শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২৩:৩৯

ছাত্রলীগের কান্ড

‘এই যে দেখেন, আমার দাঁত ফালায় দিছে’

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

‘এই যে দেখেন, আমার দাঁত ফালায় দিছে’

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার বাড়ৈপাড়ায় বাঁধন বাসের কন্ডাক্টর আবুল মিয়ার (৪৮) দাঁত উপড়ে ফেলার অভিযোগ উঠেছে নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রলীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক সাকিব আঞ্জুম সুস্মিত ও তার অনুগামীদের বিরুদ্ধে। ৩ ফেব্রুয়ারি তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের এলোপাতাড়ি মারধরে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা আহত বাস কন্ডাক্টরকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ

জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। আবুল মিয়া বন্দর উপজেলার কলাগাছিয়া ইউনিয়নের মাধবপাশার মৃত আবদুল মজিদ মিয়ার ছেলে। এ ব্যাপারে আবুল মিয়া বাদী হয়ে সন্ধ্যায় ছাত্রলীগ নেতা সুস্মিতসহ তিনজনের নাম উল্লেখ করে বন্দর থানায় একটি মামলা করেছেন। আবুল মিয়া সাংবাদিকদের সামনে মুখ হাঁ করে মারধরে পড়ে যাওয়া দাঁতের শূন্যস্থান দেখিয়ে বলেন, ‘এই যে দেখেন আমার দাঁত ফালায় দিছে।’

তিনি আরও জানান, ‘সোমবার সকালে প্রয়োজনীয় কাজে আমি আমার বন্ধুর বাড়ি বাড়ৈপাড়ায় আসি। ওই সময় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বন্দর এইচ এম সেন রোডে বাড়ৈপাড়ার আবু মিয়ার ছেলে মহানগর ছাত্রলীগের যুগ্মসম্পাদক সাকিব আঞ্জুম সুস্মিত, একই এলাকার জাকির মিয়ার ছেলে পিয়াস ও হায়াতুর রহমানের ছেলে সানোয়ারসহ অজ্ঞাত চার-পাঁচ সন্ত্রাসী বেদম পিটিয়ে জখমসহ একটি দাঁত ফেলে দেয়।’ পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। অভিযোগ পেয়ে বন্দর ফাঁড়ি ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মোস্তাফিজুর রহমানসহ সঙ্গীয় ফোর্স দ্রুত ঘটনাস্থলে এলে কৌশলে পালিয়ে যায়।

বন্দর থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর