শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১ মে, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩০ এপ্রিল, ২০১৯ ২৩:৪৪

অতিরিক্ত চাঁদা কর্তনের সুরাহা হয়নি

আন্দোলন চালিয়ে যাবেন শিক্ষকরা

নিজস্ব প্রতিবেদক

আন্দোলন চালিয়ে যাবেন শিক্ষকরা

কল্যাণ ট্রাস্ট ও অবসর সুবিধা বোর্ডের জন্য ১০ শতাংশ চাঁদা আদায়ের প্রজ্ঞাপন বাতিল দাবিতে আন্দোলন করে আসছিলেন বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারীরা। আন্দোলনরত শিক্ষকনেতাদের গতকাল বৈঠকে ডাকেন মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের (মাউশি) মহাপরিচালক অধ্যাপক ড. মো. গোলাম ফারুক। তবে বৈঠকে অতিরিক্ত চাঁদা কর্তন বাতিলের কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তাই শিক্ষকরা আন্দোলন চালিয়ে যাবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন।

তথ্যমতে, গতকাল দুপুর ২টা ১৫ মিনিটে অধিদফতরের সভাকক্ষে শিক্ষক নেতাদের সঙ্গে মহাপরিচালকের বৈঠক শুরু হয়। মাউশির কলেজ শাখার পরিচালক শাহেদুল খবির চৌধুরী বৈঠক পরিচালনা করেন। বৈঠক শেষে জটিলতা নিরসনে একটি কমিটি গঠনের

আশ্বাস দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। একই সঙ্গে আলোচনা চলমান থাকবে বলে শিক্ষকদের জানান মাউশির মহাপরিচালক। কিন্তু শিক্ষক নেতারা জানিয়ে দেন ১০ শতাংশ চাঁদা কর্তন অব্যাহত রেখে আলোচনা করা সম্ভব নয়। বৈঠকে বাংলাদেশ শিক্ষক ইউনিয়নের সভাপতি আবুল বাশার হাওলাদার, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির সভাপতি বজলুর রহমান মিয়া, সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ আবুল কাশেম, সাধারণ সম্পাদক কাওছার আলী শেখ, যুগ্ম সম্পাদক আবু জামিল মোহাম্মদ সেলিম, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির সভাপতি নজরুল ইসলাম রনিসহ প্রায় ২৫ জন শিক্ষক নেতা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারীদের অবসর সুবিধা বোর্ড ও কল্যাণ ট্রাস্টের জন্য বাড়তি চাঁদা কর্তনের প্রজ্ঞাপন বাতিলের দাবিতে গতকাল সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বিক্ষোভ করেছে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি। তারা ঈদের আগেই সরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের ন্যায় বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের পূর্ণাঙ্গ উৎসব ভাতা, বাড়িভাড়া ও চিকিৎসা ভাতা প্রদানেরও দাবি জানান। সমিতির সভাপতি বজলুর রহমান মিয়া, সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ আবুল কাশেম, সাধারণ সম্পাদক কাওছার আলী শেখ, যুগ্ম সম্পাদক আবু জামিল মোহাম্মদ সেলিম এতে বক্তব্য দেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর