শিরোনাম
প্রকাশ : ২৭ নভেম্বর, ২০২০ ০৮:৩৩
আপডেট : ২৭ নভেম্বর, ২০২০ ১১:৩২
প্রিন্ট করুন printer

ম্যারাডোনার মৃত্যুর পরও ক্ষোভ দেখালেন ইংল্যান্ডের সেই গোলরক্ষক

অনলাইন ডেস্ক

ম্যারাডোনার মৃত্যুর পরও ক্ষোভ দেখালেন ইংল্যান্ডের সেই গোলরক্ষক

সবাইকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে পাড়ি জমিয়েছেন ফুটবলের বরপূত্র দিয়েগো ম্যারাডোনা। তার মৃত্যুতে শুধু ফুটবল নয়, বিশ্বজুড়ে সব ক্রীড়াঙ্গনেই পড়েছে শোকের ছায়া।

আর তা তো হওয়ারই কথা। কেননা, ইতিহাস রাঙানো অসংখ্য অর্জন, কীর্তি। প্রতিভা, উন্মাদনা,মাদকসহ নানা বিতর্ক, দ্রোহ, রোমাঞ্চ আর আবেগ সব মিলিয়ে দিয়েগো ম্যারাডোনা একজনই। এসব ছাপিয়ে তিনি হয়ে উঠেছিলেন জীবনের চেয়েও বড় এক চরিত্র। গোটা দুনিয়াকে ফুটবলের উথাল প্রেমে মাতানো তারকা ম্যারাডোনা। সেই মানুষ সবাইকে কাঁদিয়ে আচমকা চলে গেলেন।

ম্যারাডোনার মৃত্যুর পর তাকে নিয়ে বিশ্বব্যাপী চলছে স্মৃতিচারণ। ব্যতিক্রম নন ইংল্যান্ডের গোলরক্ষক পিটার শিল্টন। 

এই শিল্টন হলেন সেই গোলরক্ষক যার বিরুদ্ধে ১৯৮৬ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে হাত দিয়ে গোল করেছিলেন ম্যারাডোনা। যা পরবর্তীতে শৈল্পিক রূপ নাম নিয়ে ‘হ্যান্ড অব গড’ হিসেবে পরিচিতি পায়। বিষয়টিতে যারপরনাই বিরক্ত ছিলেন শিল্টন।

আর এ কারণে মহাতারকার মৃত্যুর পরও ক্ষোভ সামলাতে পারলেন না তিনি।

শিল্টন বলেন, “ম্যারাডোনার মৃত্যুতে আমি ব্যথিত। তাকে সেরা খেলোয়াড় হিসেবেও মেনে নিয়েছি। কিন্তু তার সেই ঘটনার (হাত দিয়ে গোল) জন্য ক্ষমা চাওয়া উচিত ছিল।”

শিল্টন বলেন, “ঘটনাটি নিয়ে আমি কয়েক বছর বেশ বিরক্ত ছিলাম। আমি এখনও মিথ্যা বলব না। মানুষ বলে আমি বলটি ক্লিয়ার করতে পারতাম। কিন্তু আমি আমার চেয়ে অনেক খাটো একজন মানুষকে সুযোগ দিয়েছি আমার ওপর দিয়ে লাফ দিয়ে গোল করার জন্য। পুরোটাই বাজে কথা। ম্যারাডোনা আমাকে পরাস্ত করার মতো গতিতে ছিল। যদি সে মাথা দিয়েই হেড দিতে পারতো তাহলে সে হয়তো হাত দিয়ে গোল করতো না। করতো কি? অবশ্যই করতো না। বিষয়টি নিয়ে আমার কোনও আপত্তি নেই।”

“তবে আমার আপত্তি হল ওই ঘটনা নিয়ে সে কখনও ক্ষমা চায়নি। সে তার জীদ্দশায় কখনও বলেনি যে আমাদের বিরুদ্ধে প্রতারণা করেছিল। কখনও বিষয়টি নিয়ে ব্যথিতও হয়নি। উপরন্তু বিষয়টিকে সে ‘হ্যান্ড অব গড’ আখ্যা দিয়েছি। এটা ঠিক ছিল না। এটা সত্য ম্যারাডোনা একজন বড় মাপের খেলোয়াড় ছিল, কিন্তু দুঃখজনক ব্যাপার হল তার কোনও স্পোর্টসম্যানশিপ ছিল না।”

