শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৬ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৫ জানুয়ারি, ২০১৯ ২২:৫৫

শাবিতে মেধাবী শিক্ষার্থীর আত্মহত্যায় তদন্ত কমিটি

শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের (শাবি)   জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি (জিইবি) বিভাগ থেকে অনার্সে ফাস্ট ক্লাস ফাস্ট হওয়া  মেধাবী ছাত্র তাইফুর রহমান প্রতীকের আত্মহত্যায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। বিশ^বিদ্যালয়ের এগ্রিকালচার অ্যান্ড মিনারেল সায়েন্স ফ্যাকাল্টির ডিন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ বেলাল উদ্দীনকে প্রধান করে এই কমিটি করা হয়। কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন গণিত বিভাগের প্রফেসর ড. মো আনোয়ারুল ইসলাম ও সহকারী প্রক্টর মো. সামিউল ইসলাম। এদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতীকের আত্মহত্যার জন্য শাবির জিইবি বিভাগের শিক্ষকদের দায়ী করেছেন তার বড় বোন ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিউনিকেশন ডিসঅর্ডার বিভাগের শিক্ষক শান্তা তাওহিদ। অনার্সে ফাস্ট ক্লাস ফাস্ট হওয়া সত্ত্বেও প্রতীককে মাস্টার্সে সুপারভাইজার না দেওয়া এবং বিভিন্ন কোর্সে কম নাম্বার দেওয়ার অভিযোগ করেন শান্তা তাওহিদ। এ ব্যাপারে জিইবি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক শামসুল হক প্রধান বলেন, সুপারভাইজার না দেওয়ার বিষয়ে আমি কিছু বলতে পারছি না। আমি কিছুদিন হল বিভাগীয় প্রধানের দায়িত্বে এসেছি। এ বিষয়ে তদন্ত করা হবে। 

অন্যদিকে প্রতীকের বন্ধু ফাহমিদ হোসেন ভূঁইয়া জানান, ‘প্রতীক কয়েকদিন ধরে ব্যক্তিগত কিছু সমস্যা নিয়ে হতাশায় ছিলেন। বন্ধুদের সঙ্গেও যোগাযোগ কমিয়ে দিয়েছিল।’ উল্লেখ, সোমবার বিকালে নগরীর কাজলশাহ এলাকার একটি বাসা থেকে পুলিশ প্রতীকের ফ্যানে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর