসুন্ধরা কিংস যে সাড়া ফেলেছে তা অতীতের সব রেকর্ডকে হার মানিয়েছে। বাংলাদেশের ফুটবল ইতিহাসে অভিষেকেই কোনো দলের শিরোপা জয়ের কৃতিত্ব নেই। সেই রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে বসুন্ধরা কিংস স্বাধীনতা কাপে চ্যাম্পিয়ন ও ফেডারেশন কাপে রানার্সআপ হয়ে। লিগ জিতলে হবে আরেক ইতিহাস। পেশাদার লিগে এই প্রথম বিশ্বকাপের কোনো ফুটবলারের দেখা মিলবে। কোস্টারিকার ড্যানিয়েল কলিনড্রেস ইতিমধ্যে দুই টুর্নামেন্টে আলো ছড়িয়েছেন। লিগেও তিনি নিজেকে মেলে ধরবেন আশা করা যায়। শেখ জামাল স্থানীয় তরুণ ও বিদেশিদের সমন্বয় ঘটিয়ে ব্যালেন্সড দল গড়েছে। দুই টুর্নামেন্টে শিক্ষা নিয়ে লিগে নতুন উদ্যমে লড়বে। শেখ রাসেলও লিগ জেতার সামর্থ্য রাখে। সাইফও চাইবে বড় সাফল্যটি পেতে। নতুন লিগে নতুন না পুরনো চ্যাম্পিয়নের দেখা মিলবে সেটাই অপেক্ষা। উন্নত মানের বিদেশিদের দলভুক্ত করেছে বিভিন্ন ক্লাব। একঘেঁয়েমি কাটিয়ে নতুন লিগে নতুনত্ব আসবে এই প্রত্যাশা ফুটবলপ্রেমীদের।

 

আজকের খেলা : ঢাকা আবাহনী-নফেল স্পোর্টিং বিকাল ৩.৩০ মিনিট, শেখ জামাল-বসুন্ধরা কিংস সন্ধ্যা ৬.৩০ মিনিট


আপনার মন্তব্য