ওই ঘটনার পর অনেকবার অনেকে চেষ্টা করেছিলেন শিল্টন ও ম্যারাডোনাকে একত্রিত করার। কিন্তু শিল্টন কখনওই সে পথে হাঁটেননি। বিভিন্ন শো, টক-শোসহ টেলিভিশন অনুষ্ঠানে একসঙ্গে আমন্ত্রণ পেলেও তিনি যাননি। ১৯৮৬ সালের পর থেকেই ম্যারাডোনাকে এড়িয়ে গেছেন শিল্টন। তথ্যসূত্র: গিভমিস্পোর্ট, স্কাইস্পোর্টস, ফুটবল৩৬৫

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৬:৩৬
প্রিন্ট করুন printer

আইপিএলে বড় ভূমিকায় সাঙ্গাকারা

অনলাইন ডেস্ক

আইপিএলে বড় ভূমিকায় সাঙ্গাকারা

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের দল রাজস্থান রয়্যালসের ক্রিকেট ডিরেক্টের হিসেবে যোগ দিলেন শ্রীলঙ্কার সাবেক অধিনায়ক কুমার সাঙ্গাকারা। দলের পুরো ক্রিকেটীয় প্রক্রিয়ার দায়িত্বে থাকবেন তিনি। 

ছয় বছরের আইপিএল ক্যারিয়ারে সাঙ্গাকারা খেলেছেন কিংস ইলাভেন পাঞ্জাব ও ডেকান চাজার্স ও সানরাইজার্স হায়দরাবাদে। নতুন দায়িত্ব পেয়ে সাঙ্গাকারা বলেন, ‘একটি ক্রিকেটীয় পরিকল্পনা সাজানো এবং ফ্রাঞ্জাইজি দলকে প্রতিযোগিতায় সঠিকভাবে পরিচালনার কাজটা মোটেও সহজ নয়।

পাশাপাশি তাদের উন্নতিতে অবদান রাখা এবং প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দাঁড় করানো ও মাঠে সেই সফলতা এনে দেওয়ার কাজটা করতে হবে। এটা অবশ্যই আমাকে অনুপ্রাণিত করবে। তাদের নেতৃত্বগুণ দেখে মুগ্ধ হয়েছি। এবার সেখানে যোগ দেওয়ার অপেক্ষায় আছি।’

উল্লেখ্য, সাঙ্গাকারার কাজের পরিধির মধ্যে রয়েছে কোচিং স্টাফদের নিয়োগ ও কোচিং পরিকল্না সাজানো, খেলোয়াড়দের নিলাম, তরুণ ক্রিকেটারদের উঠিয়ে আনা এবং নাগপুরে রাজস্থান রয়্যালসের একাডেমির দায়িত্ব।


বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৬:৩১
আপডেট : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৬:৩৩
প্রিন্ট করুন printer

যুক্তরাষ্ট্রের ক্রিকেট ক্যাম্পে ডাক পেলেন বাংলাদেশি অলরাউন্ডার শাকের

অনলাইন ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের ক্রিকেট ক্যাম্পে ডাক পেলেন বাংলাদেশি অলরাউন্ডার শাকের
শাকের আহমেদ। ফাইল ছবি

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্রিকেট ক্যাম্পে ডাক পেলেন বাংলাদেশি ক্রিকেটার শাকের আহমেদ। সম্প্রতি ডেট্রয়েট, মিশিগানসহ যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন শহরে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে অসাধারণ পারফরম্যান্স করেন এই অলরাউন্ডার। অসাধারণ অলরাউন্ডিং নৈপুণ্য দেখিয়ে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের প্রাথমিক দলে ডাক পেলেন। 

