শিরোনাম
প্রকাশ : ৯ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:৩৬
প্রিন্ট করুন printer

প্রশাসনের ভয়ে বিয়ে করতে আসেনি বর!

বিশ্বনাথ (সিলেট) প্রতিনিধি

প্রশাসনের ভয়ে বিয়ে করতে আসেনি বর!
প্রতীকী ছবি

সিলেটের বিশ্বনাথে দশম শ্রেণি পড়ুয়া এক ছাত্রীর বাল্যবিয়ের আয়োজন ভেঙে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। শুক্রবার উপজেলার সদর ইউনিয়নের দক্ষিণ মীরেরচর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ওই ছাত্রীর সঙ্গে সিলেটের ওসমানীনগর এলাকার এক যুবকের বিয়ের প্রস্তুতি চলছিল। খবর পেয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. কামরুজ্জামান বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত হন। এসময় তিনি কনের বয়সের প্রমাণপত্র দেখতে চান।

পরে কনের পরিবারের দেওয়া তার জন্ম নিবন্ধন সনদ অনুযায়ী দেখা যায়, কনের বয়স হয়েছে মাত্র ১৬ বছর দুই মাস। একপর্যায়ে এটিকে বাল্যবিয়ে আখ্যায়িত করে, কনে পরিবারের মুচলেকা নিয়ে বিয়ে ভেঙে দেন তিনি। পরে প্রশাসন থেকে ফোন দেওয়া হয় বর পক্ষকেও। এ খবর শুনে বরযাত্রীরা আর বিয়ের অনুুষ্ঠানেই আসেননি।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. কামরুজ্জামান বলেন, মেয়েটির বয়স এখনো ১৮ হয়নি। এজন্য বিয়ে ভেঙে দেওয়া হয়েছে। এছাড়া মেয়ের বয়স ১৮ না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না দেওয়ার শর্তে অভিভাবকের মুচলেকা নেওয়া হয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/এমআই