শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ১৮:৪১

চট্টগ্রামে জামেয়া দারুল মা’আরিফ মাদ্রাসার প্রথম সমাবর্তন অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম:

চট্টগ্রামে জামেয়া দারুল মা’আরিফ মাদ্রাসার প্রথম সমাবর্তন অনুষ্ঠিত

ঐতিহ্যবাহী দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জামেয়া দারুল মা’আরিফ আল ইসলামিয়ার দুই দিনব্যাপী প্রথম সমাবর্তন ও ৩৪তম বার্ষিক মাহফিল গত সোমবার ও মঙ্গলবার শেষ হয়। এবার প্রথমদিনে বার্ষিক মাহফিলে দেশ-বিদেশের বরেণ্য ওলামা মাশায়েখ বিষয়ভিত্তিক বক্তব্য পেশ এবং দ্বিতীয় দিন সমাবর্তনের মূল পর্বের অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। 

প্রথম পর্বের অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন জামেয়ার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক আল্লামা মুহাম্মদ সুলতান যওক নদভী। প্রধান অতিথি ছিলেন অধ্যাপক ড. আবু রেজা নদভি এমপি, প্রধান আলোচক ছিলেন মক্কা উম্মুল কুরা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আব্দুর রহমান আল কাসসাস, বিশেষ অতিথি ছিলেন আল জামেয়া ইসলামিয়া পটিয়ার মহাপরিচালক আল্লামা আব্দুল হালীম বুখারী, আল-বাহা বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপক ড. মিশাল আল লুহাইবি, আল জামিয়াতুল আরবিয়া জিরির পরিচালক আল্লামা শাহ মুহাম্মদ তৈয়ব, আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রামের শরীয়া ফ্যাকাল্টির ডিন প্রফেসর ড. শফী উদ্দীন মাদানী, বাইতুশ শরফ আলিয়া মাদরাসার অধ্যক্ষ ড. মাওলানা আবু নোমান প্রমুখ। 

দ্বিতীয় অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন দারুল মা’আরিফের উপ-পরিচালক মাওলানা ফুরকানুল্লাহ খলিল, প্রধান অতিথি ছিলেন আল হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়্যার চেয়ারম্যান ও হাটহাজারি মাদরাসার মহাপরিচালক আল্লামা আহমদ শফি, প্রধান বক্তা ছিলেন ভারতের নদওয়াতুল ওলামা লাখনৌর শায়খুত তাফসীর আল্লামা সুহাইব হোসাইনী নদভী, বিশেষ অতিথি ছিলেন আল জামেয়াতুল আহলিয়া দারুল উলূম হাটহাজারীর সহযোগী পরিচালক আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী, জামেয়া বাবুনগরের পরিচালক মাওলানা মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী, দৈনিক ইনকিলাবের সহকারী সম্পাদক ও ইসলামি চিন্তাবিদ মাওলানা উবায়দুর রহমান খান নদভী, জামেয়া পটিয়ার শাইখুল হাদিস হাফেজ মাওলানা আহমদ উল্লাহ, মুহাদ্দিস মাওলানা শামসুদ্দিন জিয়া প্রমুখ। ১৫ তম ব্যাচের গ্র্যাজুয়েট ও জামেয়ার শিক্ষক মাওলানা আফীফ ফুরকান মাদানীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তারা বলেন, ‘মাত্র ৩৫ বছরে জামেয়া দারুল মা’আরিফ দেশ-বিদেশে যে বিপুল প্রসিদ্ধি ও গ্রহণযোগ্যতা অর্জন করেছে, সেটি বিস্ময়কর ও তাৎপর্যপূর্ণ। আর সেটি সম্ভব হয়েছে আল্লামা সুলতান যওক নদভীর ইখলাস ও গভীর প্রজ্ঞার ফলে। আমরা এ প্রতিষ্ঠানের উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি কামনা করছি।’

অনুষ্ঠানে গত ৩৫ বছরে জামেয়া থেকে দাওরা হাদিস ও ইসলামিক স্টাডিজ কোর্স সম্পন্নকারী ৬০০ গ্র্যাজুয়েটকে পাগড়ি প্রদান করা হয়। ঐতিহ্যবাহী এরাবিয়ান আবায়া ইউনিফর্ম এবং ইসলামী ও আধুনিক রীতির চমৎকার সমন্বয়ে পুরো ক্যাম্পাসে তৈরি হয়েছিলো এক উৎসবমুখর পরিবেশ।

বিডি প্রতিদিন/মজুমদার/রেজা মুজাম্মেল 


আপনার মন্তব্য