অনুশীলনের জন্য ৪৪ সদস্যের প্রাথমিক দল ঘোষণা করেছে যুক্তরাষ্ট্র ক্রিকেট বোর্ড-ইউএসএ ক্রিকেট।  সেই দলে সুযোগ পেয়ে গেয়েছেন তিনি। এখানে ভালো করতে পারলেন তিনি যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় দলেও সুযোগ পেতে পারেন।

২৮ বছর বয়সী শাকের আহমেদের বাড়ি বাংলাদেশের সিলেটে। ২০১০ নিউজিল্যান্ডে অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে মাহমুদুল হাসানের নেতৃত্বে বাংলাদেশের যে দল খেলেছিল  স্লেেইর সদস্য ছিলেন তিনি। বিশ্বকাপ শেষের পরপরই তিনি যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান। তিনি একজন অলরাউন্ডার। বাঁ হাতে ব্যাট করেন। বাঁহাতি স্লো অর্থোডক্স বোলার তিনি। যুক্তরাষ্ট্রে অনেকেই তাকে সাকিব আল হাসান বলেন।

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ


 


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৬:২৫
আপডেট : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৬:৪০
প্রিন্ট করুন printer

ক্যারিবীয় শিবিরে মুস্তাফিজের জোড়া আঘাত

অনলাইন প্রতিবেদক

ক্যারিবীয় শিবিরে মুস্তাফিজের জোড়া আঘাত
ফাইল ছবি

চট্টগ্রামের সাগরিকার জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচে টসে জিতে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আজ সোমবার ব্যাট হাতে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে টাইগাররা সংগ্রহ করে ৬ উইকেটের বিনিময়ে ২৯৭ রান। জয়ের জন্য ওয়েস্ট ইন্ডিজের টার্গেট ২৯৮ রান।

বল হাতে শুরুতেই বাংলাদেশকে সাফল্য এনে দিলেন কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমান। ওয়েস্ট ইন্ডিজের দলীয় ৭ রানের মাথায় ওপেনার কজরন ওট্টেলিকে ফেরান তিনি। ব্যক্তিগত ১ রান করে মুশফিকুর রহিমের গ্লাভসে ধরা দিয়ে সাজঘরে ফেরেন ওট্টেলি। এরপর অপর ক্যারিবীয় ওপেনার সুনীল অ্যামব্রিসকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন কাটার মাস্টার। দলের রান তখন ৩০। বিদায়ের আগে সুনীল অ্যামব্রিস করেন ১৩ রান।


বিডি-প্রতিদিন/সিফাত আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৫:২১
আপডেট : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৫:৫৫
প্রিন্ট করুন printer

চার পাণ্ডবের ফিফটি, ক্যারিবীয়দের টার্গেট ২৯৮

অনলাইন ডেস্ক

চার পাণ্ডবের ফিফটি, ক্যারিবীয়দের টার্গেট ২৯৮
ফাইল ছবি

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ নিশ্চিত করে ফেলেছে বাংলাদেশ। আজ চট্টগ্রামের সাগরিকার জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে মাঠে নেমেছে দুই দল। টাইগারদের টার্গেট হোয়াইটওয়াশ, আর ক্যারিবীয়দের চেষ্টা একটি জয়।

টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক জেসন মোহাম্মদ। ব্যাট হাতে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে টাইগারদের সংগ্রহ ৬ উইকেটের বিনিময়ে ২৯৭ রান। জয়ের জন্য ওয়েস্ট ইন্ডিজের টার্গেট ২৯৮ রান।

শুরুটা ভালো না হলেও ব্যাট হাতে জ্বলে উঠেছেন তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ওয়েস্ট ইন্ডিজ শিবিরকে হতাশায় ডুবিয়ে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন এই চার টাইগার তারকা।

শেষদিকে অসাধারণ ব্যাট করা মাহমুদউল্লাহ ফিফটি করে ৬৪ রানে অপরাজিত থাকেন। তিনি ৪৩ বলে সমান ৩টি চার ও ছক্কায় এই ইনিংস খেলে দলীয় সংগ্রহ ৩শ’র কাছাকাছি নিয়ে যান। ৫ রানে অপরাজিত ছিলেন সাইফউদ্দিন। তবে ব্যাট হাতে ব্যর্থ সৌম্য সরকার (৭)।

