শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২০ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ এপ্রিল, ২০১৯ ২৩:৪২

স্কুলমাঠে পশুর হাট!

ঘাটাইল প্রতিনিধি

স্কুলমাঠে পশুর হাট!
স্কুলমাঠে পশু নিয়ে ক্রেতা-বিক্রেতা -বাংলাদেশ প্রতিদিন

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার হাসান পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয়মাঠে ৩০ বছর ধরে সপ্তাহে এক দিন বসছে গরু-ছাগলের হাট। এই এক দিনের প্রভাব থাকে সপ্তাহের বাকি দিনগুলোতেও। ফলে শিক্ষার্থীদের খেলাধুলা-তো দূরের কথা, গরুর মলমূত্রের দুর্গন্ধে শ্রেণিকক্ষে অবস্থান করাও কঠিন হয়ে পড়ে।

বিদ্যালয়টিতে শিক্ষার্থী সংখ্যা এক হাজারের বেশি। বিশাল মাঠ থাকলেও প্রতি সপ্তাহে রবিবার গরু হাট বসায় শিক্ষার্থীদের জন্য মাঠ কোনো কাজে আসছে  না। গরু-ছাগলের মল-মূত্রের কারণে বিদ্যালয়ের স্বাভাবিক  পরিবেশ বিনষ্ট হচ্ছে। দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী জানান, পশুর মলমূত্র থেকে দুর্গন্ধে শ্রেণিকক্ষে বসে থাকা যায় না। এর মধ্যেই ক্লাস করতে হয়। প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ বলেন, ‘১৯৮৬ সালে কদমতলী হাটটি প্রতিষ্ঠিত হয়। হাট প্রতিষ্ঠার কিছুদিন পর থেকে বিদ্যালয় মাঠে নিয়মিত পশুর হাট বসছে। ২০১৫ সালে হাট স্থানান্তরের জন্য জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন করা হয়েছিল। অগ্রগতি হয়নি।’ ঘাটাইল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডা. আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘খুরা ও এনথ্রাক্স রোগে আক্রান্ত গরুর মলমূত্র মাঠে থাকলে শিক্ষার্থীরা খালি পায়ে সেখানে চলাফেরা করলে তারাও এ রোগে আক্রান্ত হতে পারে।’

 


আপনার মন্তব্য