শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০১:০৬

সংসদে তথ্য

১৬৩ পোশাক কারখানা ঝুঁকিপূর্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৬৩ পোশাক কারখানা ঝুঁকিপূর্ণ

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি সংসদে জানিয়েছেন, দেশে সরকারিভাবে চিহ্নিত ঝুঁকিপূর্ণ পোশাক কারখানার সংখ্যা ১৬৩টি। এর মধ্যে ৩৯টি পুরোপুরি বন্ধ ও ৮৬টি আংশিক বন্ধ করা হয়েছে। অবশিষ্ট কারখানার সংস্কার কাজ চলছে। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে গতকাল সংসদের বৈঠকে প্রশ্নোত্তর পর্বে তিনি এসব তথ্য জানান। বাণিজ্যমন্ত্রী আরও জানান, রানা প্লাজা দুর্ঘটনার পর ইউরোপীয় ক্রেতা সংগঠন একর্ড, উত্তর আমেরিকার ক্রেতা সংগঠন এলায়েন্স ও জাতীয় উদ্যোগের আওতায় তিন হাজার ৭৮০টি কারখানার প্রিলিমিনারি এসেসমেন্ট সম্পন্ন করা হয়েছে। কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদফতরের মহাপরিদর্শক, রাজউক, সিডিএ, কডিএ ও বুয়েট সদস্যদের সমন্বয়ে রিভিউ প্যানেল এসব কারখানা চিহ্নিত করে। মন্ত্রী আরও জানান, বর্তমানে একর্ডের সংস্কার কার্যক্রমের অগ্রগতির হার ৮৪ ভাগ এবং এলায়েন্সের হার ৯০ ভাগ।

ভারত থেকে চাল, গম, ডাল, দুধ ও চিনি আমদানি : এক প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী জানান, ভারত থেকে প্রধানত চাল, গম, ডাল, দুধ ও চিনি জাতীয় খাদ্য আমদানি করা হয়ে থাকে। এ ছাড়া গুঁড়া মসলা, হিমায়িত ও জীবন্ত মাছ, চিংড়ি মাছ, ফলমূল, কৃষি পণ্য, শাক-সবজি প্রভৃতি খাদ্যসামগ্রী রপ্তানি করা হয়। আরেক প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, দেশের চাহিদা অনুযায়ী চিনির উৎপাদন কম থাকায় চিনি আমদানি বন্ধের কোনো পরিকল্পনা আপাতত সরকারের নেই। চিনির বার্ষিক চাহিদা প্রায় ১৬ লাখ মেট্রিক টন। ২০১৬-১৭ অর্থবছরে সরকারি চিনিকলে উৎপাদন ছিল ৬৮ হাজার ৫৬২ মেট্রিক টন। বর্তমানে ব্রাজিল, ভারত, অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাজ্য ও মালয়েশিয়া থেকে বাংলাদেশ চিনি আমদানি করে থাকে। আসন্ন রমজান মাসে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ নিয়ে বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য সাশ্রয়ী মূল্যে ভোক্তাসাধারণের মধ্যে বিক্রির জন্য টিসিবি প্রতি বছর বিশেষ করে রমজান উপলক্ষে চিনি, সয়াবিন তেল, ছোলা, মসুর ডাল, খেজুর ও পিয়াজ ইত্যাদি বিক্রি করা হবে। সংসদে প্রধানমন্ত্রী বা অন্য কোনো মন্ত্রীকে সম্পূরক প্রশ্ন করার সময় সংসদ সদস্যদের বক্তৃতা দেওয়ার প্রবণতায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম। সম্পূরক প্রশ্নকারী সংসদ সদস্যরা যাতে প্রশ্ন করতে গিয়ে বেশি বক্তৃতা বা ভূমিকা না রেখে সংক্ষেপে শুধু জিজ্ঞাস্য প্রশ্নটি করেন সে বিষয়ে তিনি স্পিকারের নির্দেশনা চান।

ভূমিকম্পের বড় ঝুঁকিতে সিলেট : দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান বলেছেন, বাংলাদেশ ভূমিকম্পের যথেষ্ট ঝুঁকিতে রয়েছে। ঝুঁকির মাত্রার ওপর ভিত্তি করে দেশকে চারটি সিসমিক জোনে ভাগ করা হয়েছে। এর মধ্যে সিলেট ও পাশের এলাকা সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ, আর যশোর ও খুলনা এলাকা ভূমিকম্পের ক্ষেত্রে সবচেয়ে কম ঝুঁকিপূর্ণ। জাতীয় সংসদে গতকালের বৈঠকে তিনি এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, ঢাকাসহ দেশের কয়েকটি জেলা ভূমিকম্পের ঝুঁকিতে থাকায় ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট সিটি করপোরেশনসহ কয়েকটি মহানগরীতে আপৎকালীন পরিকল্পনা প্রস্তুত করা হয়েছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর