Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৫ এপ্রিল, ২০১৯ ২০:১১

চট্টগ্রামে বর্ণিল যত বৈশাখী আয়োজন

ফারুক তাহের, চট্টগ্রাম:

চট্টগ্রামে বর্ণিল যত বৈশাখী আয়োজন

সকল অশুভকর্ম ও শক্তির বিনাশ ঘটে অগ্নিস্নানে যেন এই সুন্দর পৃথিবী শুচি হয়ে মানুষের জন্য কল্যাণকর হয়ে ওঠে-এই কামনায় চট্টগ্রামে বাংলা নববর্ষের দিন পহেলা বৈশাখ পালন করেছে নগরবাসী ও জেলার প্রায় প্রতিটি উপজেলায়। সব অনুষ্ঠানের আয়োজক ও অংশগ্রহণকারিদের অনেকটা একই কথা-পহেলা বৈশাখ অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের শপথ নেয়ার দিন। 

যারা দেশকে পেছনে নিয়ে যেতে চায়, যারা সমাজে অনাচার-অন্যায়কে প্রতিষ্ঠা করতে চায়, তাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।  এ লড়াইয়ের মূলভিত্তি হবে দেশ ও সমাজ থেকে অমঙ্গল বিতাড়নের লড়াই। পহেলা বৈশাখ নতুন দিন, নতুন বছর, শুধু নতুন একটি সকাল নয়; যারা আমাদের সমাজকে, রাষ্ট্রকে পিছিয়ে নিয়ে যেতে চায় তাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের দীপ্ত শপথ নেয়ার পহেলা বৈশাখ।

এদিকে পহেলা বৈশাখকে কেন্দ্র করে বর্ণিল ও নান্দনিক সব আয়োজন ছিল নগরীর বিভিন্ন স্থানে। এসব আয়োজনে দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হয় বাঙালি সংস্কৃতির অনুষঙ্গ গান নাচ, আবৃত্তি ও কথামালা। নগরীর প্রধান বৈশাখী আয়োজন সিআরবি শিরিষতলায় নববর্ষ উদযাপন পরিষদের অনুষ্ঠানমালা শুরু হয় সকাল ৮টায় বায়োলিনিস্ট চট্টগ্রামের যন্ত্রসঙ্গীতের মধ্য দিয়ে। এরপর একে একে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের পরিবেশনা চলতে থাকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত। সবশেষে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে সমাপ্তি ঘটে উক্ত আয়োজনের। নগরীর ডিসি হিলে সম্মিলিত পহেলা বৈশাখ উদযাপন পরিষদের অনুষ্ঠান শুরু হয় বঁংশীবাদনের মধ্যেদিয়ে ভোর ৭টায়। দিনভর বিভিন্ন সঙগঠন ও একক শিল্পীদের পরিবেশনার মধ্যদিয়ে সন্ধ্যা ৬টায় শেষ হয় আয়োজন।

এদিকে নগরীর সার্কিট হাউজ থেকে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সকাল সাড়ে ৮টায় শুরু হয় মঙ্গল শোভাযাত্রা। শোভাযাত্রায় অংশ নেতৃত্ব দেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন। যাত্রার পুরোভাগে ছিলেন চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মাননান। এছাড়া নগরীর বিভিন্ন সরকারি - বেসরকারি  প্রতিষ্ঠিানের কর্মকর্তা ও প্রতিনিধিদের সহযোগে শোভাযাত্রাটি শেষ হয় জেলা শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গনে জেলা প্রশাসন আয়োজিত বৈশাখী অনুষ্ঠান স্থলে।  এতে শুভেচ্ছা বিনিময়, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও চিরায়ত পান্তা-ইলিশের আয়োজনে অংশ নেন প্রশাসন, আইন-শৃঙ্খলাবাহিনী ও সংস্কৃতিকর্মীদের প্রতিনিধিরা।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় চারুকলা ইনস্টিটিউট নগরীতে একটি মঙ্গল শোভাযাত্রা বের করে। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য বৈশাখী অনুষ্ঠান। চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের বঙ্গবন্ধু হলে অনুষ্ঠিত হয় ক্লাব সদস্য ও পরিবারের সদস্যদের অংশগ্রহণে বৈশাখী অনুষ্ঠান। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার


আপনার মন্তব্য