Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৫ এপ্রিল, ২০১৯ ১৬:৪৩

চট্টগ্রামে পাটকল শ্রমিকদের রাজপথ-রেলপথ অবরোধ

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

চট্টগ্রামে পাটকল শ্রমিকদের রাজপথ-রেলপথ অবরোধ
আন্দোলনরত শ্রমিকদের ফাইল ছবি

রাষ্ট্রায়ত্ত ৯টিসহ দেশের ২২টি পাটকল শ্রমিকদের ৯ দফা দাবিতে আন্দোলনের অংশ হিসেবে নগরের আমিন জুট মিলের শ্রমিকরা কারখানা সংলগ্ন সড়ক অবরোধ করেন।

সোমবার সকাল আটটা থেকে শুরু হয়ে অবরোধ চলে দুপুর ১২টা পর্যন্ত। 

এ সময় শ্রমিকরা টায়ার, কাঠ জ্বালিয়ে সড়কে অবস্থান নেন। ফলে দুর্ভোগে পড়ে মুরাদপুর থেকে অক্সিজেন সড়কের যানবাহনের যাত্রীরা। এছাড়া ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সীতাকুণ্ডেও বিক্ষোভ করছেন বিভিন্ন পাটকলের শ্রমিকরা।

বায়েজিদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আতাউর রহমান খন্দকার বলেন, ‘দুপুর ১২টার পর শ্রমিকরা সড়ক ও রেলপথ ছেড়ে চলে যায়। তবে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে বিপুল সংখ্যক পুলিশ আমিন জুটমিল এলাকায় রয়েছে।’ 

তিনি বলেন, ‘শ্রমিক-কর্মচারীদের অবরোধের কারণে বিশ্ববিদ্যালয়গামী শুধুমাত্র একটি শাটল ট্রেন ছেড়ে গেছে। প্রথম ট্রেনের পর আর কোনো ট্রেন চলতে দেওয়া হয়নি। আটকে দেওয়া হয়েছে নাজিরহাট থেকে চট্টগ্রাম রেলস্টেশন অভিমুখী একটি যাত্রীবাহী ট্রেনও।

বাংলাদেশ পাটকল শ্রমিক লীগ এবং রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল সিবিএ-নন সিবিএ ঐক্য পরিষদ যৌথভাবে এ আন্দোলনের কর্মসূচি পালন করছে।

কর্মসূচির মধ্যে আছে ১৫, ১৬, ১৭ ও ১৮ এপ্রিল পাটকল ধর্মঘট এবং প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত চার ঘণ্টা করে সড়ক ও রেলপথ অবরোধ। ২৬ এপ্রিল শ্রমিক সমাবেশ, ২৭, ২৮ ও ২৯ এপ্রিল পাটকল ধর্মঘট এবং প্রতিদিন সকাল ৭টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ছয় ঘণ্টা করে সড়ক ও রেলপথ অবরোধ।

পাটকল শ্রমিকদের ৯ দফা দাবির মধ্যে আছে, নিয়মিত সাপ্তাহিক মজুরি ও বেতন প্রদান, সরকার ঘোষিত জাতীয় মজুরি ও উৎপাদনশীলতা কমিশন-২০১৫ বাস্তবায়ন, অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক কর্মচারীদের পিএফ-গ্র্যাচুইটি ও নিহত শ্রমিকদের বিমার বকেয়া প্রদান, টার্মিনেশন ও বরখাস্ত শ্রমিকদের কাজে পুনর্বহাল, সেটআপ অনুযায়ী শ্রমিক-কর্মচারীদের নিয়োগ ও স্থায়ী করা, মৌসুমে পাট কেনার জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ, উৎপাদন বাড়ানোর লক্ষ্যে মিলগুলোকে পর্যায়ক্রমে বিএমআরই করা প্রভৃতি।


বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য