২৬ জুন, ২০২৪ ১৭:৫৭

শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে চোখ নষ্ট করার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম:

শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে চোখ নষ্ট করার অভিযোগ

চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলার এক হেফজখানার শিক্ষার্থীকে মারার পর চোখ নষ্ট হওয়ার অভিযোগ ওঠেছে। এ নিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষিকা মোছা. শাহিন আক্তারের বিরুদ্ধে বোয়ালখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে অভিযোগ দিয়েছেন ভুক্তভোগী ছাত্র মো. আয়াতুল ইসলামের (৭) মা স্বপ্না আক্তার।

জানা যায়, বোয়ালখালীর জোটপুকুর পাড় এলাকার বাগে সিরিকোট তাহফিজুল কুরআন আইডিয়াল মাদ্রাসায় ২৬ মে হেফজ বিভাগের ছাত্র মো. আয়াতুল ইসলাম শিক্ষিকার বেতের আঘাতে বাম চোখে আঘাত পায়। চোখে আঘাত পাওয়ার পর তারা চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়াই একটি ড্রপ ব্যবহার করেন, যার কারণে চোখ আরও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিষয়টি গোপন রাখে বলে অভিযোগ পরিবারের।

অভিযোগ পত্রে স্বপ্না আক্তার বলেন, ওই শিক্ষিকা ছেলে পড়া কম পড়ার অজুহাতে বেধড়ক বেত্রাঘাত করে তার বাম চোখের দৃষ্টি নষ্ট করে ফেলে। সকল চিকিৎসা শেষ করে চিকিৎসকরা জানিয়েছে, আমার ছেলের চোখের মণিতে ব্যাপক আঘাত হওয়ায় সে চিরতরে দৃষ্টিশক্তি হারিয়ে ফেলেছে। এমতাবস্থায় আমি নিরুপায় হয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যান, মেম্বারসহ গণ্যমান্য ব্যক্তির স্মরণাপন্ন হয়েছি।

মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মো. মহিউদ্দিন মানিক বলেন, আায়াতের চোখ লাল হওয়ায় অভিভাবকের কাছে পৌঁছে দিয়েছিলাম। মাদ্রাসায় কেউ মারধর করেনি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার হোসাইন সজীব বলেন, আমি হাসপাতালে গিয়েছি। পরিবারকে ছেলের চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ ও চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছি। সেই সঙ্গে এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করার কথা জানিয়েছি।

বিডি প্রতিদিন/এএম

সর্বশেষ খবর