Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৪ এপ্রিল, ২০১৯ ২৩:২৭

অনুশীলন ক্যাম্পে তৃতীয় দিন

ফিটনেস নিয়ে সন্তুষ্ট তামিম

ক্রীড়া প্রতিবেদক

ফিটনেস নিয়ে সন্তুষ্ট তামিম

বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা এবারই প্রথম স্বপ্ন দেখছেন বড় কিছুর। স্বপ্ন পূরণের দায়িত্বে আবার পাঁচ সিনিয়র ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মর্তুজা, সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। পঞ্চপা-বের সবাই ম্যাচ উইনার। তবে সবার আগে থাকবেন বাঁ হাতি ওপেনার তামিম। টেস্ট, ওয়ানডে ও টি-২০ ক্রিকেটের সব সেক্টরেই সবচেয়ে বেশি রান বাঁ হাতি ব্যাটসম্যানের। আসন্ন বিশ্বকাপে তিনিই হতে পারেন টাইগারদের ট্রাম্প কার্ড। এবার নিয়ে চতুর্থবার বিশ্বকাপ খেলবেন তামিম। ২০০৭, ২০১১ ও ২০১৫ সালে বিশ্বকাপ খেলার অভিজ্ঞতা অনেক অভিজ্ঞ করেছে বাঁ হাতি ওপেনারকে। ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে দেশকে সর্বোচ্চ সাফল্য এনে দিতে প্রস্তুত করে নিচ্ছেন নিজেকে। শতভাগ সুস্থ হয়ে ক্রিকেট মহাযজ্ঞে খেলবেন বলেই প্রিমিয়ার ক্রিকেট খেলেননি। মাঠের লড়াই না নেমে প্রচ- গরম অপেক্ষা করে নিজেকে ফিট করেছেন সাফল্য পেতে। নিজের ফিটনেস নিয়ে সন্তুষ্টির কথা বলেছেন গতকাল মিডিয়ার মুখোমুখিতে। তবে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে সাফল্য পেতে গোটা দলকে প্রতিপক্ষের সঙ্গে কন্ডিশনকেও জয় করতে হবে বলেন বাঁ হাতি ওপেনার।            

তামিম প্রথম বিশ্বকাপ খেলেন ২০০৭ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজে। প্রথম আসরে ৯ ম্যাচে  রান করেন ১৭২। ২০১১ সালে ঘরের মাঠে ৬ ম্যাচে রান করেন ১৫৭ এবং গত বিশ্বকাপে ৬ ম্যাচে তার রান ১৫৪। সব মিলিয়ে তিন বিশ্বকাপে ১৬ ম্যাচে রান করেছেন ৪৮৩ এবং প্রতিটি বিশ্বকাপেই একটি করে হাফসেঞ্চুরি করেছেন। এবার সাফল্য পেতে মরিয়া তামিম। এজন্য প্রচ  গরমে নিজেকে প্রস্তুত করে নিয়েছেন, ‘বিশ্বকাপের সময় ইংল্যান্ডের আবহাওয়া একটু ভিন্ন থাকবে। আমরা এই গরমে রানিং, ব্যাটিং-ফিল্ডিং, জিম করছি। যা খুবই কষ্টকর। আমি মনে করি ইংলিশ আবহাওয়ায় এই কষ্ট ফিটনেসের দিক দিয়ে সাহায্য করবে। এখনই সময় অনুশীলনে নিজেকে উজার করে দেওয়ার।’

তিন তিনটি বিশ্বকাপ খেলেছেন। সাকিব, মুশফিক, মাশরাফির মতো চার নম্বর বিশ্বকাপ খেলবেন এবার। নিজেকে এজন্য প্রস্তুতও করে নিয়েছেন। নিজের প্রস্তুতি নিয়ে দেশসেরা ব্যাটসম্যান বলেন, ‘আমি সন্তুষ্ট আমার প্রস্তুতিতে। আমার টার্গেট ছিল ব্যাটিংয়ের চেয়ে ফিটনেসের দিকে। আমি মনে করি সেটা পূরণ হয়েছে। ইংল্যান্ডের কন্ডিশনে সাফল্য পেতে সবকিছু নিয়ে কাজ করছি। সবসময় বলি যে প্রস্তুতিটা নিজের কাছে।’

১০ জাতির বিশ্বকাপ শুরু ৩০ মে। বাংলাদেশের বিশ্বকাপ মিশন শুরু ২ জুন দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচ দিয়ে। ইংলিশ কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে অবশ্য আয়ারল্যান্ডে তিন জাতির টুর্নামেন্ট খেলবে টাইগাররা।


আপনার মন্তব্য