শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২৩:০০

দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসীদের জামিনের হিড়িক!

শঙ্কিত সম্ভাব্য মেয়র কাউন্সিলর প্রার্থীরা

মুহাম্মদ সেলিম, চট্টগ্রাম

দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসীদের জামিনের হিড়িক!

সিটি নির্বাচন সামনে রেখে হঠাৎ জামিনের হিড়িক পড়েছে চট্টগ্রামে। দুই সপ্তাহের ব্যবধানে চট্টগ্রাম কারাগার থেকে বের হয়েছেন কমপক্ষে ১ হাজার ২০০ দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী। যাদের মধ্যে চট্টগ্রামের দুর্ধর্ষ অপরাধী রয়েছেন অর্ধশতাধিক। সিটি নির্বাচনের আগে দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসীদের জামিনে মুক্ত হওয়াকে ‘বিপদ’ হিসেবে দেখছেন চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনে সম্ভাব্য মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা। তবে, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটান পুলিশ (সিএমপি) কমিশনার মাহাবুবর রহমান বলেন, ‘জামিনের বিষয়টা নির্ভর করে আদালতের উপর। পুলিশের করণীয় কিছু নেই। তবে কোনো অপরাধী জামিনে মুক্ত হয়ে যাতে ফের অপরাধমূলক কার্যকলাপে জড়াতে না পারেন সে বিষয়ে ব্যবস্থা নেবে সিএমপি।’ চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেলা সুপার কামাল হোসেন বলেন, কোনো অপরাধীর জামিন আদেশ এলে আমরা কারাবিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেই। যদি জামিন আদেশ আসা আসামিদের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা থাকে তাহলে পুলিশের সংশ্লিষ্ট ইউনিটকে তা জানানো হয়।’ অনুসন্ধানে জানা যায়, এ মাসের শুরুতে হঠাৎ করে চট্টগ্রামে জামিনের হিড়িক পড়ে। আগে যেখানে সপ্তাহে গড়ে ৭০ থেকে ৮০ জন আসামির জামিন আদেশ কারাগারে যেত, সেখানে বর্তমানে ১০০ থেকে ১২০টি জামিন আদেশ কারাগারে যাচ্ছে। গত দুই সপ্তাহে কমপক্ষে ১ হাজার ২০০ আসামি জামিনে মুক্ত হয়েছেন। যাদের মধ্যে কমপক্ষে ৫০ জন দুর্ধর্ষ অপরাধী। গত দুই সপ্তাহে জামিন পাওয়া দুর্ধর্ষ অপরাধীদের মধ্যে রয়েছেন শাহনামা ওরফে বাচা মিয়া, ওয়াহিদ ইমন খান ওরফে সারাত, শহীদুল আলম আরজু, সবুজ গাজী, মো. ইমরান প্রমুখ। আর এ মাসের শুরুতে জামিনে মুক্ত হয়েছেন সিএমপির তালিকাভুক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী এহতেশামুল হক ভোলা, ছাত্রলীগ নেতা সুদীপ্ত হত্যা মামলার অন্যতম আসামি দিদারুল আলম মাসুমসহ আরও কয়েকজন দুর্ধর্ষ অপরাধী। চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনে বিএনপির সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী ও মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, ‘দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসীরা জামিনে বের হলে তা আসন্ন নির্বাচনে বিপদের কারণ হয়ে দাঁড়াবে। তারা নির্বাচনে প্রভাব বিস্তার করবে।

 তাই জামিনে বের হওয়া সন্ত্রাসীদের ফের গ্রেফতারের দাবি এবং যারা জামিনে বের হওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জোর দাবি করছি।’

 একই ভাবে নিজেদের শঙ্কার কথা জানিয়েছেন সিটি করপোরেশন নির্বাচনের কাউন্সিলর প্রার্থী ৩১ নং ওয়ার্ডের ইয়াসির আরাফাত, ৮নং ওয়ার্ডের হাবিবুর রহমান তারেক ও ৬নং আবদুল আজিজ। তারা বলেন-দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসীরা সুষ্ঠু নির্বাচনের অন্যতম বাধা। জামিনে বের হওয়া এবং এই দুর্ধর্ষ অপরাধীদের জামিনের জন্য প্রচেষ্টাকারীদের বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্টদের কাছে জোর দাবি করছি।’


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর