শিরোনাম
প্রকাশ : ২২ নভেম্বর, ২০২০ ১০:১৯
আপডেট : ২২ নভেম্বর, ২০২০ ১০:২৪

করোনা চিকিৎসায় রেমডেসিভির ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি

অনলাইন ডেস্ক

করোনা চিকিৎসায় রেমডেসিভির ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি
ফাইল ছবি

করোনাভাইরাস সংক্রমণে গুরুতর অসুস্থ রোগীদের চিকিৎসায় রেমডেসিভির ব্যবহার সাড়া ফেলেছিল গোটা বিশ্বে।

তবে রেমডেসিভির প্রয়োগের ফলে করোনায় মৃত্যুর হার কমেছে বা রোগীদের ভেন্টিলেশনের প্রয়োজন কমেছে বলে কোনও তথ্য মেলেনি। ফলে করোনার চিকিৎসার জন্য রোগীদের রেমডেসিভির দেওয়া যাবে না। জানিয়ে দিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। সংস্থাটি জানিয়েছে, কোভিড চিকিৎসার ওষুধের তালিকা থেকে রেমডেসিভিরকে বাদ দেওয়া হয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মুখপাত্র তারিক জাসেরেভিক জানিয়েছেন, কোভিড চিকিৎসার জন্য যেসব ওষুধ রয়েছে তার মধ্যে থেকে রেমডেসিভিরকে বাদ দেওয়া হয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এই ওষুধকে মান্যতা দেয় না।

শুক্রবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইন ডেভালপমেন্ট গ্রুপ প্যানেল অফ ইন্টারন্যাশনাল এক্সপার্ট জানিয়েছে, রেমডেসিভির প্রয়োগের ফলে করোনায় মৃত্যুর হার কমেছে বা রোগীদের ভেন্টিলেশনের প্রয়োজন হচ্ছে না এমন কোনও প্রমাণ নেই। ফলে করোনার চিকিৎসার জন্য রোগীদের রেমডেসিভির দেওয়া যাবে না। বিশ্বের ৩০টিরও বেশি দেশের ১১ হাজার ২৬৬ জন রোগীর উপর সমীক্ষা চালানোর পর এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেবিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

এর আগে অবশ্য মার্কিন গবেষকরা দাবি করেছিলেন যে, অ্যান্টিভাইরাল ড্রাগ রেমডেসিভির মানব শরীরে নোভেল করোনা ভাইরাসের বংশবৃদ্ধি রুখতে সাহায্য করছে। চিকিৎসকদের একাংশের দাবি ছিল, এই ওষুধ রোগীর ফুসফুসে সংক্রমণ রুখতে সাহায্য করে। ফলে করোনা রোগীদের মৃত্যুর হার কমে। এরপর বিশ্বজুড়ে অনেক জায়গাতেই এই অ্যান্টি ভাইরাল ড্রাগটি ব্যবহার করা হচ্ছিল।

 

বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর