মঙ্গলবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ টা

নতুন রূপে সাজছে নগর

কাজী শাহেদ, রাজশাহী

নতুন রূপে সাজছে নগর

দৃষ্টিনন্দন সড়কবাতিতে অনন্য রূপে সাজছে সবুজ নগরী খ্যাত রাজশাহী। পদ্মাপাড়ের এই ছোট্ট মহানগরীকে আরও সৌন্দর্যময়, বর্ণিল ও আলোকোজ্জ্বল করতে নগরীর আলিফ-লাম-মীম ভাটার মোড় থেকে ছোট বনগ্রাম, মেহেরচন্ডী, বুধপাড়া, মোহনপুর রেলক্রসিং হয়ে চৌদ্দপাই পর্যন্ত নির্মিত নতুন ফোর লেন সড়কে দৃষ্টিনন্দন সড়কবাতি স্থাপন করা হচ্ছে। এর কাজ চলছে।

ফোর লেন সড়কের ৬ দশমিক ৭৯৩ কিলোমিটার ডিভাইডারজুড়ে বসানো হবে নান্দনিক ২৮৫টি পোল। এর মধ্যে ২৪০টি পোলে দুটি করে মোট ৪৮০ সড়কবাতি এবং ৪০টি পোলে একটি ৪০টি সড়কবাতি বসানো হচ্ছে। রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন জানান, উন্নত দেশগুলোর মতো সড়কগুলোকে দৃষ্টিনন্দন করতে এমন উদ্যোগ। প্রতিটি সড়ক চওড়া করা হচ্ছে। বসানো হচ্ছে দৃষ্টিনন্দন সড়কবাতি।

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের (রাসিক) প্রকৌশল শাখা সূত্রে জানা যায়, রাজশাহী-নওগাঁ মহাসড়কের কাজ শেষ। এই মহাসড়কের আলিফ-লাম-মীম ভাটা মোড় থেকে ছোট বনগ্রাম, মেহেরচন্ডী, বুধপাড়া, মোহনপুর হয়ে চৌদ্দপাই রাজশাহী-নাটোর সড়ক পর্যন্ত পূর্ব-পশ্চিমমুখী ৬ দশমিক ৭৯৩ কিলোমিটার ফোর লেন সংযোগ সড়ক নির্মাণ করেছে রাজশাহী সিটি করপোরেশন। সড়কের দুই পাশে ফুটপাথ, একটি ব্রিজ, আটটি কালভার্ট, মিডিয়ান ও ট্রাফিক কাঠামো নির্মাণ এবং ৩২৭ দশমিক ৫০ মিটার দৈর্ঘ্যরে ফ্লাইওভার এরই মধ্যে নির্মিত হয়েছে। এ ছাড়া নগর ভবন থেকে সরকারি মহিলা কলেজের সামনে হয়ে মালোপাড়া হয়ে সোনাদীঘি মোড় হয়ে রানীবাজার বাটার মোড় পর্যন্ত ৯৬টি দৃষ্টিনন্দন পোলে ৯৬টি সড়কবাতি বসানোর কাজ এরই মধ্যে শেষ হয়েছে। আনুষ্ঠানিকতা শেষে বাতিগুলো আলোর বিচ্ছুরণের অপেক্ষায় আছে।

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের সহকারী প্রকৌশলী আসাদুজ্জামান সুইট জানান, প্রথম ধাপে ২ দশমিক ৫ কিলোমিটার সড়কে ৮৭টি পোলে ১৭৪টি আধুনিক দৃষ্টিনন্দন এলইডি বাল্ব লাগানো হচ্ছে। ১৭ নভেম্বর থেকে প্রথম অংশে সড়কবাতি লাগানো শুরু হয়েছে। তাই ইতিমধ্যে বাতিগুলো দৃশ্যমান হয়েছে। দ্বিতীয় ধাপে বাকি অংশে সড়কবাতিগুলোও লাগানো হবে। অত্যাধুনিক বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী সড়কবাতিগুলো অটোলজিক কন্ট্রোলারের মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয়ভাবে অন-অফ হবে। রাতের আঁধারে দূর থেকে দেখতে এগুলো আরও আকর্ষণী ও দৃষ্টিনন্দন হবে।

এই রকম আরও টপিক

সর্বশেষ খবর