ইনিংসের শেষদিকে বিদায় নেওয়া মুশফিকুর রহিম দারুণ ব্যাটিং করে হাফসেঞ্চুরি করে। ৫৫ বলে ৪টি চার ও ২টি ছক্কায় ৬৪ আসে তার ব্যাট থেকে। শেষ ওভারে সৌম্য সরকার ব্যক্তিগত ৭ রানে রান আউট হন। এর আগে ফিফটির পর আর বেশিদূর এগোতে পারেননি সাকিব আল হাসান। রেইফারের বলে বোল্ড হয়ে ৮১ বলে ৩ চারে ৫১ রান নিয়ে সাজঘরে ফিরেছেন তিনি। 

হাফসেঞ্চুরির পর নিজের ইনিংস খুব বেশি বড় করতে পারেননি তামিম ইকবালও। ২৮তম ওভারের শেষ বলে আলজারি জোসেফকে মারতে গিয়ে আকিল হোসেনের ক্যাচে পরিণত হন তিনি। ৮০ বলে ৩টি চার ও একটি ছক্কায় তার ব্যাট থেকে ৬৪ রান এসেছে।

এর আগে ভালো খেলতে থাকা নাজমুল হোসেন শান্ত ব্যক্তিগত ২০ রানে ফিরেছেন। দলীয় নবম ওভারে ৩৮ রানের মাথায় কাইল মায়ার্সের বলে এলবিডব্লিউ হন তিনি। রিভিউ নিলেও তৃতীয় আম্পায়ারের ঘোষণায় আউটই হন তিনি।

ইনিংসের প্রথম ওভারেই আউট হলেন লিটন দাশ (০)। আলজারি জোসেফের করা ওভারের পঞ্চম বলে এলবির ফাঁদে পড়েন এই ওপেনার।


বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৪:৪২
আপডেট : ২৫ জানুয়ারি, ২০২১ ১৫:২২
প্রিন্ট করুন printer

ইনিংসটা লম্বা করতে পারলেন না সাকিব

অনলাইন ডেস্ক

ইনিংসটা লম্বা করতে পারলেন না সাকিব

ওয়ানডে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে চট্টগ্রামের সাগরিকার জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে আজ মুখোমুখি হয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও বাংলাদেশ। টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক জেসন মোহাম্মদ। আর ব্যাট হাতে ফিফটি তুলে নিয়েছেন তামিম-সাকিব। যদিও হাফসেঞ্চুরি করেই বিদায় নেন এই দুই তারকা।

এদিন ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৪৮তম ফিফটি তুলে নেন টাইগার অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ৮১ বলে ৫১ রান করে রেমন রেইফারের বলে বোল্ড হয়ে বিদায় নেন তিনি। এর আগে হাফসেঞ্চুরি করে বিদায় নেন তামিম ইকবালও। ২৮তম ওভারের শেষ বলে আলজারি জোসেফকে মারতে গিয়ে আকিল হোসেনের ক্যাচে পরিণত হন তিনি। ৮০ বলে ৩টি চার ও একটি ছক্কায় তার ব্যাট থেকে ৬৪ রান এসেছে। 

এর আগে ভালো খেলতে থাকা নাজমুল হোসেন শান্ত ব্যক্তিগত ২০ রানে ফিরেছেন। দলীয় নবম ওভারে ৩৮ রানের মাথায় কাইল মায়ার্সের বলে এলবিডব্লিউ হন তিনি। রিভিউ নিলেও তৃতীয় আম্পায়ারের ঘোষণায় আউটই হন তিনি।

ইনিংসের প্রথম ওভারেই আউট হলেন লিটন দাস (০)। আলজারি জোসেফের করা ওভারের পঞ্চম বলে এলবির ফাঁদে পড়েন এই ওপেনার।

 

বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর